ব্রেকিং:
নোয়াখালীর কবিরহাটে ৩৬ দিন পর লাশ উত্তোলন বসুরহাটের বাজেট ঘোষণা করলেন মেয়র কাদের মির্জা প্রেমিকের সঙ্গে বিয়েতে বাবা-মা রাজি না হওয়ায় আত্মহত্যা নানা সংকটে হুমকিতে নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ বিসিক শিল্পনগরী নোয়াখালীতে পানিতে ডুবে দুই বোনের মৃত্যু মালয়েশিয়ায় কর্মী পাঠানোর নামে পাচার হয়েছে ৩৫শ’ কোটি টাকা নেত্রকোণায় কাঁচা ঘাস খেয়ে ২৬ গরুর মৃত্যু প্রত্যেকটা গ্রামকে আমরা নাগরিক সুবিধায় নিয়ে আসব ফেনীর সোনাগাজীতে চাঁদা আদায়কালে র‌্যাবের হাতে গ্রেফতার ৮ ফেনীর সোনাগাজীর চরাঞ্চলে বজ্রপাতে প্রাণ গেলো ১২ গবাদিপশুর ফেনীর সোনাগাজীতে আযান দেওয়ার সময় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট ফেনীর ফুলগাজীতে ফুটপাত মুক্ত করতে নির্দেশনা নতুন সেনাপ্রধান লেফটেন্যান্ট জেনারেল ওয়াকার-উজ-জামান নোয়াখালীর সুবর্ণচরের ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শন নোয়াখালীর চাটখিলে চেম্বারে রোগীকে ধর্ষণের অভিযোগ কাদের মির্জার প্রার্থীর পোলিং এজেন্ট হয়ে পদ হারাল ছাত্রদল নেতা স্বেচ্ছাসেবক লীগের কমিটিতে হেলথ প্রোভাইডার মসজিদ থেকে জুতা চুরি করায় প্রবাসীকে ফেরত পাঠাচ্ছে কুয়েত! ভদ্র স্বভাবের বিগ বসের অপর নাম ‘শিক্ষিত গরু’, দাম ৫ লাখ রাজার পছন্দের খাবার আপেল-মাল্টা-পেয়ারা, ওজন ১১ মণ
  • শুক্রবার ১৪ জুন ২০২৪ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ৩১ ১৪৩১

  • || ০৬ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

দিঘিতে মিলল ২২ কেজি চিতল, ২২ হাজারে বিক্রি

নোয়াখালী সমাচার

প্রকাশিত: ৬ জুন ২০২৪  

নোয়াখালীর সেনবাগের দিঘিতে জাল ফেলে মিলল ২২ কেজি ওজনের দুইটি বিশাল চিতল মাছ। মাছ দুইটি তাৎক্ষণিক দুই ব্যক্তি এক হাজার টাকা কেজি করে ২২ হাজার টাকায় কিনে নেন। বৃহস্পতিবার (৬ জুন) সকালে উপজেলার কেশারপাড় ইউনিয়নের ঐতিহ্যবাহী কেশারপাড় দিঘিতে মাছ দুইটি ধরা পড়ে। 

জানা যায়, ৪ বছর আগে যশোর থেকে আনা অন্যান্য মাছের সাথে চিতল মাছের পোনা ছেড়েছিলেন সৌখিন মৎস্য ব্যবসায়ী রেজাউল করিম জুয়েল। বৃহস্পতিবার (৬ জুন) সকালে জাল ফেললে ১২ কেজি ওজনের ও ১০ কেজি ওজনের দুইটি বিশাল বড় চিতল মাছ ধরা পড়ে। মাছ দুইটি দেখতে তাৎক্ষণিক মানুষের ভিড় জমে।

ব্যবসায়ী আবুল হাশেম মজুমদার ও সোনাইমুড়ি গার্লস হাই স্কুলের শিক্ষক আবু নাসের মোহাম্মদ গিয়াস উদ্দিন এক হাজার টাকা কেজি করে মাছ দুইটি ২২ হাজার টাকায় কিনে নেন।

প্রত্যক্ষদর্শী স্থানীয় বাসিন্দা মো. সোহেল  বলেন, মাছ দুটিকে সরাসরি দেখতে আশপাশের উৎসুক মানুষের ভিড় জমে যায়। অনেকেই মাছ দুইটি কিনতে আগ্রহী হয়েছিল। তবে একজন ব্যবসায়ী ও একজন শিক্ষক মাছ দুইটি কিনে নেয়।

ব্যবসায়ী আবুল হাশেম মজুমদার  বলেন, আমাদের কেশারপাড় দিঘিটা ঐতিহ্যবাহী দিঘি। এখানের বড় মাছগুলো আমরা নেওয়ার চেষ্টা করি। খবর পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে ১২ কেজি ওজনের বড় চিতল মাছটি আমি কিনে নিয়েছি। বড় মাছ খাওয়া আসলে শখ ও সুন্দর ব্যাপার। 

শৌখিন মৎস্য ব্যবসায়ী রেজাউল করিম জুয়েল  বলেন, আমি চার বছর আগে যশোর থেকে আনা চিতল মাছের পোনা ফেলেছিলাম। সব মাছ এমন ১০ থেকে ১২ কেজি ওজনের হয় নাই। তবে বেশিরভাগ মাছই বড় হয়েছে। এই দিঘি বিশাল হওয়ায় এখানে মাছও বড় হয়। অন্যান্য দেশিও মাছও ১০ কেজির ওপরে পাওয়া যায়। 

সেনবাগ উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) জিসান বিন মাজেদ  বিষয়টি নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, মাছ দুইটির ছবি আমিও ফেসবুকে দেখতে পেরেছি। প্রায় মানুষের সমান বিশাল এই মাছগুলো। আসলে বড় মাছ দেখতেও ভালো লাগে। শৌখিন জেলে রেজাউল করিম জুয়েল তার বন্ধুদের নিয়ে দিঘিটি পরিচালনা করেন। তিনি বিভিন্ন সময় মাছের জন্য বরশি উৎসব অনুষ্ঠানের আয়োজন করেন। শৌখিন মাছ শিকারিরা এসব উৎসবে মাছ শিকার করে থাকেন।