ব্রেকিং:
মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্র থেকে প্রসূতিকে বের করে দিলেন আয়া,অতঃপর . মাদরাসায় বাংলায় সাইনবোর্ড স্থাপনের নির্দেশ সরকার সবার জন্য নিরাপদ পানি, স্যানিটেশন নিশ্চিত করছে দেশে খাদ্য ঘাটতির সম্ভাবনা নেই: খাদ্যমন্ত্রী নতুন স্ন্যাপড্রাগন আসছে এ সপ্তাহেই ১৮ মাসের কাজ শেষ হয়নি ৬২ মাসেও অ্যান্টিবায়োটিক চেনাতে চিহ্ন ব্যবহারের সিদ্ধান্ত সরকারের ফেসবুক পোস্টে ‘হা হা’ দেওয়ায় ব্যাপক ভাঙচুর, পুলিশ মোতায়েন নন-ব্যাংক আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোকে শৃঙ্খলার মধ্যে আনতে হবে গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু, গলায় পোড়া দাগ গরু-ছাগলের মাংসে যক্ষ্মার জীবাণু শনাক্ত টানা ২৮ দিন করোনায় মৃত্যুশূন্য দেশ, কমলো শনাক্ত বন্যার্তদের দুঃসময়ে সরকার পাশে রয়েছে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী প্রাক্তন স্বামীর হামলায় আহত চিকিৎসক স্ত্রী ডাইনিং বন্ধ, হোটেলে উচ্চমূল্য: বিপাকে কুবি শিক্ষার্থীরা দূষণে বছরে ৯০ লাখ মানুষের প্রাণহানি: গবেষণা ইউক্রেন-রাশিয়া যুদ্ধে ৩৭৫২ বেসামরিক নাগরিকের মৃত্যু ‘শুধু চোর নয়, চোরাই মোবাইল বিক্রেতারাও গ্রেফতার হবে’ কক্সবাজারে অপরিকল্পিত স্থাপনা নির্মাণ নয়: প্রধানমন্ত্রী চরাঞ্চলের জনগণের ক্ষুধা-দারিদ্র্য হ্রাসে প্রকল্প নেয়া হয়েছে
  • বৃহস্পতিবার   ১৯ মে ২০২২ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ৫ ১৪২৯

  • || ১৬ শাওয়াল ১৪৪৩

গরম পানি ঢেলে স্বামীকে পুড়িয়ে স্ত্রী বললেন ‘আমাকে ফাঁসানো হচ্ছে’

নোয়াখালী সমাচার

প্রকাশিত: ১৭ এপ্রিল ২০২২  

ফেনীতে পারিবারিক কলহের জেরে গরম পানি ঢেলে ঘুমন্ত স্বামীকে ঝলসে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে স্ত্রীর বিরুদ্ধে। শরীরের বেশিরভাগ অংশ ঝলসে যাওয়ায় মৃত্যুর কাছে হেরে গেছেন ৪৫ বছর বয়সী কাউসার আলম তৈমুর।

রোববার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে রাজধানীর শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ইউনিটে মারা যান তৈমুর। এর আগে, ১১ এপ্রিল এ ঘটনা ঘটে।

নিহত তৈমুর ফেনী শহরের শহিদ সেলিনা পারভিন সড়কের (নাজির রোডের) আবু তৈয়ব চৌধুরীর ছেলে ও ফেনীর ফ্রেন্ডশিপ ক্রিকেট ক্লাবের প্রতিভাবান সাবেক খেলোয়াড়।

এ ঘটনায় ১৬ এপ্রিল ফেনী মডেল থানায় মামলা করেছেন নিহতের ছোট ভাই তানজুর চৌধুরী। পরে অভিযুক্ত খাদিজা বিনতে শামস রুপাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

নিহতের ছোট ভাই তানজুর চৌধুরী জানান, দীর্ঘদিন ধরে তার ভাই ও ভাবির সঙ্গে ঝগড়া চলছিল। ১১ এপ্রিল সকাল ৬টার দিকে চিৎকার শুনে তারা ছুটে গিয়ে দেখেন গরম পানিতে তার ভাইয়ের শরীর ঝলসে দেওয়া হয়েছে। পরে তাকে প্রথমে ফেনী জেনারেল হাসপাতালে ও পরে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়। এরপর ঢাকা শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ইউনিটের আইসিইউতে তাকে চিকিৎসা দেওয়া হয়। সেখানেই রোববার তিনি মারা যান।

তৈমুরের শরীরে গরম পানি ঢেলে ঝলসে দেওয়ার অভিযোগ অস্বীকার করেছেন তার স্ত্রী রুপা। গ্রেফতারের আগে রুপা জানান, তাকে ফাঁসাতে অন্য কেউ এ চক্রান্ত করেছেন। সেদিন সাহরি খেয়ে তিনি ঘুমিয়ে ছিলেন। তার গায়ে কীভাবে গরম পানি পড়েছে তিনি জানেন না।

মৃত্যুর আগে তৈমুরের লেখা ও স্বাক্ষর করা জবানবন্দিতে তিনি জানান, তার এ অবস্থার জন্য স্ত্রী জড়িত। তিনি লিখেছেন- স্ত্রী আমাকে হত্যার উদ্দেশ্যে ঘুমন্ত অবস্থায় গরম পানি ঢেলে দিয়েছেন। সেই লেখার নিচে তৈমুরের স্বাক্ষর ও টিপসই রয়েছে।

ফেনী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) নিজাম উদ্দিন জানান, অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে শনিবার সন্ধ্যায় রুপাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এ ঘটনায় প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।