ব্রেকিং:
রাইসির মৃত্যুতে বাংলাদেশে রাষ্ট্রীয় শোক ঘোষণা শান্তিপূর্ণ সমাজ বিনির্মাণে বুদ্ধের শিক্ষা অনুসরণ করা প্রয়োজন ফেনীর একরাম হত্যাকাণ্ড ১ দশক পরও মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত ১৭ আসামী পলাতক মেয়রের সামনেই কাউন্সিলরকে জুতাপেটা করলেন আলোচিত সেই চামেলী আজ ঢাকায় আসছেন অস্ট্রেলিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সাবেক সেনাপ্রধান আজিজ আহমেদের ওপর যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞা রাইসির মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতির শোক নোয়াখালীতে মাথাসহ হরিণের ৩০ কেজি মাংস উদ্ধার হাসপাতাল নয় যেন গারদখানা সম্পূর্ণ পুড়ে গেছে রাইসির হেলিকপ্টার, কোনো আরোহী বেঁচে নেই রাইসিকে বহনকারী হেলিকপ্টারের ধ্বংসাবশেষের ছবি-ভিডিও প্রকাশ্যে আজ থেকে ৬৫ দিন সামুদ্রিক জলসীমায় মৎস্য আহরণ নিষিদ্ধ নোয়াখালীতে শতকোটি টাকার জমি উদ্ধারের পর প্রকৌশলী বদলি লক্ষ্মীপুরে বিজয়ের ব্যাপারে আশাবাদি অধ্যক্ষ মামুনুর রশীদ কাঁচা মরিচের কেজি ছাড়াল ২০০ টাকা এক জালে মিলল ৫৫০০ পিস ইলিশ, ১৭ লাখে বিক্রি ছোট ভাইকে ‘কুলাঙ্গার’ বললেন মির্জা কাদের শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন বাংলাদেশের পুনর্জন্ম ফেনীতে কিশোর গ্যাং পিএনএফের প্রধানসহ গ্রেফতার ৫ সরকারি সফরে যুক্তরাষ্ট্র গেলেন সেনাপ্রধান
  • বুধবার ২২ মে ২০২৪ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ৮ ১৪৩১

  • || ১৩ জ্বিলকদ ১৪৪৫

হামানকর্দ্দির কামাল গাজীকে আসামী করে সদর মডেল থানায় মামলা

নোয়াখালী সমাচার

প্রকাশিত: ২১ অক্টোবর ২০২৩  

চাঁদপুর সদর উপজেলায় ৬নং মৈশাদী ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের হামানকর্দ্দি গ্রামের গাজী বাড়ি (করের বাড়ির) নিবাসী মমতাজ বেগমের ছেলেকে মারধরের ও হত্যার হুমকির ঘটনার ২৪দিন পর পুলিশের উর্ধ্বতন কমকতাদের নির্দেশে অবশেষে চাঁদপুর সদর মডেল থানায় জিডি করা হয়েছে। যার জিডি নং-১৩৯৮, তারিখ: ২০/১০/২০২৩খ্রি. ।

মামলায় আসামীদের বিরুদ্ধে আইনী ব্যবস্থা গ্রহনের নিদেশ দিয়েছে মডেল থানার ওসি শেখ মুহসীন আলম । মামলাটি তদন্ত করছেন এসআই কুদ্দুস ।

গতকাল ২০অক্টোবর হামানকর্দ্দি গ্রামের গাজী বাড়ি (করের বাড়ি) নিবাসী মো: কামাল গাজী (৪৩), পিতা- মৃত সামাদ গাজী কে ১নং আসামী করে জিডি করেন বাদী মমতাজ বেগম।

এতে আরও আসামী করা হয় মো: হোসেন গাজী (৪৫), পিতা-মৃত সামাদ গাজী, ৩। মুন্নি আক্তার (২৭), পিতা- কামাল গাজী, সর্ব সাং- হামানকর্দি, ওয়ার্ড নং-০৯, ০৬নং মৈশাদী ইউনিয়ন; থানা ও জেলা- চাঁদপুর।

জিডিতে বাদী উল্লেখ করেন ১নং বিবাদীসহ অন্য বিবাদীরা আমাদের পাশাপাশি বাড়ীর বাসিন্দা। বিবাদীরা অত্যাচারী, উশৃঙ্খল, লাঠিয়াল, জুলুমবাজ, পরসম্পদ লোভী, এলাকার খারাপ প্রকৃতির লোক। বিবাদীদের সাথে জায়গা সম্পত্তির বিষয় নিয়া আমাদের পূর্বে থেকে বিরোধ চলছে।

উক্ত বিরোধের জের ধরে বিবাদীরা প্রতিনিয়ত কথায় কথায় লাঠিসোঠা নিয়া আমাদের মারধর করার জন্য আসে এবং বিভিন্ন প্রকার ভয়ভীতি ও হুমকি প্রদান করে। ঘটনার তারিখ ও সময়ে ময়লা নিয়া এবং ৩নং বিবাদীর ছেলের গোসল করাকে কেন্দ্র করে বিবাদীরা আমার ছেলেকে অশ্লীল ভাষায় গালমন্দ করে। বিবাদীরা আমার ছেলেকে এলোপাথাড়ী কিল, ঘুষি, লাথি মারিয়া তাহার শরীরের বিভিন্ন স্থানে নীলা ফুলা থেতলানো জখম করে।

আমার ছেলের চিৎকার শুনে আমি ঘটনাস্থলে আসলে বিবাদীরা আমাকে ও এলোপাথাড়ী কিল, ঘুষি, লাথি মেরে আমার শরীরের বিভিন্ন স্থানে নীলা ফুলা থেতলানো জখম করে। আমার ও আমার ছেলের ডাক চিৎকারে অপরাপর সাক্ষীরা সহ আশপাশের লোকজন এসে বিবাদীদের কবল থেকে আমাদের কে রক্ষা করে। বিবাদীরা এ সময় বলে সুযোগ মত পাইলে আমাকে ও আমার পরিবারের সদস্যদেরকে প্রাণে হত্যা করে লাশ গুম করবে।

এ বিষয়ে গত ২৬সেপ্টেম্বর চাঁদপুর সদর মডেল থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।