ব্রেকিং:
আরব আমিরাত ও যুক্তরাজ্যের উদ্দেশে ঢাকা ছেড়েছেন রাষ্ট্রপতি গার্ডেন থিয়েটার কুমিল্লার একক নাট্য প্রদর্শনী ১০ রাষ্ট্রদূতকে দেশে ফেরার নির্দেশ ইঞ্জিন বিকল, উত্তরবঙ্গের সঙ্গে ঢাকার রেল যোগাযোগ বন্ধ রোজায় কমলো অফিসের সময়সূচি গাড়ি তৈরি করবে প্রগতি ইন্ডাস্ট্রিজ: শিল্পমন্ত্রী পরিবেশ রক্ষায় চুক্তি স্বাক্ষরে সম্মত বাংলাদেশ ও সৌদি আরব রোজায় বড় ইফতার পার্টি না করার নির্দেশনা প্রধানমন্ত্রীর রমজানে লোডশেডিং নিয়ে সুখবর দিলেন প্রধানমন্ত্রী শিল্প-পণ্য মেলা বন্ধ চেয়ে ডিসিকে ব্যবসায়ীদের চিঠি ‘বউ-শাশুড়ি বইঘর’ গড়তে ২০০ বই নিয়ে শ্বশুরবাড়িতে নববধূ পুলিশের দুই মামলায় জামিন পেলেন লক্ষ্মীপুর বিএনপির সদস্য সচিব শখের মোটরসাইকেলেই প্রাণ গেল কলেজছাত্র মাহিনের সেনবাগে বৃদ্ধকে পিটিয়ে হত্যা, গ্রেপ্তার ৩ রমজানে নিত্যপণ্যের দাম নিয়ন্ত্রণে পদক্ষেপ নিয়েছে সরকার সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্যদের শপথ বুধবার এসএসসি পরীক্ষায় নকল দিতে গিয়ে ৩ যুবকের ২ বছর করে কারাদণ্ড ‘হামলা’ ও হেনস্থার বিচার দাবি কুবি শিক্ষক সমিতির প্রচারণায় পাল্টাপাল্টি অভিযোগ বিনা টিকিটে ভ্রমণ, ট্রেনের ভাড়া পরিশোধ করলেন প্রবাসী
  • মঙ্গলবার ০৫ মার্চ ২০২৪ ||

  • ফাল্গুন ২০ ১৪৩০

  • || ২২ শা'বান ১৪৪৫

নোয়াখালী জেলা আ.লীগ সভাপতির ফেস্টুন ছিঁড়ে ফেলার অভিযোগ

নোয়াখালী সমাচার

প্রকাশিত: ২৪ মে ২০২৩  

জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নোয়াখালী-৪ (সদর-সুবর্নচর) আসনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী ও নোয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অধ্যক্ষ এ এইচ এম খায়রুল আনম চৌধুরী সেলিমের কর্মী-সমর্থকদের লাগানো ফেস্টুন ছিড়ে ফেলার অভিযোগ উঠেছে।

রোববার (২১ মে) দিবাগত রাতে এবং সোমবার (২২ মে) দিনের বিভিন্ন সময় জেলার প্রধান শহর মাইজদীতে এ ঘটনা ঘটে।

আওয়ামী লীগ প্রতিহিংসার রাজনীতিতে কখনও বিশ্বাস করে না। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এবং শেখ হাসিনার আদর্শের রাজনীতি হচ্ছে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার রাজনীতি।এ এইচ এম খায়রুল আনম চৌধুরী সেলিম, সভাপতি, জেলা আওয়ামী লীগ

জানা যায়, আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে  আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়ন প্রত্যাশী হিসেবে রোববার (২১ মে) সন্ধ্যায় জেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয়ের সামনে ও  শহরের বিভিন্ন স্থানে প্রায় ২০টি ফেস্টুন লাগায় অধ্যক্ষ এ এইচ এম খায়রুল আনম চৌধুরী সেলিমের কর্মীসমর্থকরা। ফেস্টুনগুলো লাগানোর কয়েক ঘণ্টার মধ্যে দলীয় কার্যালয়ের প্রধান ফটকের সামনের একটি ফেস্টুন কেটে ফেলে দুর্বৃত্তরা। এছাড়া সোমবার দিনভর অন্যান্য ফেস্টুনগুলোর বিভিন্ন স্থানে ভেঙে ও ছিঁড়ে ফেলা হয়।

ফেষ্টুনে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের এবং অধ্যক্ষ এ এইচ এম খায়রুল আনম চৌধুরী সেলিমের ছবি ছিল।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে নোয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি ও সুবর্ণচর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ এ এইচ এম খায়রুল আনম চৌধুরী সেলিম বলেন, নেতাদের ব্যানার-ফেস্টুন কর্মীরা লাগায়, এটা তাদের নেতাদের প্রতি ভালোবাসা এবং গণতান্ত্রিক অধিকার। যারা ব্যানার-ফেস্টুন ছেঁড়াসহ এ ধরণের সন্ত্রাসীমূলক কর্মকাণ্ড করে জনগণ ভোটের মাধ্যমে তাদের সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের জবাব দিবে। আওয়ামী লীগ প্রতিহিংসার রাজনীতিতে কখনও বিশ্বাস করে না। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এবং শেখ হাসিনার আদর্শের রাজনীতি হচ্ছে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার রাজনীতি।

সুধারাম মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মিজানুর রহমান পাঠান বলেন, এ বিষয়ে আমি অবগত নয়। কেউ কোন অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।