ব্রেকিং:
মিয়ানমার সীমান্তের পরিস্থিতি মোকাবিলায় প্রস্তুত থাকার নির্দেশ রাখাইনে বড় সংঘাতের আশঙ্কা, বাসিন্দাদের সরে যাওয়ার নির্দেশ একদিনে পদ্মাসেতুর আয় পৌনে ৫ কোটি টাকা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব মেমোরিয়াল হাসপাতাল পরিদর্শনে শেখ হাসিনা ‘গ্লোবাল কোয়ালিশন ফর সোশ্যাল জাস্টিসে’ যোগ দিলো বাংলাদেশ রেলস্টশন-বাস টার্মিনালে ঘরমুখো মানুষের ঢল রোহিঙ্গা ক্যাম্পে অস্ত্র ও গুলিসহ আরসা সন্ত্রাসী গ্রেফতার ভারত-বাংলাদেশ মৈত্রী সেতু চালু হচ্ছে সেপ্টেম্বরে নোয়াখালীর কবিরহাটে ৩৬ দিন পর লাশ উত্তোলন বসুরহাটের বাজেট ঘোষণা করলেন মেয়র কাদের মির্জা প্রেমিকের সঙ্গে বিয়েতে বাবা-মা রাজি না হওয়ায় আত্মহত্যা নানা সংকটে হুমকিতে নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ বিসিক শিল্পনগরী নোয়াখালীতে পানিতে ডুবে দুই বোনের মৃত্যু মালয়েশিয়ায় কর্মী পাঠানোর নামে পাচার হয়েছে ৩৫শ’ কোটি টাকা নেত্রকোণায় কাঁচা ঘাস খেয়ে ২৬ গরুর মৃত্যু প্রত্যেকটা গ্রামকে আমরা নাগরিক সুবিধায় নিয়ে আসব ফেনীর সোনাগাজীতে চাঁদা আদায়কালে র‌্যাবের হাতে গ্রেফতার ৮ ফেনীর সোনাগাজীর চরাঞ্চলে বজ্রপাতে প্রাণ গেলো ১২ গবাদিপশুর ফেনীর সোনাগাজীতে আযান দেওয়ার সময় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট ফেনীর ফুলগাজীতে ফুটপাত মুক্ত করতে নির্দেশনা
  • রোববার ১৬ জুন ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ২ ১৪৩১

  • || ০৮ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

‘তোরা আমারে দাওয়াত দিছস, ব্যানারে নাম দিস নাই ক্যান’

নোয়াখালী সমাচার

প্রকাশিত: ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২৩  

ফেনীর ফুলগাজীতে মাদরাসার নতুন ভবনের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে ব্যানারে নিজের নাম না দেখে ক্ষুব্ধ হয়ে তা ছিঁড়ে ফেলেন উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি ও পরিষদ চেয়ারম্যান আবদুল আলিম মজুমদার। এরপর ব্যানার ছাড়াই ওই উদ্বোধন অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়।

রোববার (১৭ সেপ্টেম্বর) উপজেলার আমজাদহাটে নোয়াজ ফয়েজুন্নেছা ইসলামিয়া দাখিল মাদরাসায় এ ঘটনা ঘটে। 

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্র জানায়, ৩ কোটি ২৬ লাখ টাকা ব্যয়ে ফুলগাজী উপজেলার আমজাদ হাট ইউনিয়নের নোয়াজ ফয়জুন্নেসা ইসলামিয়া দাখিল মাদরাসার চারতলাবিশিষ্ট ভবন নির্মাণ করে শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তর। গতকাল রোববার ওই ভবন উদ্বোধনের অনুষ্ঠানে আসেন ফেনী-১ আসনের (ফুলগাজী, পরশুরাম ও ছাগলনাইয়া) সংসদ সদস্য ও জাসদের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক শিরীন আখতার। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবদুল আলিম। অনুষ্ঠানের মঞ্চে সংসদ সদস্যের নাম সম্বলিত ব্যানার দেখে ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠেন তিনি। এক পর্যায়ে চেয়ারম্যানের অনুসারীরা সেই ব্যানার খুলে ছিঁড়ে ফেলেন। পরে ব্যানার ছাড়া ওই ভবন উদ্বোধন করেন এমপি শিরীন আখতার।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে স্থানীয় কয়েকজন ব্যক্তি জানান, উপজেলা পর্যায়ের একজন শীর্ষ জনপ্রতিনিধির কাছ থেকে এমন আচরণ আশা করা যায় না। সামান্য বিষয়ে আরও সহনশীল হওয়া প্রয়োজন। অনুষ্ঠানের একপর্যায়ে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আবদুল আলিম মজুমদার উত্তেজিত হয়ে বলেন, ‘তোরা আমারে দাওয়াত দিছস, ব্যানারে নাম দিস নাই কেন।’

মাদরাসা সুপার জয়নাল আবেদীন বলেন, নাম না দেওয়ার বিষয়টি আমাদেরই ভুল হয়েছে। তবে এর পেছনে অন্য কোনো উদ্দেশ্য ছিল না।

ব্যানারে নাম না দেওয়া প্রসঙ্গে মাদরাসার প্রতিষ্ঠাতা আবুল কাশেম মজুমদার বুলবুল বলেন, অনাকাঙ্ক্ষিতভাবে ব্যানারে উপজেলা চেয়ারম্যানের নাম দেওয়া হয়নি। এজন্য তাৎক্ষণিক চেয়ারম্যানের কাছে আমরা দুঃখ প্রকাশ করেছি।

ফুলগাজী থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. আসাদুজ্জামান বলেন, উপজেলা চেয়ারম্যানের নাম না থাকায় ব্যানার খুলে ফেলা হয়।

অভিযোগ সত্য নয় দাবি করে অভিযুক্ত ফুলগাজী উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আব্দুল আলিম মজুমদার ঢাকা পোস্টকে বলেন, সংসদ সদস্য এবং মাদরাসা কমিটির দাওয়াত পেয়ে আমি অনুষ্ঠানে যাই। সেখানে গিয়ে ব্যানারে আমার নাম না দেখে তাদের এ বিষয়ে প্রশ্ন করি। পরে এমপি ব্যানারটি সরিয়ে নিতে বলেন। আমি বা আমার অনুসারীদের ব্যানার ছিঁড়ে ফেলার অভিযোগ সত্য নয়।