ব্রেকিং:
আন্দোলনকারীরা বক্তব্য দিতে চাইলে আপিল বিভাগ বিবেচনায় নেবেন সচেতনতার অভাবে অনেক মানুষ বিভিন্ন দুরারোগ্য ব্যাধিতে আক্রান্ত জনদুর্ভোগ সৃষ্টি করলে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে : ডিএমপি গমের উৎপাদন বাড়াতে সিমিট ও মেক্সিকোর সহযোগিতা জনদুর্ভোগ সৃষ্টি থেকে বিরত থাকুন : আরাফাত বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে সমাজসেবা অধিদপ্তরের পরিচালকের শ্রদ্ধা মোদির সাথে বিমসটেক পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের সাক্ষাত গাজায় শান্তি রক্ষা করবে আরব যৌথ বাহিনী: বাইডেন কোটা আন্দোলন প্রশ্নে আইনমন্ত্রী কি বললেন? ‘পুলিশের গুলিতে কোনো শিক্ষার্থী মারা যায় নি" ভারত থেকে আমদানি হলো ১১টি বুলেটপ্রুফ সামরিক যান সৌদি আরবে হামলার হুমকি, স্পর্শকাতর স্থানের ভিডিও প্রকাশ পরকীয়া করতে গিয়ে ধরা, সেই স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা বহিষ্কার বাংলাদেশ-চীনের মধ্যে ২১ চুক্তি ও সাত ঘোষণাপত্র সই লক্ষ্মীপুরের কমলনগরে প্রযুক্তি বিষয়ক কুইজ প্রতিযোগিতা ঝিনুকে তৈরি মুক্তার গহনা প্রধানমন্ত্রীর হাতে লক্ষ্মীপুরে হাত-পা বেঁধে প্রবাসীর স্ত্রীকে হত্যার পর ডাকাতি নোয়াখালীতে প্রকৌশলীসহ সেই চার শিক্ষক কারাগারে নোয়াখালীতে পরীক্ষা হলে হট্টগোল-খোশগল্প চট্টগ্রামে এডিসি কামরুল ও তার স্ত্রীর সম্পদ ক্রোকের আদেশ
  • শনিবার ১৩ জুলাই ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ২৯ ১৪৩১

  • || ০৫ মুহররম ১৪৪৬

কোরবানির বর্জ্য নিয়ে মেয়র স্বপন মিয়াজীর ঘোষণা

নোয়াখালী সমাচার

প্রকাশিত: ১৫ জুন ২০২৪  

আসন্ন পবিত্র ঈদুল আজহায় কোরবানির বর্জ্য পাঁচ ঘণ্টার মধ্যে অপসারণের ঘোষণা দিয়েছেন ফেনী পৌরসভার মেয়র নজরুল ইসলাম স্বপন মিয়াজী। এ ছাড়া ফেনী পৌরসভার ১৮টি ওয়ার্ডের জনসাধারণের জন্য ৪০ হাজার কোরবানির বর্জ্য অপসারণ ব্যাগ দেওয়া হয়েছে।

পৌর মেয়র নজরুল ইসলাম স্বপন মিয়াজী বলেন, আমি পৌরসভার দায়িত্ব গ্রহণের পর থেকে কোরবানির বর্জ্য অপসারণকে চ্যালেঞ্জ হিসেবে নিয়েছি। পৌরবাসীর সহযোগিতায় গত বছরের কোরবানির ৬ ঘণ্টার মধ্যে বর্জ্য অপসারণ করতে পেরেছি। এ বছর কোরবানির বর্জ্য পাঁচ ঘণ্টার মধ্যে অপসারণের জন্য পরিচ্ছন্নতাকর্মীদের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। ঈদের দিন দুপুর ১টা থেকে মাঠে সেবকরা কাজ করবেন এবং সন্ধ্যা ৬টার মধ্যেই সকল বর্জ্য অপসারিত হবে। কোরবানির বর্জ্য অপসারণে নিয়োজিত কর্মকর্তা-কর্মচারীদের পাশাপাশি মেয়র নিজেও মাঠে থাকবেন বলে জানান।

