ব্রেকিং:
মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্র থেকে প্রসূতিকে বের করে দিলেন আয়া,অতঃপর . মাদরাসায় বাংলায় সাইনবোর্ড স্থাপনের নির্দেশ সরকার সবার জন্য নিরাপদ পানি, স্যানিটেশন নিশ্চিত করছে দেশে খাদ্য ঘাটতির সম্ভাবনা নেই: খাদ্যমন্ত্রী নতুন স্ন্যাপড্রাগন আসছে এ সপ্তাহেই ১৮ মাসের কাজ শেষ হয়নি ৬২ মাসেও অ্যান্টিবায়োটিক চেনাতে চিহ্ন ব্যবহারের সিদ্ধান্ত সরকারের ফেসবুক পোস্টে ‘হা হা’ দেওয়ায় ব্যাপক ভাঙচুর, পুলিশ মোতায়েন নন-ব্যাংক আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোকে শৃঙ্খলার মধ্যে আনতে হবে গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু, গলায় পোড়া দাগ গরু-ছাগলের মাংসে যক্ষ্মার জীবাণু শনাক্ত টানা ২৮ দিন করোনায় মৃত্যুশূন্য দেশ, কমলো শনাক্ত বন্যার্তদের দুঃসময়ে সরকার পাশে রয়েছে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী প্রাক্তন স্বামীর হামলায় আহত চিকিৎসক স্ত্রী ডাইনিং বন্ধ, হোটেলে উচ্চমূল্য: বিপাকে কুবি শিক্ষার্থীরা দূষণে বছরে ৯০ লাখ মানুষের প্রাণহানি: গবেষণা ইউক্রেন-রাশিয়া যুদ্ধে ৩৭৫২ বেসামরিক নাগরিকের মৃত্যু ‘শুধু চোর নয়, চোরাই মোবাইল বিক্রেতারাও গ্রেফতার হবে’ কক্সবাজারে অপরিকল্পিত স্থাপনা নির্মাণ নয়: প্রধানমন্ত্রী চরাঞ্চলের জনগণের ক্ষুধা-দারিদ্র্য হ্রাসে প্রকল্প নেয়া হয়েছে
  • বৃহস্পতিবার   ১৯ মে ২০২২ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ৫ ১৪২৯

  • || ১৬ শাওয়াল ১৪৪৩

শহর ও গ্রামের মধ্যে এখন আর বৈষম্য নেই: আইসিটি প্রতিমন্ত্রী

নোয়াখালী সমাচার

প্রকাশিত: ২৭ জানুয়ারি ২০২২  

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের বৈষম্যমুক্ত সোনার বাংলা গড়ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এখন শহর আর গ্রামের মধ্যে বৈষম্য নেই। শহরের মতো সব সুবিধা পেয়ে এখন জেগে উঠেছে গ্রামগুলো।

বৃহস্পতিবার বিকেলে সিংড়া উপজেলা পরিষদ হল রুমে এক অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন তিনি।

অনুষ্ঠানে গ্রামীণ অবকাঠামো রক্ষণাবেক্ষণ কর্মসূচির আওতায় উপজেলার ২০টি শিক্ষা ও ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানের প্রকল্প সভাপতির মধ্যে অনুদানের চেক বিতরণ করা হয়।

জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, মানুষের প্রতি আন্তরিকতা আর ভালোবাসা যদি থাকে, তবে যেকোনো কাজ বা উন্নয়ন করা সম্ভব। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সৎ, সাহসী আর জনসম্পৃক্ত নেতৃত্বের কারণে দেশে অভূতপূর্ব উন্নয়ন সাধিত হয়েছে। বিশ্বব্যাংক সহযোগিতা না করলেও নিজস্ব অর্থায়নে সাড়ে ছয় কিলোমিটার দৈর্ঘ্যের পদ্মাসেতু নির্মাণ করা হয়েছে। ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টারগুলো গ্রামীণ জনপদের মানুষের সেবা প্রাপ্তি নিশ্চিত করেছে। গ্রামীণ সড়কের উন্নয়ন আর শতভাগ বিদ্যুৎ সুবিধায় গ্রামগুলো জেগে উঠেছে। কোনো মানুষ আর গৃহহীন থাকবেন না। ভূমিহীন-গৃহহীনদের জন্য জমির বন্দোবস্ত প্রদান করে গৃহ নির্মাণ করে দেওয়া হচ্ছে।

তিনি বলেন, সরকার উন্নয়নের পাশাপাশি সুশাসন নিশ্চিত করছে। ব্যবসায়ীদের এখন আর চাঁদা দিতে হয় না। বিদ্যুৎ সংযোগ নিতে, উন্নয়ন কার্যক্রমের বরাদ্দ পেতে, সড়ক নির্মাণ করতে এখন আর কমিশন দিতে হয় না। কোনো কৃষকের মধ্যে এখন আর সারের জন্যে হাহাকার নেই, তাদের মুখে হাসি ফুটেছে। সকল পেশাজীবী এখন ভালো আছেন।

সিংড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার এম এম সামিরুল ইসলাম অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন। 

কোভিড-১৯ স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে সীমিত পরিসরে উপজেলা প্রশাসন এবং উপজেলা দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ বিভাগ আয়োজিত অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন- সিংড়া পৌরসভার মেয়র জান্নাতুল ফেরদৌস, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা আল আমিন সরকার, সিংড়া ডায়াবেটিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মাওলানা রুহুল আমিন প্রমুখ।