ব্রেকিং:
নোয়াখালীর কবিরহাটে ৩৬ দিন পর লাশ উত্তোলন বসুরহাটের বাজেট ঘোষণা করলেন মেয়র কাদের মির্জা প্রেমিকের সঙ্গে বিয়েতে বাবা-মা রাজি না হওয়ায় আত্মহত্যা নানা সংকটে হুমকিতে নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ বিসিক শিল্পনগরী নোয়াখালীতে পানিতে ডুবে দুই বোনের মৃত্যু মালয়েশিয়ায় কর্মী পাঠানোর নামে পাচার হয়েছে ৩৫শ’ কোটি টাকা নেত্রকোণায় কাঁচা ঘাস খেয়ে ২৬ গরুর মৃত্যু প্রত্যেকটা গ্রামকে আমরা নাগরিক সুবিধায় নিয়ে আসব ফেনীর সোনাগাজীতে চাঁদা আদায়কালে র‌্যাবের হাতে গ্রেফতার ৮ ফেনীর সোনাগাজীর চরাঞ্চলে বজ্রপাতে প্রাণ গেলো ১২ গবাদিপশুর ফেনীর সোনাগাজীতে আযান দেওয়ার সময় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট ফেনীর ফুলগাজীতে ফুটপাত মুক্ত করতে নির্দেশনা নতুন সেনাপ্রধান লেফটেন্যান্ট জেনারেল ওয়াকার-উজ-জামান নোয়াখালীর সুবর্ণচরের ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শন নোয়াখালীর চাটখিলে চেম্বারে রোগীকে ধর্ষণের অভিযোগ কাদের মির্জার প্রার্থীর পোলিং এজেন্ট হয়ে পদ হারাল ছাত্রদল নেতা স্বেচ্ছাসেবক লীগের কমিটিতে হেলথ প্রোভাইডার মসজিদ থেকে জুতা চুরি করায় প্রবাসীকে ফেরত পাঠাচ্ছে কুয়েত! ভদ্র স্বভাবের বিগ বসের অপর নাম ‘শিক্ষিত গরু’, দাম ৫ লাখ রাজার পছন্দের খাবার আপেল-মাল্টা-পেয়ারা, ওজন ১১ মণ
  • শুক্রবার ১৪ জুন ২০২৪ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ৩১ ১৪৩১

  • || ০৬ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

ফেনী নদীতে ভারত-বাংলাদেশ মৈত্রী সেতু, চলাচল কবে?

নোয়াখালী সমাচার

প্রকাশিত: ১১ জুন ২০২৪  

ভারতের সঙ্গে যোগাযোগে আরও একটি পথ উন্মুক্ত হতে যাচ্ছে। সবকিছু ঠিক থাকলে, চলতি বছরের সেপ্টেম্বর মাসেই ফেনী নদীর ওপর নির্মিত ভারত-বাংলাদেশ মৈত্রী সেতু দিয়ে যান চলাচল শুরু হবে বলে জানা গেছে।

২০২১ সালের ৯ মার্চ ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেদ্র মোদি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যৌথভাবে উদ্বোধন করেন সেতুটি। ১ দশমিক ৯ কিলোমিটার দীর্ঘ এই সেতু রামগড়কে ভারতের দক্ষিণ ত্রিপুরার সাব্রুমের সঙ্গে যুক্ত করেছে। 

এর আগে একাধিকবার সেতুটি দিয়ে যানবাহন চলাচল শুরুর উদ্যোগ নেওয়া হয়। কিন্তু পরিকাঠামোগত কাজ শেষ না হওয়ায় তা শুরু করা যায়নি। তথ্য বলছে— মৈত্রী সেতু থেকে চট্টগ্রাম বন্দরের দূরত্ব মাত্র ৮০ কিলোমিটার। 

মৈত্রী সেতু সংশ্লিষ্টরা জানান, সেতু দিয়ে পণ্যবাহী যান চলাচল কৌশলগতভাবে কেবল ত্রিপুরার জন্য নয়, পুরো উত্তর-পূর্ব ভারতের জন্যই গুরুত্বপূর্ণ। ফলে ত্রিপুরাসহ উত্তর-পূর্ব ভারতের রাজ্যগুলোর সঙ্গে চট্টগ্রাম বন্দরের যোগাযোগ আরও সহজ হবে। সেতুর মাধ্যমে দুই দেশের বাণিজ্য এবং আমদানি-রফতানিও বৃদ্ধি পাবে বলে আশা করছেন তারা। 

ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী মানিক সাহা জানিয়েছেন, শিগগিরই বাংলাদেশ এবং সাব্রুমের মধ্যে থাকা মৈত্রী সেতু চালু হতে যাচ্ছে। 

এছাড়া ত্রিপুরার শিল্প ও বাণিজ্য সচিব কিরণ গিত্তে বলেন, ‘ইতিমধ্যেই মৈত্রী সেতুর উদ্বোধন হয়েছে। কিন্তু এই সেতু দিয়ে যাতায়াত শুরু হয়নি। এবার চলাচল শুরু হবে। ঠিক হয়েছে, সেপ্টেম্বর মাসেই এই সেতুটি দিয়ে যাত্রী পারাপার শুরু হবে।’

তবে যাত্রী চলাচল শুরু হলেও পণ্য পরিবহন শুরু করতে আরও কিছুটা সময় লাগবে বলে জানিয়েছেন ত্রিপুরার বাণিজ্য সচিব। তিনি বলেন, ‘যাত্রী চলাচল শুরু হওয়ার পর মৈত্রী সেতু দিয়ে পণ্য পরিবহন শুরু হতে দু’তিন মাস সময় লাগবে। সেই লক্ষ্যে কাজ চলছে।’

সংশ্লিষ্টরা বলছেন— মৈত্রী সেতুটি নির্মাণ করা হয়েছে ফেনী নদীর ওপর। এর ফলে ফেনী নদী, চট্টগ্রাম সমুদ্রবন্দর হবে উত্তর-পূর্ব ভারতের রাজ্যগুলোর অ্যাক্সেস পয়েন্ট। এছাড়া ভারত ও বাংলাদেশ চাইছে দুদেশের মধ্যে যোগাযোগ বৃদ্ধি হোক। সেই হিসাবে সেতুটি উদ্বোধন হলে আরও সহজে যোগাযোগ করা যাবে দুদেশে। 

তারা আরও বলছেন, ‘মৈত্রী সেতু যোগাযোগ ব্যবস্থা উন্নত এবং সহজ করবে। পাশাপাশি ব্যবসা-বাণিজ্য বাড়ানোর লক্ষ্যে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে। ফলে ভারত এবং বাংলাদেশের মধ্যে পণ্য এবং যাত্রী চলাচল অনেক সহজ হবে। এই সেতু উত্তর-পূর্ব ভারতের অর্থনীতিকে চাঙ্গা করবে। সেই সঙ্গে মৈত্রী সেতু দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার বিভিন্ন দেশ এবং উত্তরপূর্ব ভারতের মধ্যে বাণিজ্য ও যোগাযোগের নতুন পথের সূচনা করবে।’ সূত্র: এই সময়