কোরবানির বর্জ্য অপসারণের সঙ্গে জড়িত পৌরসভার কর্মকর্তা-কর্মচারীর ছুটি বাতিল ঘোষণা দিয়ে মেয়র বলেন, ১২টি টিমে দুই শতাধিক সেবক কাজ করবে। যে টিম যথাযথ দায়িত্ব পালন করবে তাকে পুরস্কৃত করার ঘোষণাও দেন তিনি। শুধু শহরের প্রধান সড়ক নয়, অলিগলি থেকেও বর্জ্য অপসারণ করতে নির্দেশনা দেন। এ ছাড়া শহর দুর্গন্ধমুক্ত করতে বিভিন্ন সড়ক ও পাড়ায় পানি-ব্লিচিং পাউডার ছিটানো হবে।

মেয়র আরও বলেন, বর্জ্য অপসারণের কাজ করার কারণে সেবকরা ঈদের আনন্দ থেকে বঞ্চিত হবেন। এ জন্য ঈদের পরের দিন তাদের জন্য বিনোদন ও উন্নত মানের খাওয়ার ব্যবস্থা করা হবে।

তিনি বলেন, যারা কোরবানি করবেন সেসব পৌরবাসীর জন্য ৪০ হাজার ব্যাগ (বস্তা) তৈরি করা হয়েছে। প্রতিটি ওয়ার্ডের কাউন্সিলরদের মাধ্যমে পাঠানো হয়েছে। প্রতিটি ওয়ার্ডের কাউন্সিলর পৌর নাগরিকদের দ্বারে দ্বারে পৌঁছে দেবে। এ ব্যাগ (বস্তা) কোরবানির বর্জ্য রেখে দেবেন, সেগুলো আমরা অপসারণ করে নেব। তবে এসব বর্জ্য রাস্তা বা ড্রেনে না ফেলার পরামর্শ দেন মেয়র।

গত বছরের মতো এ বছর ঈদ উপলক্ষে পরিচ্ছন্নতাকর্মীদের জন্য দুটি গরু ও পাঁচটি ছাগল জবাই করার নির্দেশ দিয়েছি। এ ছাড়া শতাধিক পরিচ্ছন্নতাকর্মীকে চাল, লুঙ্গি ও ঈদ সেলামি দেওয়ার কথা জানান তিনি।

পৌরসভা সূত্র জানায়, শহরের ১৮টি ওয়ার্ডে কোরবানির বর্জ্য অপসারণ করতে ১২টি টিম গঠন করা হয়েছে। প্রতিটি টিমের জন্য একটি সুপারভাইজর ও একটি করে ট্রাক্টর দেওয়া হয়েছে। এসব টিমে ২শ জন সদস্য নিযুক্ত রয়েছে। এ ছাড়া একটি ভ্রাম্যমাণ টিম, একটি পানির গাড়ি ও একটি গাড়ি নিয়োজিত থাকবে। প্রতিটি টিমকে ১০০ করে ব্যাগ দেওয়া হয়েছে। এসব টিমকে তদারকি করতে তিনজনকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। এদের মধ্যে ১নং থেকে ৬নং ওয়ার্ডে স্যানিটারি ইন্সপেক্টর কৃষ্মময় বণিক, ৭নং থেকে ১২নং ওয়ার্ডে সাবেক (অবসরপ্রাপ্ত) স্যানিটারি ইন্সপেক্টর মো. শাহাজাহান, ১৩নং থেকে ১৮নং ওয়ার্ডে কনজারভেন্সি ইন্সপেক্টর সরোয়ার আলম।

সূত্র আরও জানায়, পৌরসভার নির্ধারিত ১০৯টি স্থানে পশু জবাই করতে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। এ লক্ষ্যে মাইকিংও করা হয়েছে। ওয়ার্ড কাউন্সিলরের মাধ্যমে প্রতি ওয়ার্ডের জন্য দুই হাজার ব্যাগ দেওয়া হয়েছে।