ব্রেকিং:
আজ থেকে বিপিএলে থাকছে ‘বিকল্প ডিআরএস’ কমিউনিটি ক্লিনিকে আরো বিনিয়োগ প্রয়োজন: পরিকল্পনামন্ত্রী এবার আইপিএলের সব খেলা এক শহরে! মৌসুমী ঝড়ে আফ্রিকার তিনদেশে নিহত ৭০ জুমার দিনে যে আমল করলে ৮০ বছরের গুনাহ মাফ হবে কুমিল্লায় জনপ্রিয় হচ্ছে সমলয় পদ্ধতিতে ধান চাষ প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে কাদের মির্জার ৯ প্রার্থীর অভিযোগ বিশ্বে করোনায় মৃত্যু ছাড়াল সাড়ে ৫৬ লাখ, শনাক্ত সাড়ে ৩৬ কোটি লক্ষ্যমাত্রার ৭ ভাগ আমন সংগ্রহ হয়েছে ফেনীতে নৌকা ঠেকাতে আনারসে ভোট চাইলেন এমপি একরামুল মসজিদের ৭ লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগে মামলা ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় প্লাস্টিকের লেমিনেশন ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞা চিলির মাঠে মেসিহীন আর্জেন্টিনার দাপুটে জয় কোম্পানীগঞ্জে এক বস্তা দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার প্রাথমিকে অনলাইনে ক্লাসসহ ৬ নির্দেশনা সরকারি ব্যাংকের সব নিয়োগ পরীক্ষা স্থগিত চাঁবিপ্রবির জমি অধিগ্রহণে অনিয়মের খবর ভিত্তিহীন: শিক্ষামন্ত্রী ১৫ বছরের গোপন সম্পর্ক, কথা না রাখায় দেবরের ঘরে অনশনে ভাবি পার্কে প্রেমিককে জুতাপেটা, আটক করে টাকা নিলেন মেম্বার আখাউড়ায় পাঁচ মাদক সেবনকারীর কারাদণ্ড
  • শুক্রবার   ২৮ জানুয়ারি ২০২২ ||

  • মাঘ ১৫ ১৪২৮

  • || ২৩ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

মুহূর্তেই পুরুষ থেকে নারী হয়ে ওঠেন তারা, টার্গেটে প্রবাসীরা

নোয়াখালী সমাচার

প্রকাশিত: ২৩ ডিসেম্বর ২০২১  

দেশ শতাধিক সদস্যের প্রায় সবাই পুরুষ। কিন্তু মুহূর্তেই তারা নারী হয়ে ওঠতে পটু। পুরুষালী কণ্ঠকে নারীকণ্ঠে রূপান্তর করেই অনৈতিক কাজের প্রলোভন দেখান প্রবাসী যুবকদের। প্রবাসীদের ইমো আইডি হ্যাক শেষে চক্রটি নানাভাবে ব্ল্যাকমেল করে হাতিয়ে নেয় বিপুল পরিমাণ টাকা। সেই চক্রের পাঁচ সদস্যকে গ্রেফতার করেছে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ সিআইডি। 

বুধবার রাতে রাজধানী, আশুলিয়া ও নাটোর থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতাকৃতরা হলেন- হুসাইন আলী (১৯), সুমন আলী (২৩), তরিকুল ইসলাম (২১), শান্ত আলী (১৯) ও সাদ্দাম হোসেন (১৯)। 

বৃহস্পতিবার দুপুরে রাজধানীর মালিবাগে সিআইডির প্রধান কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান সংস্থাটির অতিরিক্ত ডিআইজি কামরুল আহসান।

তিনি বলেন, দীর্ঘদিন ধরে নাটোর-রাজশাহীকেন্দ্রিক একদল কিশোর ও যুবক ইমো হ্যাকিংকে পেশা হিসেবে বেছে নিয়েছে। তাদের কাছে এটি স্বাভাবিক বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে। তারা প্রবাসী যুবকদের ইমোতে অনৈতিক কাজের প্রলোভন দেখিয়ে টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে। তাদের পাঁচজনকে গ্রেফতার করেছি। বিশাল একটি নেটওয়ার্কের সন্ধান আমরা পেয়েছি। দেড় শতাধিক সদস্য এমন প্রতারণা চালিয়ে যাচ্ছে।

সিআইডি কর্মকর্তা কামরুল আহসান বলেন, চক্রটি প্রথমে আইডি সার্চ দিয়ে প্রবাসীদের খুঁজে বের করে। এরপর নারী সেজে নানা গল্প-কথায় এগোতে থাকে। এক পর্যায়ে অনৈতিক কাজের প্রস্তাব দেয়। নির্দিষ্ট পরিমাণ টাকায় রাজি হলে চক্রটি মোবাইলের রিয়ার ক্যামেরায় অন্য কোনো কিশোরী বা নারীর ভিডিও চালু করে আড়ালে নারীকণ্ঠে কথা বলতে থাকে।

 

সিআইডির প্রধান কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন অতিরিক্ত ডিআইজি কামরুল আহসান- ছবি: সংগৃহীত

সিআইডির প্রধান কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন অতিরিক্ত ডিআইজি কামরুল আহসান- ছবি: সংগৃহীত

এতে প্রবাসী যুবকের কাছে আসল নারী মনে হতে থাকে। এভাবে এক সময় আরো ক্লোজ হতে হতে প্রবাসীর ইমো আইডি হ্যাক করে নিয়ে ওটিপি কোড হাতিয়ে নেয় চক্রটি। এ প্রতারকরা প্রথমত পুরুষ হয়েও নারী সেজে কথা বলে টাকা নিচ্ছে। দ্বিতীয়ত, তারা ইমো হ্যাক করে ইমো মালিকের কোনো অনৈতিক ছবি বা ভিডিও পেলে সেটি দিয়ে ব্ল্যাকমেলের মাধ্যম লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে।

কামরুল আহসান বলেন, আমরা দেখেছি নাটোরের লালপুর এলাকায় এ ধরনের প্রতারকদের আধিপত্য বেশি। তাদের সঙ্গে আরো দেড় শতাধিক সদস্য কাজ করছে। তারা সবাই একটি নেটওয়ার্কে কাজ করলেও চার-পাঁচজনের গ্রুপে বিভক্ত হয়ে প্রতারণা চালিয়ে যায়।

এক প্রশ্নের জবাবে সিআইডির এ কর্মকর্তা বলেন, তাদের প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষা তেমন নেই। কিন্তু তারা সবাই এক সঙ্গে কাজ করার কারণে একে অপরের কাছ থেকে প্রতারণার কৌশলগুলো সহজে রপ্ত করে নিচ্ছে। আমরা এ চক্রের বাকি সদস্যদেরও আটকে চেষ্টা চালাচ্ছি।

তাদের টার্গেট কেন প্রবাসীরা, এমন এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, প্রবাসীরা দীর্ঘ জীবন পরিবার বঞ্চিত থাকেন। তারা মাঝে মাঝে বিনোদনের খোঁজে ইমোতে যান। আর সেখানেই প্রতারণার শিকার হন।