ব্রেকিং:
মিয়ানমার সীমান্তের পরিস্থিতি মোকাবিলায় প্রস্তুত থাকার নির্দেশ রাখাইনে বড় সংঘাতের আশঙ্কা, বাসিন্দাদের সরে যাওয়ার নির্দেশ একদিনে পদ্মাসেতুর আয় পৌনে ৫ কোটি টাকা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব মেমোরিয়াল হাসপাতাল পরিদর্শনে শেখ হাসিনা ‘গ্লোবাল কোয়ালিশন ফর সোশ্যাল জাস্টিসে’ যোগ দিলো বাংলাদেশ রেলস্টশন-বাস টার্মিনালে ঘরমুখো মানুষের ঢল রোহিঙ্গা ক্যাম্পে অস্ত্র ও গুলিসহ আরসা সন্ত্রাসী গ্রেফতার ভারত-বাংলাদেশ মৈত্রী সেতু চালু হচ্ছে সেপ্টেম্বরে নোয়াখালীর কবিরহাটে ৩৬ দিন পর লাশ উত্তোলন বসুরহাটের বাজেট ঘোষণা করলেন মেয়র কাদের মির্জা প্রেমিকের সঙ্গে বিয়েতে বাবা-মা রাজি না হওয়ায় আত্মহত্যা নানা সংকটে হুমকিতে নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ বিসিক শিল্পনগরী নোয়াখালীতে পানিতে ডুবে দুই বোনের মৃত্যু মালয়েশিয়ায় কর্মী পাঠানোর নামে পাচার হয়েছে ৩৫শ’ কোটি টাকা নেত্রকোণায় কাঁচা ঘাস খেয়ে ২৬ গরুর মৃত্যু প্রত্যেকটা গ্রামকে আমরা নাগরিক সুবিধায় নিয়ে আসব ফেনীর সোনাগাজীতে চাঁদা আদায়কালে র‌্যাবের হাতে গ্রেফতার ৮ ফেনীর সোনাগাজীর চরাঞ্চলে বজ্রপাতে প্রাণ গেলো ১২ গবাদিপশুর ফেনীর সোনাগাজীতে আযান দেওয়ার সময় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট ফেনীর ফুলগাজীতে ফুটপাত মুক্ত করতে নির্দেশনা
  • রোববার ১৬ জুন ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ২ ১৪৩১

  • || ০৮ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

গলায় ছুরি ধরে ছাত্রীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ

নোয়াখালী সমাচার

প্রকাশিত: ৪ জুন ২০২৪  

লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে গলায় ছুরি ধরে সিএনজিতে তুলে বাড়িতে নিয়ে নবম শ্রেণির এক ছাত্রীকে গণধর্ষণ করেছে স্থানীয় দুই যুবক। এ ঘটনায় রোববার রাতে মেয়েটির মা রায়পুর থানায় চারজনকে আসামি করে গণধর্ষণের মামলা করেছেন।

শনিবার সন্ধ্যা ৭টার সময় রায়পুর উপজেলার দক্ষিণ চরবংশী ইউনিয়নের চরকাছিয়া গ্রামে এ ধর্ষণের ঘটনা ঘটে।

মামলার আসামিরা হলেন- স্থানীয় কালু বেপারির হাট এলাকার জলিল মাস্টারের ছেলে মো. লিমন (২০), সৌদি আরব প্রবাসী খোকা বেপারির ছেলে এক সন্তানের জনক আলআমিন (২৫), কৃষক মানিক বেপারি ছেলে আমজাদ (২০), নাসির ঢালির ছেলে বিবাহিত মো. শাকিল (২২)।

মামলার এজাহারে জানা যায়, দক্ষিণ চরবংশী ইউপির আশ্রয়ণ কেন্দ্রের কৃষকের কিশোরী মেয়ে ও নবম শ্রেণির ছাত্রী (১৫) শনিবার সন্ধ্যায় মোমবাতি কেনার জন্য মুদি দোকানে যায়। ফেরার পথে গলায় ছুরি ধরে সিএনজিতে তুলে আলআমিনের বাড়িতে নিয়ে যায় স্থানীয় যুবক আমজাদ, লিমন ও শাকিল। পরে দুইজনের পাহারায় ওই ঘরেই লিমন ও আলআমিন গণধর্ষণ করে।

এ ঘটনায় দিবাগত রাত ৩টায় মেয়েটির মা ৯৯৯ নাম্বারে ফোন দিয়ে জানালে রায়পুর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে আসেন। পরে মেয়েটিকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে চারজনের নামে ধর্ষণ মামলা করা হয়। রোববার দুপুরে মেয়েটি সদর হাসপাতালে পরীক্ষার পর আদালতে বিচারকের কাছে জবানবন্দি দেয়।

মেয়েটির মা বলেন, আমরা গরিব মানুষ। আমি ও আমার স্বামী চরে দিনমজুরের কাজ করি। মেয়েকে নির্যাতনের ঘটনায় সমাজের কাছে বিচার পাইনি। থানায় মামলা করেছি। আমি এ ঘটনার উপযুক্ত বিচার চাই। 

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই সুরোজিত বড়ুয়া জানান, দুইজনের পাহারায় দুইজন গণধর্ষণ করেছে বলে আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে মেয়েটি।

রায়পুর থানার ওসি ইয়াসিন ফারুখ মজুমদার জানান, কিশোরীকে গণধর্ষণের ঘটনায় মামলা হয়েছে। এখনো কাউকে গ্রেফতার করা হয়নি। তদন্ত করা হচ্ছে।