ব্রেকিং:
দ্বাদশ নির্বাচনে ইসরায়েলের সহযোগিতা চায় বিএনপি ফেরিতে আটলান্টিক পাড়ি দিতে গিয়ে অসুস্থ বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা হলি আর্টিজানে নিহতদের প্রতি রাষ্ট্রদূতদের ফুলেল শ্রদ্ধা হলি আর্টিজান হামলা, পরের ৬ বছরে গ্রেফতার ২৪১০ জঙ্গি হলি আর্টিজান হামলা: রক্তের দাগ, বুলেটের ক্ষত রয়েছে স্মৃতিপটে হলি আর্টিজান মামলার অগ্রগতি কতদূর হলি আর্টিজান হামলা ও এদেশের জঙ্গিবাদ হলি আর্টিজানে জঙ্গি হামলার বিভীষিকাময় দিন হলি আর্টিজান মামলা: হাই কোর্টে এখনও শুনানির অপেক্ষা রাস্তার পাশে পড়েছিল কাপড়ে মোড়ানো নবজাতকের মরদেহ বাল্যবিয়ে বন্ধ, খাবার গেলো এতিমখানায় যমজ সন্তান জন্ম দিয়ে বিপাকে রুমা ব্রাহ্মণবাড়িয়ার পরিবর্তে ‘বি-বাড়িয়া’ না লিখার নির্দেশ যেসব পশু কোরবানি করা যাবে ও যাবে না নোয়াখালীতে গৃহপরিচারিকার লাশ উদ্ধার ঈদযাত্রার অগ্রিম ট্রেনের টিকিট পেতে কাউন্টারে ভিড় ঢাকা-মাওয়া-ভাঙ্গা এক্সপ্রেসওয়েতে টোল আদায় শুরু বিশ্বে একদিনে করোনায় ১৩৮০ জনের মৃত্যু ঈদযাত্রার অগ্রিম ট্রেনের টিকিট বিক্রি শুরু বুয়েটের মেধা তালিকায় এবার আবরার ফাহাদের ছোট ভাই ফাইয়াজ
  • শুক্রবার   ০১ জুলাই ২০২২ ||

  • আষাঢ় ১৭ ১৪২৯

  • || ৩০ জ্বিলকদ ১৪৪৩

‘বিয়ের কথা বলে’ বন্ধুর বাসায় নিয়ে মাদরাসাছাত্রীকে ধর্ষণ

নোয়াখালী সমাচার

প্রকাশিত: ১৬ জুন ২০২২  

ফেনীতে বিয়ের প্রলোভনে মাদরাসাছাত্রীকে (১৫) বন্ধুর বাসায় নিয়ে ধর্ষণের অভিযোগে এক যুবককে গ্রেফতার ও কারাগারে প্রেরণ করেছে পুলিশ।

অভিযুক্তের নাম মো. নুরুন নবী (২২)। তিনি ফেনীর ছাগলনাইয়া উপজেলার পাঠান নগর ইউনিয়নের মধ্যম শিলুয়া গ্রামের আবদুল হালিমের ছেলে।

বুধবার (১৫ জুন) বিকেলে ফেনীর সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ফাতেমা তুজ জোহরার আদালতে আসামি নুরুন নবী ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেওয়ার পর তাকে ফেনী জেলা কারাগারে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে। এছাড়া একই আদালতে ভুক্তভোগী মাদরাসাছাত্রীর ২২ ধারায় বক্তব্য গ্রহণের পর তাকে বাবা-মায়ের জিম্মায় দেওয়া হয়েছে।

পুলিশ ও মামলার এজাহার সূত্র জানায়, ফেনীর ছাগলনাইয়া উপজেলার পাঠান নগর ইউনিয়নের মধ্যম শিলুয়া গ্রামের আবদুল হালিমের ছেলে মো. নুরুন নবী মাদরাসায় ৮ম শ্রেণিতে পড়ুয়া ছাত্রীর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলে। একপর্যায়ে বিয়ের প্রস্তাব দেয়। গত মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ওই ছাত্রীকে নানা কৌশলে বিয়ের প্রস্তাবে ফুসলিয়ে তাদের বাড়ি থেকে বের করে ফেনী শহরের পাঠানবাড়ী সড়কের একটি বহুতল ভবনের ৭ম তলায় বন্ধুর বাসায় নিয়ে যায়।

সেখানে ওই ছাত্রীকে বিয়ের পরিবর্তে জোর করে ধর্ষণ করে। ছাত্রীটি ওই বাসা থেকে বের হয়ে তার বাড়ি গিয়ে বাবা-মায়ের কাছে তাকে প্রলোভন দিয়ে ধর্ষণের কথা জানায়। এ ঘটনায় মঙ্গলবার রাতেই ওই ছাত্রীর মা বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে ফেনী মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। মামলা দায়েরের পর পুলিশ অভিযান চালিয়ে নুরুন নবীকে গ্রেফতার করে।

ফেনী মডেল থানার ওসি মো. নিজাম উদ্দিন ধর্ষণের অভিযোগে থানায় মামলা দায়ের ও একজনকে গ্রেফতারের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, ওই যুবক আদালতে ১৬৪ ধারায় ধর্ষণের দায় স্বীকার করেছেন। এছাড়া ওই তরুণীও আদালতে ২২ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছে।