ব্রেকিং:
অভিনব কায়দায় স্কুলছাত্রীর কানের সোনার দুল নিয়ে চম্পট নারী ডাকাতির পর গৃহবধূকে খুন, ৬ আসামির যাবজ্জীবন মোটরসাইকেল আরোহীদের ফুল চকলেট দিয়ে অভিনন্দন জানাল পুলিশ ইয়াবার চালান নিয়ে নোয়াখালীতে গ্রেফতার ৩ জাতিসংঘ শান্তিপদক পেলেন বাংলাদেশের ১৪০ শান্তিরক্ষী অপপ্রচারকারীদের সেবা দেবে না কানাডায় বাংলাদেশ মিশন রিটার্ন জমার সময় এক মাস বাড়ছে ‘বিনা খরচে’ সরকারিভাবে মালয়েশিয়ায় কর্মী পাঠানো শুরু শান্তি রক্ষায় যৌথ কাজ করবে বিজিবি-বিজিপি ১০ টাকার টিকিট কেটে চোখ দেখালেন প্রধানমন্ত্রী উখিয়ায় ফের রোহিঙ্গা ক্যাম্পে খুন গৃহ পরিচালিকার মেয়েকে ধর্ষণের অভিযোগে যুবক গ্রেফতার গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে পুড়ল ২০ দোকান ব্রাহ্মণপাড়ায় সিএনজি চালকের সীটের নিচ থেকে ৬ কেজি গাজাঁ উদ্ধার কচুয়ায় ১৯ বছর পর ১০ একর সম্পত্তি ফিরে পেলো নিরীহ পরিবার মতলব উত্তরে এসএসসিতে পাসের হার ৯০.৬৭ শহরের যানজট নিরসনে কাজ শুরু করেছে চাঁদপুর পৌরসভা কুমিল্লা বিভাগে পাশের হারে শীর্ষে চাঁদপুর জেলা যৌতুকের লোভে স্ত্রীকে হত্যা: স্বামীর মৃত্যুদণ্ড সেই সুমাইয়া জিপিএ-৫ পেয়েছে
  • বৃহস্পতিবার   ০১ ডিসেম্বর ২০২২ ||

  • অগ্রাহায়ণ ১৭ ১৪২৯

  • || ০৬ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

কুমিল্লায় চেয়ারম্যানের গাড়িতে গুলি

নোয়াখালী সমাচার

প্রকাশিত: ৫ অক্টোবর ২০২২  

কুমিল্লার দেবীদ্বার উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও কুমিল্লা উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আবুল কালাম আজাদের গাড়িতে গুলি ও ভাঙচুরের ঘটনা ঘটেছে।

এ ঘটনায় চেয়ারম্যান অক্ষত থাকলেও তার ৫ জন কর্মী আহত হন। হামলার জন্য কুমিল্লা-৪ (দেবীদ্বার) আসনের সংসদ সদস্য রাজী মোহাম্মদ ফখরুলের অনুসারীদের দায়ী করেছেন উপজেলা চেয়ারম্যান।

সোমবার (৪ অক্টোবর) রাত সাড়ে ১১টার দিকে দেবীদ্বার পৌরসভার ভিংলাবাড়ি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এ হামলায় আহত চেয়ারম্যানের কর্মী সজীব মিয়াকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

স্থানীয়রা জানান, রাতে দেবীদ্বার পৌরসভার আলিয়াবাদ এলাকায় পূজামণ্ডপ পরিদর্শনে যান উপজেলা চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ। তিনি পূজামণ্ডপ থেকে বেরিয়ে যাওয়ার সময় স্থানীয় সংসদ সদস্য রাজী মোহাম্মদ ফখরুল ও তার অনুসারীরাও প্রবেশ করেন। একপর্যায়ে পূজামণ্ডপের গাড়িবহরের গাড়ি রাখা নিয়ে দুই নেতার অনুসারীদের মধ্যে ঝামেলা হয়।

তখন পুলিশ পরিস্থিতি সামাল দেয়। মন্দির থেকে ফেরার পথে ভিংলাবাড়ি এলাকায় আবারও উভয়পক্ষের মধ্যে হাতাহাতি ও মারামারি হয়। এ সময় পাঁচজন আহত হন। একপর্যায়ে আজাদ গাড়িতে উঠলে তাঁর সরকারি গাড়িতে কয়েকটি গুলি করা হয়। এতে গাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়। একইসঙ্গে তার ব্যক্তিগত গাড়িও ভাঙচুর করা হয়।

উপজেলা চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ সাংবাদিকদের অভিযোগ করেন, আমাকে হত্যার উদ্দেশ্যে সংসদ সদস্যের অনুসারীরা গুলি করে। তারা সরকারি গাড়িতে গুলি করে। আমার গাড়ি ভাঙচুর করে। এ ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

দেবীদ্বার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কমল কৃষ্ণ ধর বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়েছে। এই ঘটনায় এখনো কেউ অভিযোগ করেনি। বিষয়টি তদন্ত করে দেখছি।