ব্রেকিং:
‘স্মার্ট দেশ’ গড়তে নৌকায় ভোট চাইলেন প্রধানমন্ত্রী রাজশাহীবাসীর জন্য প্রধানমন্ত্রীর ‘উপহার’ ২৬ প্রকল্প রাজশাহীতে ১০ হাজার কোটি টাকার প্রকল্প বাস্তবায়ন করেছি আওয়ামী লীগ কখনো পালায় না - রাজশাহীর জনসভায় প্রধানমন্ত্রী রাজশাহী এখন দেশের সবচেয়ে সুন্দর শহর: তথ্যমন্ত্রী বিএনপি আমাদের লাল কার্ড দেখায়, তারা এখন কই: ওবায়দুল কাদের ২৬ উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী ১৪ বছরে বদলে গেছে রাজশাহী উৎপাদনে ফিরছে ॥ রামপাল বিদ্যুৎ কেন্দ্র প্রতিদিন গড়ে ৬ কোটি ৩৭ লাখ ডলার রেমিট্যান্স আসছে দেশের শান্তি রক্ষায় নিরলসভাবে কাজ করছে পুলিশ: প্রধানমন্ত্রী দেবীদ্বারে আ’লীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি, জানেন না উপজেলা সম্পাদক কুমিল্লায় ৬ মাসের সাজা নিয়ে পলাতক দশ বছর,অবশেষে আটক পূর্ব শাহতলীতে ওয়াজ ও দোয়ার মাহফিল সম্পন্ন চাঁদপুর সদর ও পৌর আওয়ামী লীগের মতবিনিময় চাঁদপুর জেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে আলোচনা চাঁদপুরে খেলাফত যুব মজলিশের বিক্ষোভ মিছিল চাঁদপুরে সুবিধাবঞ্চিত শিশু শিক্ষার্থীরা পেল হ্যান্ডওয়াশ টেন্ডারকৃত রাস্তায় কাজ না করিয়ে অন্যস্থানে করায় মানববন্ধন চাঁদপুর ডাকাতিয়া নদীর পাড়ে ব্র্যাক শিক্ষা তরীর উদ্বোধন
  • সোমবার   ৩০ জানুয়ারি ২০২৩ ||

  • মাঘ ১৭ ১৪২৯

  • || ০৭ রজব ১৪৪৪

ইভটিজারদের ভয়ে মাদরাসায় যাচ্ছে না দাখিল পরীক্ষার্থী

নোয়াখালী সমাচার

প্রকাশিত: ২৫ জানুয়ারি ২০২৩  

লক্ষ্মীপুরে ইভটিজারদের ভয়ে ৩ দিন ধরে এক দাখিল পরীক্ষার্থী (১৬) মাদরাসায় যেতে পারছে না বলে অভিযোগ উঠেছে। নাতনিকে উত্ত্যক্ত করার প্রতিবাদ করে ইভটিজার ও তাদের স্বজনদের হাতে মারধরে বৃদ্ধা মরিয়ম বিবি (৮০) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। এ ঘটনায় সদর মডেল থানায় অভিযোগ দিলে অভিযুক্তরা বাড়িতে হামলা চালায়।হামলাকারীদের ভয়ে বর্তমানে মা-মেয়ে বাড়িতে অবরুদ্ধ অবস্থায় আছেন।

মঙ্গলবার (২৪ জানুয়ারি) দুপুরে সরেজমিনে সদর উপজেলার তেওয়ারীগঞ্জ ইউনিয়নের চরমটুয়া গ্রামে গেলে ভূক্তভোগী মাদরাসাছাত্রী ও তার মা ঘটনার সতত্যা নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে সোমবার (২৩ জানুয়ারি) ছাত্রীর মা ৬ জনের নাম উল্লেখ করে সদর মডেল থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। তবে অভিযুক্ত মো. সেলিম, আলী আহমেদ ও আমেনা বেগম ঘটনাটি অস্বীকার করেছেন।

