ব্রেকিং:
আরব আমিরাত ও যুক্তরাজ্যের উদ্দেশে ঢাকা ছেড়েছেন রাষ্ট্রপতি গার্ডেন থিয়েটার কুমিল্লার একক নাট্য প্রদর্শনী ১০ রাষ্ট্রদূতকে দেশে ফেরার নির্দেশ ইঞ্জিন বিকল, উত্তরবঙ্গের সঙ্গে ঢাকার রেল যোগাযোগ বন্ধ রোজায় কমলো অফিসের সময়সূচি গাড়ি তৈরি করবে প্রগতি ইন্ডাস্ট্রিজ: শিল্পমন্ত্রী পরিবেশ রক্ষায় চুক্তি স্বাক্ষরে সম্মত বাংলাদেশ ও সৌদি আরব রোজায় বড় ইফতার পার্টি না করার নির্দেশনা প্রধানমন্ত্রীর রমজানে লোডশেডিং নিয়ে সুখবর দিলেন প্রধানমন্ত্রী শিল্প-পণ্য মেলা বন্ধ চেয়ে ডিসিকে ব্যবসায়ীদের চিঠি ‘বউ-শাশুড়ি বইঘর’ গড়তে ২০০ বই নিয়ে শ্বশুরবাড়িতে নববধূ পুলিশের দুই মামলায় জামিন পেলেন লক্ষ্মীপুর বিএনপির সদস্য সচিব শখের মোটরসাইকেলেই প্রাণ গেল কলেজছাত্র মাহিনের সেনবাগে বৃদ্ধকে পিটিয়ে হত্যা, গ্রেপ্তার ৩ রমজানে নিত্যপণ্যের দাম নিয়ন্ত্রণে পদক্ষেপ নিয়েছে সরকার সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্যদের শপথ বুধবার এসএসসি পরীক্ষায় নকল দিতে গিয়ে ৩ যুবকের ২ বছর করে কারাদণ্ড ‘হামলা’ ও হেনস্থার বিচার দাবি কুবি শিক্ষক সমিতির প্রচারণায় পাল্টাপাল্টি অভিযোগ বিনা টিকিটে ভ্রমণ, ট্রেনের ভাড়া পরিশোধ করলেন প্রবাসী
  • মঙ্গলবার ০৫ মার্চ ২০২৪ ||

  • ফাল্গুন ২০ ১৪৩০

  • || ২২ শা'বান ১৪৪৫

চাঁদপুর পৌরসভার নিজস্ব আয় থেকে দুই বছরে ১২ কোটি টাকার কাজ করেছে

নোয়াখালী সমাচার

প্রকাশিত: ১২ নভেম্বর ২০২২  

চাঁদপুর শহরের পালবাজারের ব্যবসায়ীদের সাথে তাদের বিভিন্ন সমস্যা নিয়ে মতবিনিময় সভা করেছেন পৌর মেয়র মোঃ জিল্লুর রহমান জুয়েল।

১১ নভেম্বর বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় পৌর পাঠাগারে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

পালবাজার ব্যবসায়ীবৃন্দ, পৌর মেয়র, প্যানেল মেয়র ও কাউন্সিলরদের নিয়ে এ সভার আয়োজন করা হয়। সকলে তাদের মতামত তুলে ধরে বক্তব্য রাখেন।

বক্তব্যে পালবাজার ব্যবসায়ীরা বলেন, ঐতিহ্যবাহী এই বাজারটি চাঁদপুর পৌরসভা ধারা নিয়ন্ত্রিত। মেয়র সাহেব আমাদের অভিবাবক।মেয়রকে এ বাজার পরিচালনার জন্য একটি কমিটি বা নির্বাচনের মাধ্যমে কমিটি গঠন করার উদ্যোগ নিতে এবং বাজারের বিরাজমান সমস্যাগুলো সমাধানের দাবি জানান।

চাঁদপুর পৌরসভার মেয়র জিল্লুর রহমান জুয়েল বলেন, শহরের প্রধান বাজারের মধ্য একটি বাজার হলো পালবাজার। এই বাজারের ঐতিহ্য ধরে রাখতে হবে। নিয়ম কানুন মেনে এবং শৃঙ্খলার সাথে ব্যবসায়ীরা তাদের ব্যবসা পরিচালনা করবেন। পৌর পরিষদ ব্যবসায়ীদের কল্যানে কাজ করে যাবে। চাঁদপুর পৌরসভা নিজস্ব আয় থেকে গত ২ বছরে ১২ কোটি টাকার কাজ করেছি। শীঘ্রই বকুলতলা এলাকার রাস্তাটি করে দেওয়া হবে। সকাল সাড়ে ৮টার পর রাস্তার উপর লোডি আনলোডিং করতে দেওয়া হবে না। যান চলাচল স্বাভাবিক করতে পালবাজারের সামনের রাস্তাটি সচল রাখতে হবে। পালবাজারের ইজারার মেয়াদ নেই। কিভাবে ইজারা পুনরায় নেয়া যায় সেই ব্যবস্থা করতে হবে। পালবাজারের ভবনটি ঝুঁকিপূর্ণ। ঝুঁকিপূর্ণ ভবনের নিচে কোন বাজার হবে না। প্রয়োজনে ভবনটি ভেঙ্গে নতুন করে করা হবে। আর ফুটপাত দখল করে ব্যবসা করা যাবে না, ফুটপাত চলাচলের উপযোগী করতে হবে।

তিনি আরও বলেন, চাঁদপুর পৌরসভার এখন আর কোন বকেয়া নেই। পৌর কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বকেয়া বেতন চাঁদপুর পৌরসভা পরিশোধ করেছে। ২০০৭ সাল থেকে ২০১৪ পর্যন্ত ৭ বছরের অবসরপ্রাপ্তদের টাকা আমরা পরিশোধ করেছি। বাকিদের পর্যায়ক্রমে ৫৮ টা মিটার থেকে ৩৪ টি মিটারের সকল বকেয়া পরিশোধ করে প্রিপেইড মিটার করেছি। সড়ক বাতি থেকে আমাদের বিল আসত সাড়ে ৬ লক্ষ টাকা, আর এখন সাড়ে ৩ লক্ষ টাকা বিল আসে। চাঁদপুর পৌরসভার পানি আয়ের একটি বড় খাত। তা দিয়ে রাস্তা-ঘাটের কাজে ব্যয় করা হয়। সকলের সহযোগীতায় চাঁদপুর পৌরসভা কে এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে।

এ ছাড়া বক্তব্য রাখেন চাঁদপুর পৌরসভার প্যানেল মেয়র ফরিদা ইলিয়াস, অ্যাডঃ হেলাল হোসাইন, পৌর কাউন্সিলর হাবিবুর রহমান দর্জি, সোহেল রানা, পৌর প্রশাসনিক কর্মকর্তা মফিজ উদ্দিন হাওলাদার, পৌর বাজার পরিদর্শক মোঃ শাহজাহান মাঝি।
ব্যবসায়ীদের পক্ষে বক্তব্য রাখেন অ্যাডঃ দেবাশীষ কর মধু, হারুনুর রশিদ পাটওয়ারী, ব্যবসায়ী মিজান হাওলাদার, সফরুদ্দিন মাষ্টার, জাকির হোসেন, ফারুক মৃর্ধা,সঞ্জিব পোদ্দার প্রমূখ।