ব্রেকিং:
সুস্থ আছেন হানিফ সংকেত, গুজবে কান না দেয়ার আহ্বান প্রেমে পড়ে ঘর ছেড়ে না পালানোর শপথ শিক্ষার্থীদের ভাসানচরে রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শনে জাতিসংঘের প্রতিনিধি দল জাতীয় কবি কাজী নজরুলের ১২৩তম জন্মজয়ন্তী আজ ইমরানের লং মার্চ ঠেকাতে পাকিস্তানে ব্যাপক ধরপাকড় ভারতের আট কোম্পানি বাংলাদেশে গম রফতানি করতে আগ্রহী সার্বজনীন পদ্মাসেতুতে ওঠার আগে অপপ্রচারকারীদের ক্ষমা চাওয়া উচিত মহাপরিকল্পনায় সবুজ জ্বালানির প্রসারে বিশেষ গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে এলজিএসপি প্রকল্পে বড় বিনিয়োগ করতে চায় বিশ্বব্যাংক দুই বছরের সাজা এড়াতে পালিয়ে ছিলেন ১১ বছর সংকটের মধ্যেই তেলের দাম আরও বাড়ল শ্রীলংকায় উখিয়ায় ইয়াবাসহ রোহিঙ্গা আটক ঢাবিতে সংঘর্ষের ঘটনায় ছাত্রদলের দুজনসহ আটক ৩ মাঙ্কিপক্স: পোষা প্রাণী থেকে সতর্ক থাকার আহ্বান প্রতারণার অভিযোগ প্রমাণিত হলে ছাত্রত্ব বাতিল হবে: জবি উপাচার্য কিশোরীকে টানা দুই মাস ধর্ষণ, সৎ বাবা গ্রেফতার আসামে প্রবল বন্যায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে ২৫ হোটেলে বিশেষ মুহূর্তে প্রেমিকসহ স্ত্রী ধরা, দেখতে মানুষের ভিড় পদ্মাসেতু উদ্বোধনে আমন্ত্রণ পাবে বিএনপি: সেতুমন্ত্রী রোহিঙ্গাদের দেখতে ভাসানচরে জাতিসংঘের প্রতিনিধি দল
  • বুধবার   ২৫ মে ২০২২ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১১ ১৪২৯

  • || ২২ শাওয়াল ১৪৪৩

অবসরপ্রাপ্ত গুণী শিক্ষকদের চাকরির সুযোগ দিতে চায় সংসদীয় কমিটি

নোয়াখালী সমাচার

প্রকাশিত: ২১ জানুয়ারি ২০২২  

অবসরে যাওয়া প্রাথমিক শিক্ষকদের চুক্তিভিত্তিক চাকরির সুযোগ দিতে চায় প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সংসদীয় কমিটি। 

কমিটি জানায়, মানসম্পন্ন শিক্ষা নিশ্চিত করতে দেশের সব জেলার গুণী শিক্ষকদের তালিকা প্রণয়ন করে একটি প্রকল্পের মাধ্যমে তাদের চুক্তিভিত্তিক নিয়োগের পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

সংসদীয় কমিটির সভাপতি মোস্তাফিজুর রহমান এমপি বলেন, প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের দক্ষতা ও কৌশল বৃদ্ধির লক্ষ্যে তাদের বিদেশে পাঠিয়ে প্রশিক্ষণ দিয়ে তেমন ফলপ্রসূ হয়নি। এতে বিপুল পরিমাণে সরকারি অর্থ ব্যয় হলেও সেই অনুপাতে লাভ হয়নি। তার বদলে স্বল্প অর্থ ব্যয়ে অবসরে যাওয়া সারাদেশের গুণী শিক্ষকদের অথবা অবসরের জন্য অপেক্ষমানদের চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ দেওয়া যেতে পারে। জেলাভিত্তিক তাদের তালিকা তৈরি করে চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ দেয়া হলে বেশি ফলপ্রসূ হবে।

আরেক সদস্য বলেন, সদ্য জাতীয়করণ হওয়া ২৬ হাজার ১৯৩টি বিদ্যালয়ের অধিকাংশ শিক্ষকের পাঠদানের সক্ষমতা নিয়ে অনেকে প্রশ্ন তুলছেন। এসব শিক্ষকদের দিয়ে মানসম্মত প্রাথমিক শিক্ষা নিশ্চিত করা কঠিন হয়ে পড়েছে। প্রশিক্ষণ দিয়েও তাদের সক্ষমতা বৃদ্ধি করা সম্ভব হয়নি। এ সমস্যা সামাধানে তিনি পূর্বের জাতীয়করণ হওয়া বিদ্যালয়ের শিক্ষক অথবা নতুন নিয়োগপ্রাপ্ত শিক্ষকদের ওইসব (সর্বশেষ জাতীয়করণ) বিদ্যালয়ে পদায়নের পরামর্শ দিয়েছেন।

সভায় প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সচিব জি এম হাসিবুল আলম বলেন, সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বাউন্ডারি ওয়াল নির্মাণ এবং সম্পত্তি রক্ষণাবেক্ষণের জন্য জমি খারিজ অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এ বিষয়ে ভূমি মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে আলোচনা চলছে। শিগগির দেশের সব প্রাথমিক বিদ্যালয়ে জমি খারিজের জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। সেটি হলে বাউন্ডারি ওয়াল এবং সীমানা নির্ধারণ সংক্রান্ত জটিলতা অনেকাংশ নিরসন হবে। 

এছাড়া অবসরে যাওয়া গুণী শিক্ষকদের চুক্তিভিত্তিক নিয়োগের বিষয়টি মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেনের সঙ্গে আলোচনা করে পরবর্তী পদক্ষেপ নেয়া হবে বলেও জানান জি এম হাসিবুল আলম।