ভূক্তভোগী ছাত্রী নতুন তেওয়ারীগঞ্জ ইসলামিয়া দাখিল মাদরাসার এসএসসি পরীক্ষার্থী।

অভিযোগ সূত্র জানায়, ২১ জানুয়ারি দুপুরে মাদরাসা থেকে ওই ছাত্রী বাড়ি ফিরছিল। তার সঙ্গে বৃদ্ধা নানি মরিয়মও ছিলেন। এসময় আরিফ ও সুমন নামে দু’জন তাদের পথরোধ করে। এতে বৃদ্ধা তাদেরকে বাধা দেয়। পরে অভিযুক্তরা বাড়িতে হামলা চালিয়ে বৃদ্ধাকে মারধর করে আহত করে। এ ঘটনায় কোনো আইনগত ব্যবস্থা নিলে ফের মারধরের হুমকি দেয় তারা। ঘটনার বিচারের জন্য ছাত্রীর মা থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। এতে আরিফ, তার বাবা সেলিম, মা আমেনা বেগম, আলী আহমেদ, তার স্ত্রী কুলসুম বেগম ও সুমনকে অভিযুক্ত করা হয়।

মাদরাসাছাত্রী বলেন, মাদরাসায় যাওয়ার আসার পথে আরিফ ও সুমন আমাকে প্রেমের প্রস্তাবসহ বিভিন্ন ধরণের অশ্লীল কথা বলে। তার এক মোটরসাইকেলে চলাফেরা করে। ২১ জানুয়ারি খারাপ আচরণ করলে আমার নানি বাধা দেয়। এতে আরিফ-সুমনসহ অভিযুক্তরা আমার নানিকে মারধর করে। আমি নানিকে ছাড়াতে গেলে আমার ক্ষতি করবে বলে হুমকি দেয়। এতে ভয়ে আমি দাঁড়িয়ে ছিলাম। সামনে আমার পরীক্ষা কিন্তু তাদের ভয়ে আমি মাদরাসায় যেতে পারছি না। 

ছাত্রীর মা বলেন, থানায় অভিযোগ দেওয়ার পর থেকে গত দুইদিন আমি বাড়ি থেকে বের হতে পারছি না। আমার মা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন তাকেও দেখতে যেতে পারছি না। দোকানের সামনে অভিযুক্ত জড়ো হয়ে থাকলে। বের হলেই তারা আমাকে মারধর করার হুমকি দিয়েছে।

অভিযুক্ত আরিফ ও সুমনকে খোঁজ করেও পাওয়া যায়নি। তবে আরিফের বাবা মো. সেলিম জানান, তার ছেলে স্থানীয় ফরাশগঞ্জ বাজারের ফার্মেসী ব্যবসায়ী। তার স্ত্রী-সন্তান রয়েছে। ওই ছাত্রী তার ছেলের বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ তুলেছে। বৃদ্ধা মরিয়মকেও তারা কেউ মারধর করেনি।

অভিযুক্ত আলী আহমেদ বলেন, ঘটনাটি সম্পূর্ন মিথ্যা। অভিযোগকারী নারী মিথ্যা ঘটনা সাজিয়ে তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ দিয়েছে। এর আগেও ওই নারী তাদেরকে মামলা দিয়ে হয়রানি করেছে।  

মাদরাসা সুপার লোকমান আজম বলেন, ৩ দিন ধরে ওই ছাত্রী মাদরাসায় আসছে না। তবে কি কারণে আসেনি তা জানা ছিল না। ধারণা করেছিলাম, অসুস্থ্য ছিল।

মাদরাসার পরিচালনা কমিটির সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম ভূঁইয়া বলেন, ওই ছাত্রীকে উত্যক্তের ঘটনাটি প্রায় ১ মাস আগে তার মা জানিয়েছিল। অভিযুক্ত সুমনকে আমি চিনি না। অপর অভিযুক্ত ফারুককে ওই ছাত্রীকে উত্যক্ত করতে নিষেধ করা হয়েছে। চলমান ঘটনাটি আমাদেরকে কেউ জানায়নি।

লক্ষ্মীপুর সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোসলেহ উদ্দিন মোবাইলে ঢাকা মেইল জানান, এবিষয়ে একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। ঘটনাটি তদন্ত চলছে।