ব্রেকিং:
মিয়ানমার সীমান্তের পরিস্থিতি মোকাবিলায় প্রস্তুত থাকার নির্দেশ রাখাইনে বড় সংঘাতের আশঙ্কা, বাসিন্দাদের সরে যাওয়ার নির্দেশ একদিনে পদ্মাসেতুর আয় পৌনে ৫ কোটি টাকা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব মেমোরিয়াল হাসপাতাল পরিদর্শনে শেখ হাসিনা ‘গ্লোবাল কোয়ালিশন ফর সোশ্যাল জাস্টিসে’ যোগ দিলো বাংলাদেশ রেলস্টশন-বাস টার্মিনালে ঘরমুখো মানুষের ঢল রোহিঙ্গা ক্যাম্পে অস্ত্র ও গুলিসহ আরসা সন্ত্রাসী গ্রেফতার ভারত-বাংলাদেশ মৈত্রী সেতু চালু হচ্ছে সেপ্টেম্বরে নোয়াখালীর কবিরহাটে ৩৬ দিন পর লাশ উত্তোলন বসুরহাটের বাজেট ঘোষণা করলেন মেয়র কাদের মির্জা প্রেমিকের সঙ্গে বিয়েতে বাবা-মা রাজি না হওয়ায় আত্মহত্যা নানা সংকটে হুমকিতে নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ বিসিক শিল্পনগরী নোয়াখালীতে পানিতে ডুবে দুই বোনের মৃত্যু মালয়েশিয়ায় কর্মী পাঠানোর নামে পাচার হয়েছে ৩৫শ’ কোটি টাকা নেত্রকোণায় কাঁচা ঘাস খেয়ে ২৬ গরুর মৃত্যু প্রত্যেকটা গ্রামকে আমরা নাগরিক সুবিধায় নিয়ে আসব ফেনীর সোনাগাজীতে চাঁদা আদায়কালে র‌্যাবের হাতে গ্রেফতার ৮ ফেনীর সোনাগাজীর চরাঞ্চলে বজ্রপাতে প্রাণ গেলো ১২ গবাদিপশুর ফেনীর সোনাগাজীতে আযান দেওয়ার সময় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট ফেনীর ফুলগাজীতে ফুটপাত মুক্ত করতে নির্দেশনা
  • রোববার ১৬ জুন ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ২ ১৪৩১

  • || ০৮ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

লক্ষ্মীপুরে ভিটামিন ‘এ’ ক্যাম্পেইন শুরু, খাবে ৩ লাখ শিশু

নোয়াখালী সমাচার

প্রকাশিত: ১ জুন ২০২৪  

লক্ষ্মীপুরে জাতীয় ভিটামিন 'এ' প্লাস ক্যাম্পেইন উদ্বোধন করা হয়। এই জেলায় মোট ২ লাখ ৯৯ হাজার ৯৯৩ জন শিশু এই কর্মসূচির আওতায় আনার লক্ষ্যমাত্রার নির্ধারণ করা হয়েছে।

শনিবার (১ জুন) সকালে শহরের রেহান উদ্দিন সড়কের পাশে জনতার ঘরে এই ক্যাম্পেইন উদ্বোধন করেন পৌর সভার মেয়রের পক্ষে তার সহধর্মিণী শায়লা শারমিন জুমা।

এ সময় পৌরসভার স্যানেটারি ইসপেক্টর ও নিরাপদ খাদ্য পরিদর্শক মুহাম্মদ আবদুল্লা হিল হাকিম সুমন, নন্দন মুক্ত রোভার স্কাউট সাধারণ সম্পাদক রাজু আহমেদসহ যুব রেড ক্রিসেন্ট সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

শায়লা শারমিন জুমা ভিটামিন ‘এ’ ক্যাম্পেইন সফল করতে সবাইকে আহ্বান জানিয়ে বলেন, পৌর এলাকার ১৫টি ওয়ার্ডে ৪৫টি কেন্দ্রে ৬ মাস থেকে ৬ মাস থেকে ৫ বছর বয়সী সব শিশুকে জাতীয় ভিটামিন ‘এ’ প্লাস খাওয়ানো হবে।

লক্ষ্মীপুর পৌরসভার স্যানেটারি ইসপেক্টর ও নিরাপদ খাদ্য পরিদর্শক মুহাম্মদ আবদুল্লা হিল হাকিম সুমন বলেন, পৌর এলাকায় ২টি ভ্রাম্যমাণ কেন্দ্রসহ ৪৫টি কেন্দ্রে ৬-১১ মাস বয়সী ২ হাজার ৩১৪ এবং ১২-৫৯ মাস বয়সী ১৫ হাজার ১২ জন জাতীয় ‘এ’ প্লাস ক্যাপসুল খাওয়ানোর লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে।

জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয়ের মেডিকেল অফিসার ডা. নাহিদ রায়হান জানান, এই জেলায় মোট ২ লাখ ৯৯ হাজার ৯৯৩ জন শিশু এই কর্মসূচির আওতায় আনার লক্ষ্যমাত্রার নির্ধারণ করা হয়েছে। এর মধ্যে (৬-১১ মাস) বয়সী ৩৫ হাজার ২০৮ জনকে নীল রঙের এবং ১২-৫৯ বয়সী ২ লাখ ৬৪ হাজার ৭৮৫ বয়সী শিশু লাল রঙের ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে। ৫টি উপজেলার ৫৮টি ইউনিয়ন ও পৌরসভায় ওই দিন এই কার্যক্রম চলবে। ১ হাজার ৪৮০টি কেন্দ্রে ২২২ জন স্বাস্থ্য সহকারী, ১৯৪ জন সুপারভাইজার, ২ হাজার ৯৬০ জন সেচ্ছাসেবক এই কর্মসূচিতে থাকবে।

শিশু রোগ বিশেষজ্ঞ ডা. মোরশেদ আলম হিরু বলেন, ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাপসুল শিশুদের নানান অসুখ থেকে মুক্ত রাখে। রাতকানা ও বিটটস স্পর্ট, দীর্ঘ মেয়াদি ডায়রিয়া, হাম ও মারাত্মক অপুষ্টির হাত থেকে রক্ষা করে। ভিটামিন ‘এ’ দেহের স্বাভাবিক বৃদ্ধিতে সহায়তা করে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায় এবং শিশু মৃত্যুর ঝুঁকি কমায়।