ব্রেকিং:
আরব আমিরাত ও যুক্তরাজ্যের উদ্দেশে ঢাকা ছেড়েছেন রাষ্ট্রপতি গার্ডেন থিয়েটার কুমিল্লার একক নাট্য প্রদর্শনী ১০ রাষ্ট্রদূতকে দেশে ফেরার নির্দেশ ইঞ্জিন বিকল, উত্তরবঙ্গের সঙ্গে ঢাকার রেল যোগাযোগ বন্ধ রোজায় কমলো অফিসের সময়সূচি গাড়ি তৈরি করবে প্রগতি ইন্ডাস্ট্রিজ: শিল্পমন্ত্রী পরিবেশ রক্ষায় চুক্তি স্বাক্ষরে সম্মত বাংলাদেশ ও সৌদি আরব রোজায় বড় ইফতার পার্টি না করার নির্দেশনা প্রধানমন্ত্রীর রমজানে লোডশেডিং নিয়ে সুখবর দিলেন প্রধানমন্ত্রী শিল্প-পণ্য মেলা বন্ধ চেয়ে ডিসিকে ব্যবসায়ীদের চিঠি ‘বউ-শাশুড়ি বইঘর’ গড়তে ২০০ বই নিয়ে শ্বশুরবাড়িতে নববধূ পুলিশের দুই মামলায় জামিন পেলেন লক্ষ্মীপুর বিএনপির সদস্য সচিব শখের মোটরসাইকেলেই প্রাণ গেল কলেজছাত্র মাহিনের সেনবাগে বৃদ্ধকে পিটিয়ে হত্যা, গ্রেপ্তার ৩ রমজানে নিত্যপণ্যের দাম নিয়ন্ত্রণে পদক্ষেপ নিয়েছে সরকার সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্যদের শপথ বুধবার এসএসসি পরীক্ষায় নকল দিতে গিয়ে ৩ যুবকের ২ বছর করে কারাদণ্ড ‘হামলা’ ও হেনস্থার বিচার দাবি কুবি শিক্ষক সমিতির প্রচারণায় পাল্টাপাল্টি অভিযোগ বিনা টিকিটে ভ্রমণ, ট্রেনের ভাড়া পরিশোধ করলেন প্রবাসী
  • মঙ্গলবার ০৫ মার্চ ২০২৪ ||

  • ফাল্গুন ২০ ১৪৩০

  • || ২২ শা'বান ১৪৪৫

নেশার টাকা না পেয়ে ভাগনেকে হত্যা, মামার যাবজ্জীবন

নোয়াখালী সমাচার

প্রকাশিত: ২৮ নভেম্বর ২০২৩  

ফেনীতে বোনের ছেলেকে গলা কেটে হত্যা মামলায় নূর আলম (৩০) নামে এক ব্যক্তিকে যাবজ্জীবন সাজা দিয়েছেন আদালত। সোমবার (২৭ নভেম্বর) দুপুরে ফেনীর অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ মো. রেজাউল করিম এ রায় দেন। এ সময় সাজাপ্রাপ্ত আসামি আদালতে উপস্থিত ছিলেন। 

দণ্ডপ্রাপ্ত নূর আলম ফেনী সদর উপজেলার পূর্ব ফাজিলপুর গ্রামের মফিজুর রহমানের ছেলে।  

আদালত সূত্রে জানা যায়, ২০১৬ সালের ২৯ আগস্ট বিকেলে নেশার টাকা না পেয়ে ভাগনে মনসুর আলমকে (১০) বাড়ির পাশে নির্জন স্থানে নিয়ে ছুরি দিয়ে গলা কেটে হত্যা করেন নূর আলম। পরদিন স্থানীয় বোয়াইল্লা খাল পাড়ের মর্তুজার জমি থেকে মনসুরের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় ওই দিন স্থানীয়রা নূর আলমকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেন। 

পরে নূর আলম নিজ হাতে ভাগনেকে হত্যা করার বিষয়টি স্বীকার করে আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দেন। মামলাটি তদন্ত শেষে একমাত্র আসামির বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দায়ের করেন পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) আজিজ আহাম্মদ। এ মামলায় ৯ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে আজ রায় দেন বিচারক। রায়ে একমাত্র আসামি নুর আলমকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও ৫ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও ১ বছরের কারাদণ্ডাদেশ দেওয়া হয়। 

ফেনী আদালতের এপিপি ফরিদ আহাম্মদ হাজারী জানান, ঘটনার পর ২০১৬ সাল থেকেই নূর আলম কারাগারে ছিলেন। তার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণিত হওয়ায় আদালত দণ্ড ঘোষণা করেছেন। রায় ঘোষণার পর তাকে জেলা কারাগারে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।