ব্রেকিং:
কোটাবিরোধীতায় অশুভ শক্তি নেমেছে : ওবায়দুল কাদের প্রান্তিক মানুষের চিকিৎসাসেবা নিশ্চিত করতে সব করব : সামন্ত লাল চোরাই মোবাইলের স্বর্গরাজ্য চট্টগ্রামের রিয়াজউদ্দিন বাজার বৃষ্টির পানিতে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে ২ ফার্নিচার কর্মচারীর মৃত্যু ২২ কেজির কোরাল বিক্রি হলো ২৬ হাজার টাকায় আন্দোলনরত শিক্ষকদের সঙ্গে বৈঠকে ওবায়দুল কাদের প্রতিবন্ধী তরুণকে কুকুর লেলিয়ে হত্যা করল ইসরায়েলি সেনারা ফেনী বন্যাদুর্গত ৭০০ পরিবার পেলো ত্রাণ সামগ্রী এক সপ্তাহে ৭৪১১ কোটি টাকা বাজার মূলধন হারালো ডিএসই রাজধানীতে পিতার ১ কোটি ৬৬ লাখ টাকা চুরি করলেন মেয়ে নৈশ প্রহরীকে বেঁধে বাজারে দুর্ধর্ষ ডাকাতি পচা কাঠের পোকা, দাম ৭৫ লাখ! জানেন কেন? দেশে ফিরেছেন ৬৭৯৭৪ হাজি সারাদেশে ইন্টারনেটে ধীরগতি আন্দোলনকারীরা বক্তব্য দিতে চাইলে আপিল বিভাগ বিবেচনায় নেবেন সচেতনতার অভাবে অনেক মানুষ বিভিন্ন দুরারোগ্য ব্যাধিতে আক্রান্ত জনদুর্ভোগ সৃষ্টি করলে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে : ডিএমপি গমের উৎপাদন বাড়াতে সিমিট ও মেক্সিকোর সহযোগিতা জনদুর্ভোগ সৃষ্টি থেকে বিরত থাকুন : আরাফাত বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে সমাজসেবা অধিদপ্তরের পরিচালকের শ্রদ্ধা
  • রোববার ১৪ জুলাই ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ৩০ ১৪৩১

  • || ০৬ মুহররম ১৪৪৬

দাগনভূঞায় ছিনতাইয়ের কবলে দুই চাকুরিজীবী

নোয়াখালী সমাচার

প্রকাশিত: ৬ সেপ্টেম্বর ২০২৩  

দাগনভূঞা একই দিনে দুই সরকারী চাকুরিজীবী ছিনতাইয়ের শিকার হয়েছেন। ছিনতাইকারীর কবলে পড়ে টাকা ও মালামাল হারিয়েছেন সরকারি প্রতিষ্ঠানে কর্মরত দুই চাকুরিজীবী।

রোববার (৩ সেপ্টেম্বর) বিকেলে উপজেলার বেকের বাজার এলাকায় চোখ বেঁধে মারধর করে টাকা, মূল্যবান কাগজপত্র ও মোবাইল ছিনিয়ে নিয়েছে দুবৃর্ত্তরা।

তারা হচ্ছেন পল্লী সঞ্চয় ব্যাংকের জুনিয়র অফিসার (মাঠ) আবুল হাসনাত ও উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ের অফিস সহায়ক মো. নূর উদ্দিন জাহাঙ্গীর।

উপজেলা পল্লী সঞ্চয় ব্যাংকের জুনিয়র অফিসার আবুল হাসনাত জানান, বোববার সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টার পর উপজেলা গেইট থেকে সিএনজি অটোরিকশাযোগে ফেনী যাচ্ছিলাম পথিমধ্যে বেকের বাজার নামক স্থানে পৌঁছালে দূর্বৃত্তরা চোখ ও হাত বেঁধে ফেলে। এসময় পকেটে থাকা প্রায় ২ হাজার ২০০ টাকা নিয়ে যায়। তারা আমার মোবাইলের বিকাশ একাউন্টের পিন নাম্বার দিতে বলে, পিন নাম্বার না দিলে ক্ষিপ্ত হয়ে আমাকে মারধর করে রাস্তার পাশে ফেলে দেয়।

একইদিন উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ের অফিস সহায়ক মোঃ নূর উদ্দিন জাহাঙ্গীরের সাথে একই ধরনের ঘটনা ঘটে।

জাহাঙ্গীর জানান, বিকেল সাড়ে চারটার দিকে অফিস থেকে বের হয়ে উপজেলা পরিষদ গেইট থেকে সিএনজি অটোরিকশাযোগে ফেনীর উদ্দেশ্যে রওনা হই। পথিমধ্যে উপজেলার বেকের বাজার নামক স্থানে সিএনজিতে থাকা দুইজন যাত্রী আমাকে ছুরি বের করে ভয় দেখিয়ে চোখ ও হাত বেঁধে ফেলে। কিছুক্ষণ পর চোখ খুলে দেয়। আমার আত্মীয় স্বজনকে একলক্ষ টাকার জন্য ফোন করতে বলে। টাকার কোনো ব্যবস্থা না হওয়ায় দূর্বৃত্তরা উপস্থিত একশত টাকার অলিখিত স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর করতে বলে। স্বাক্ষর দিতে অস্বীকার করায় আমাকে লোহার রড দিয়ে মারধর করে। পরে ভয়ে আমি স্বাক্ষর করি। এসময় আমার পকেটে থাকা ২ হাজার ৪৭০ টাকা, স্যামসাং এন্ড্রয়েড মোবাইল, জাতীয় পরিচয়পত্র, অফিসের পরিচয়পত্র এবং এনসিসি ব্যাংকের এটিএম কার্ডসহ মূল্যবান কাগজপত্র নিয়ে যায়। এক পর্যায়ে সন্ধ্যার পর চোখ বেঁধে উপজেলার সিলোনিয়া এলকায় ফেলে যায়।

দাগনভূঞা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. নিজাম উদ্দিন জানান, দুটি অভিযোগ পেয়েছি। পুলিশের একাধিক দল কাজ করছে।

দাগনভূঞা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নিবেদিতা চাকমা জানান, থানায় অভিযোগ করা হয়েছে। পুলিশ বিষয়টি দেখছে।