ব্রেকিং:
রাইসির মৃত্যুতে বাংলাদেশে রাষ্ট্রীয় শোক ঘোষণা শান্তিপূর্ণ সমাজ বিনির্মাণে বুদ্ধের শিক্ষা অনুসরণ করা প্রয়োজন ফেনীর একরাম হত্যাকাণ্ড ১ দশক পরও মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত ১৭ আসামী পলাতক মেয়রের সামনেই কাউন্সিলরকে জুতাপেটা করলেন আলোচিত সেই চামেলী আজ ঢাকায় আসছেন অস্ট্রেলিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সাবেক সেনাপ্রধান আজিজ আহমেদের ওপর যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞা রাইসির মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতির শোক নোয়াখালীতে মাথাসহ হরিণের ৩০ কেজি মাংস উদ্ধার হাসপাতাল নয় যেন গারদখানা সম্পূর্ণ পুড়ে গেছে রাইসির হেলিকপ্টার, কোনো আরোহী বেঁচে নেই রাইসিকে বহনকারী হেলিকপ্টারের ধ্বংসাবশেষের ছবি-ভিডিও প্রকাশ্যে আজ থেকে ৬৫ দিন সামুদ্রিক জলসীমায় মৎস্য আহরণ নিষিদ্ধ নোয়াখালীতে শতকোটি টাকার জমি উদ্ধারের পর প্রকৌশলী বদলি লক্ষ্মীপুরে বিজয়ের ব্যাপারে আশাবাদি অধ্যক্ষ মামুনুর রশীদ কাঁচা মরিচের কেজি ছাড়াল ২০০ টাকা এক জালে মিলল ৫৫০০ পিস ইলিশ, ১৭ লাখে বিক্রি ছোট ভাইকে ‘কুলাঙ্গার’ বললেন মির্জা কাদের শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন বাংলাদেশের পুনর্জন্ম ফেনীতে কিশোর গ্যাং পিএনএফের প্রধানসহ গ্রেফতার ৫ সরকারি সফরে যুক্তরাষ্ট্র গেলেন সেনাপ্রধান
  • বুধবার ২২ মে ২০২৪ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ৮ ১৪৩১

  • || ১৩ জ্বিলকদ ১৪৪৫

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় পৌঁছেছে শিশুদের ইপিআই টিকা

নোয়াখালী সমাচার

প্রকাশিত: ১ মার্চ ২০২৩  

দীর্ঘ প্রতীক্ষার পর অবশেষে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় কাঙ্ক্ষিত সম্প্রসারিত টিকা দান কার্যক্রমের (ইপিআই) ভ্যাকসিন পৌঁছেছে।

সোমবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) রাতে শহরের মেড্ডাস্থ ইপিআই সুপারিন্টেন্ডেন্ট কার্যালয়ে এসব টিকা পৌঁছায়।

মঙ্গলবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) বেলা ১১টা থেকে জেলার ৯টি উপজেলার স্বাস্থ্যকেন্দ্রসহ বিভিন্ন টিকাকেন্দ্রে এসব টিকা পৌঁছে দেওয়া হচ্ছে।  

জেলা সিভিল সার্জন ডাক্তার মো. একরাম উল্লাহ জানান, ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ১ লাখ ২৩ হাজার ১শ ডোজ টিকা পৌঁছেছে। আগামীকাল বুধবার থেকে জেলার সবকটি স্বাস্থ্য কেন্দ্রে স্বাভাবিকভাবে টিকাদান কার্যক্রম চলবে।  

উল্লেখ্য, ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলায় ইপিআই কার্যক্রমের আওতায় বাৎসরিক প্রায় ৯২ হাজার টিকার চাহিদা রয়েছে। তবে সরবরাহ না থাকায় জেলার ৯৮টি ইউনিয়নের ২৪ টিকা কেন্দ্রে বর্তমানে ব্যাহত হয় টিকাদান কার্যক্রম। গত এক মাস ধরে জেলার বিভিন্ন স্থানের অভিভাবকরা তাদের শিশুদের নিয়ে টিকাদান কেন্দ্রগুলোতে ভিড় করলেও কাঙ্ক্ষিত টিকা না পেয়ে ফিরে যান। স্বাস্থ্য বিভাগের পক্ষ থেকে ৭/১০ কর্মদিবসের মধ্যে গুরুত্বপূর্ণ এসব টিকা আসার কথা বলা হলেও সোমবার রাতেই ব্রাহ্মণবাড়িয়া এসে পৌঁছে টিকাগুলো।  

শিশু স্বাস্থ্য রক্ষায় জন্মের ২৩ মাসের মধ্যেই শিশুদের পর্যায়ক্রমে যক্ষা, পোলিও, ডিফথেরিয়া, হুপিং কাশি, ধনুস্টংকার, হেপাটাইটিস-বি, হিমোফাইলাস ইনফ্লুয়েঞ্জা-বি জনিত রোগ, হামসহ ১০টি রোগ প্রতিরোধ যোগ্য টিকা দেওয়া হয়। তবে গত এক মাস ধরে শুধু বিসিজির প্রথম ডোজ ও ওপিভি ছাড়া অন্য কোনো টিকা না থাকায় শিশুরা অবশিষ্ট টিকা থেকে বঞ্চিত হচ্ছিল।