ব্রেকিং:
মিয়ানমার সীমান্তের পরিস্থিতি মোকাবিলায় প্রস্তুত থাকার নির্দেশ রাখাইনে বড় সংঘাতের আশঙ্কা, বাসিন্দাদের সরে যাওয়ার নির্দেশ একদিনে পদ্মাসেতুর আয় পৌনে ৫ কোটি টাকা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব মেমোরিয়াল হাসপাতাল পরিদর্শনে শেখ হাসিনা ‘গ্লোবাল কোয়ালিশন ফর সোশ্যাল জাস্টিসে’ যোগ দিলো বাংলাদেশ রেলস্টশন-বাস টার্মিনালে ঘরমুখো মানুষের ঢল রোহিঙ্গা ক্যাম্পে অস্ত্র ও গুলিসহ আরসা সন্ত্রাসী গ্রেফতার ভারত-বাংলাদেশ মৈত্রী সেতু চালু হচ্ছে সেপ্টেম্বরে নোয়াখালীর কবিরহাটে ৩৬ দিন পর লাশ উত্তোলন বসুরহাটের বাজেট ঘোষণা করলেন মেয়র কাদের মির্জা প্রেমিকের সঙ্গে বিয়েতে বাবা-মা রাজি না হওয়ায় আত্মহত্যা নানা সংকটে হুমকিতে নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ বিসিক শিল্পনগরী নোয়াখালীতে পানিতে ডুবে দুই বোনের মৃত্যু মালয়েশিয়ায় কর্মী পাঠানোর নামে পাচার হয়েছে ৩৫শ’ কোটি টাকা নেত্রকোণায় কাঁচা ঘাস খেয়ে ২৬ গরুর মৃত্যু প্রত্যেকটা গ্রামকে আমরা নাগরিক সুবিধায় নিয়ে আসব ফেনীর সোনাগাজীতে চাঁদা আদায়কালে র‌্যাবের হাতে গ্রেফতার ৮ ফেনীর সোনাগাজীর চরাঞ্চলে বজ্রপাতে প্রাণ গেলো ১২ গবাদিপশুর ফেনীর সোনাগাজীতে আযান দেওয়ার সময় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট ফেনীর ফুলগাজীতে ফুটপাত মুক্ত করতে নির্দেশনা
  • রোববার ১৬ জুন ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ২ ১৪৩১

  • || ০৮ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

ছাত্রলীগকর্মী হত্যা মামলার আসামিকে কুপিয়ে খুন, আটক ১

নোয়াখালী সমাচার

প্রকাশিত: ১২ সেপ্টেম্বর ২০২৩  

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগের সদস্য হাসিবুল বাশার হাসিব হত্যা মামলার এক আসামিকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। এ ঘটনায় রাসেল ওরফে শিশু রাসেল নামে এক স্থানীয় যুবককে আটক করেছে পুলিশ।

সোমবার (১১ সেপ্টেম্বর) রাতে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়। এর আগে দুপুরে উপজেলার চাঁদ কাশেমপুর গ্রামের খান বাড়ির সামনে মিন্টুকে কুপিয়ে জখম করে ফেলে যায় দুর্বৃত্তরা।

নিহত আব্দুল লতিফ মিন্টু (৪৮) উপজেলার গোপালপুর ইউনিয়নের ৫নম্বর ওয়ার্ডের মাহবুল্লাপুর গ্রামের খান বাড়ির মৃত আবু তাহেরের ছেলে।

আটককৃত রাসেল ওরফে শিশু রাসেল (২৭) উপজেলার গোপালপুর ইউনিয়নের ১নম্বর ওয়ার্ডের চাঁদ কাশেমপুর গ্রামের মো. দেলোয়ারের ছেলে। 

পুলিশ জানিয়েছে, ২০২২ সালের ৭ জুলাই গোপালপুর ইউনিয়নের সুবহান মার্কেটের সামনে একই ইউনিয়নের কোটরা মহব্বতপুর গ্রামের মৃত আবুল বাশারের ছেলে বেগমগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগের সদস্য হাসিবুল বাশার হাসিবকে (২৫) কুপিয়ে হত্যা করে কয়েকজন অস্ত্রধারী। এ ঘটনায় হাসিবের চাচা সিরাজুল ইসলাম বাদী হয়ে ১১ জনের নামে থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলার এজাহারভুক্ত ৬ নম্বর আসামি ছিলেন আব্দুল লতিফ মিন্টু। মামলার প্রধান আসামি করা হয় মিন্টুর ছোট ভাই মো. হাসনকে এবং মিন্টুর ছেলে জয়কে (২১) মামলার ৩ নম্বর আসামি করা হয়। এ মামলায় গ্রেপ্তারের পর তিন মাস আগে জামিনে বের হন মিন্টু।

মিন্টুর স্ত্রী রেহানা আক্তার বলেন, দুপুর ১টার দিকে বাজারে যাওয়ার জন্য বাড়ি থেকে বের হন মিন্টু। কিছুক্ষণের মধ্যে খবর আসে স্থানীয় রাসেল ও তার ভাইদের নেতৃত্বে একদল সন্ত্রাসী মিন্টুকে তুলে নিয়ে কুপিয়ে জখম করে ফেলে গেছে। পরে ঘটনাস্থল থেকে আমরা তাকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় উদ্ধার করে জেলা সদর হাসপাতালে নিয়ে যাই। সেখান থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় নেওয়ার পথে রাতে তার মৃত্যু হয়।

বেগমগঞ্জ থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মীর জাহেদুল হক রনি বলেন, পুলিশ এলাকাবাসীর সাক্ষ্য প্রমাণের ভিত্তিতে একজনকে আটক করেছে। এলাকায় প্রভাব বিস্তার থাকায় কেউ মুখ খুলছে না। যার নাম পেয়েছি, সে ঘটনাস্থলে উপস্থিত ছিল, তাই তাকে আটক করা হয়েছে।  

নোয়াখালীর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (বেগমগঞ্জ সার্কেল) মোহাম্মদ নাজমুল হাসান রাজিব ঢাকা পোস্টকে বিষয়টি নিশ্চিত বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে পুলিশ। কারা এবং কি কারণে মিন্টুকে তুলে নিয়ে কুপিয়ে জখম করে ফেলে গেছে এসব বিষয় খতিয়ে দেখা হচ্ছে। এ ঘটনা আইনগত পদক্ষেপ গ্রহণ করা হচ্ছে।