ব্রেকিং:
আন্দোলনকারীরা বক্তব্য দিতে চাইলে আপিল বিভাগ বিবেচনায় নেবেন সচেতনতার অভাবে অনেক মানুষ বিভিন্ন দুরারোগ্য ব্যাধিতে আক্রান্ত জনদুর্ভোগ সৃষ্টি করলে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে : ডিএমপি গমের উৎপাদন বাড়াতে সিমিট ও মেক্সিকোর সহযোগিতা জনদুর্ভোগ সৃষ্টি থেকে বিরত থাকুন : আরাফাত বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে সমাজসেবা অধিদপ্তরের পরিচালকের শ্রদ্ধা মোদির সাথে বিমসটেক পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের সাক্ষাত গাজায় শান্তি রক্ষা করবে আরব যৌথ বাহিনী: বাইডেন কোটা আন্দোলন প্রশ্নে আইনমন্ত্রী কি বললেন? ‘পুলিশের গুলিতে কোনো শিক্ষার্থী মারা যায় নি" ভারত থেকে আমদানি হলো ১১টি বুলেটপ্রুফ সামরিক যান সৌদি আরবে হামলার হুমকি, স্পর্শকাতর স্থানের ভিডিও প্রকাশ পরকীয়া করতে গিয়ে ধরা, সেই স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা বহিষ্কার বাংলাদেশ-চীনের মধ্যে ২১ চুক্তি ও সাত ঘোষণাপত্র সই লক্ষ্মীপুরের কমলনগরে প্রযুক্তি বিষয়ক কুইজ প্রতিযোগিতা ঝিনুকে তৈরি মুক্তার গহনা প্রধানমন্ত্রীর হাতে লক্ষ্মীপুরে হাত-পা বেঁধে প্রবাসীর স্ত্রীকে হত্যার পর ডাকাতি নোয়াখালীতে প্রকৌশলীসহ সেই চার শিক্ষক কারাগারে নোয়াখালীতে পরীক্ষা হলে হট্টগোল-খোশগল্প চট্টগ্রামে এডিসি কামরুল ও তার স্ত্রীর সম্পদ ক্রোকের আদেশ
  • শনিবার ১৩ জুলাই ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ২৯ ১৪৩১

  • || ০৫ মুহররম ১৪৪৬

‘আমাকে সঙ্গে নিয়ে চলেন, লাশ দেখাবো’

নোয়াখালী সমাচার

প্রকাশিত: ১৩ জুন ২০২৪  

সাতসকালে থানায় হাজির ২৫-২৬ বছর বয়সী এক যুবক। তিনি পুলিশ কর্মকর্তাদের জানান, স্ত্রীকে গলা কেটে খুন করেছেন। পুলিশ কর্মকর্তারা খুব একটা পাত্তা দেননি। কিন্তু যুবক তার কথায় অটল। শেষে জোর দিয়ে বললেন, ‘আমাকে সঙ্গে নিয়ে চলেন, লাশ দেখাব।’ এরপর নড়েচড়ে বসেন ডিউটি অফিসার।

বুধবার (১২ জুন) সকালে ফেনীর সোনাগাজী থানায় এমন ঘটনা ঘটে। পরবর্তীতে পুলিশ ওই যুবককে সঙ্গে নিয়ে তার বাসায় গিয়ে দেখেন এক নারীর গলাকাটা লাশ পড়ে আছে।

ওই যুবকের নাম আলী আক্কাস রনি (২৫)। পেশায় তিনি জুতা বিক্রেতা। রনির গ্রামের বাড়ি ভোলায়। তিনি বুধবার ভোরে সোনাগাজী উপজেলার পৌরসভা এলাকার ৯ নম্বর ওয়ার্ডের ভাড়া বাসায় স্ত্রী সিনথিয়া ইসলাম খুশবুকে (২৪) হত্যা করেন। পরে থানায় গিয়ে হাজির হন তিনি।

খুন হওয়া খুশবুর বাড়ি বরিশালে। সোনাগাজী পৌরসভার চর গণেশের শেখপাড়া এলাকার ভাড়া বাড়িতে বসবাস করতেন তারা।

স্থানীয়রা জানান, এ বছরের মার্চ মাসে আলী আক্কাছ রনি তার স্ত্রীকে নিয়ে ও বাড়িতে বাসা ভাড়া নেন এবং তার খালাতো বোনের জামাইয়ের সঙ্গে ভ্যানগাড়িতে করে জুতা বিক্রি করতেন।

তারা আরো জানান, প্রায় সময় তাদের মধ্যে ঝগড়া লেগে থাকত। ধারণা করা হচ্ছে, পারিবারিক কলহের জেরে এ হত্যা। বুধবার ভোর সাড়ে ৪টার দিকে স্ত্রী ইলাকে বটি দিয়ে মাথায়, মুখে ও হাতে কুপিয়ে হত্যা করেন রনি। পরে স্ত্রীর লাশ বাসায় রেখেই ৭টার দিকে থানায় হাজির হয়।

সোনাগাজী মডেল থানার ওসি সুদ্বীপ রায় জানান, দুই বছর আগে তাদের বিয়ে হয়। মঙ্গলবার রাতে বাসায় তরকারি আনাকে কেন্দ্র করে তাদের মধ্যে কলহ শুরু হয়। সারারাত ঝগড়া করে ভোরে খুশবুকে বটি দিয়ে দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করে রনি। পরে সকাল সাড়ে ৭টার দিকে থানার সামনে এসে তিনি এক পুলিশকে ঘটনাটি জানান। পরে ঘটনাস্থলে গেলে এর সত্যতা পাওয়া যায়। সেখান থেকে হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত বটি দা ও অন্যান্য আলামত উদ্ধার করা হয়েছে। লাশ উদ্ধার ও সুরতহাল করা হয়েছে।

তিনি আরো জানান, খুশবুর হাত, গলা ও কানে কোপের চিহ্ন রয়েছে। নিহতের পরিবারকে ফোন করে হত্যাকাণ্ডের ঘটনা জানানো হয়েছে। তারা অভিযোগ দিলে আইনগত পদক্ষেপ নেয়া হবে।