ব্রেকিং:
আজ থেকে বিপিএলে থাকছে ‘বিকল্প ডিআরএস’ কমিউনিটি ক্লিনিকে আরো বিনিয়োগ প্রয়োজন: পরিকল্পনামন্ত্রী এবার আইপিএলের সব খেলা এক শহরে! মৌসুমী ঝড়ে আফ্রিকার তিনদেশে নিহত ৭০ জুমার দিনে যে আমল করলে ৮০ বছরের গুনাহ মাফ হবে কুমিল্লায় জনপ্রিয় হচ্ছে সমলয় পদ্ধতিতে ধান চাষ প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে কাদের মির্জার ৯ প্রার্থীর অভিযোগ বিশ্বে করোনায় মৃত্যু ছাড়াল সাড়ে ৫৬ লাখ, শনাক্ত সাড়ে ৩৬ কোটি লক্ষ্যমাত্রার ৭ ভাগ আমন সংগ্রহ হয়েছে ফেনীতে নৌকা ঠেকাতে আনারসে ভোট চাইলেন এমপি একরামুল মসজিদের ৭ লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগে মামলা ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় প্লাস্টিকের লেমিনেশন ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞা চিলির মাঠে মেসিহীন আর্জেন্টিনার দাপুটে জয় কোম্পানীগঞ্জে এক বস্তা দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার প্রাথমিকে অনলাইনে ক্লাসসহ ৬ নির্দেশনা সরকারি ব্যাংকের সব নিয়োগ পরীক্ষা স্থগিত চাঁবিপ্রবির জমি অধিগ্রহণে অনিয়মের খবর ভিত্তিহীন: শিক্ষামন্ত্রী ১৫ বছরের গোপন সম্পর্ক, কথা না রাখায় দেবরের ঘরে অনশনে ভাবি পার্কে প্রেমিককে জুতাপেটা, আটক করে টাকা নিলেন মেম্বার আখাউড়ায় পাঁচ মাদক সেবনকারীর কারাদণ্ড
  • শুক্রবার   ২৮ জানুয়ারি ২০২২ ||

  • মাঘ ১৫ ১৪২৮

  • || ২৩ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

বিয়ের পর ঋণ করে সৌদি আরব গিয়ে প্রাণ হারালেন মুরাদ

নোয়াখালী সমাচার

প্রকাশিত: ১৮ ডিসেম্বর ২০২১  

সৌদি আরবে সড়ক দুর্ঘটনায় এক বাংলাদেশি নিহত হয়েছেন। নিহতের নাম মো. মুরাদ হোসেন। তিনি বিয়ের পর ঋণ করে ভাগ্যের উন্নয়নের আশায় সৌদি আরবে পাড়ি জমিয়েছিলেন।

শুক্রবার স্থানীয় সময় বিকেল ৫টায় সৌদি আরবের মদিনা শহর থেকে ২৫০ কিলোমিটার দূরের আল হাইল নামক স্থানে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত মুরাদ হোসেন লক্ষ্মীপুরের রায়পুর উপজেলার কেরোয়া ইউনিয়নের আনোয়ার হোসেনের ছেলে। মাত্র ছয় মাস আগে বিয়ে করেছেন মুরাদ। তিনি বাবা-মায়ের একমাত্র সন্তান ছিলেন।

নিহতের পরিবার সূত্রে জানা গেছে, তিন বছর আগে সৌদি আরব থেকে বাড়িতে ফেরেন মুরাদ হোসেন। ছয় মাস আগে বিয়ে করেন। এরপর পাঁচ লাখ টাকা ঋণ করে তিন মাস আগে আবারো সৌদি আরব যান তিনি।

আরো জানা গেছে, গত ১২ ডিসেম্বর ফার্নিচার দোকানের কাজ শেষে মোটরসাইকেলে বাসায় ফিরছিলেন মুরাদ। ঐ সময় বিপরীত দিক থেকে বেপরোয়া গতিতে আসা একটি মাইক্রোবাসের ধাক্কায় তিনি আহত হন। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শুক্রবার মুরাদের মৃত্যু হয়।

এদিকে শুক্রবার রাতেই ছেলের মৃত্যুসংবাদ শুনে শোকে অজ্ঞান হয়ে পড়েন মুরাদ হোসেনের মা। তিনি বর্তমানে রায়পুর সরকারি হাসপাতালর চিকিৎসাধীন।

কেরোয়া ইউনিয়নের মেম্বার আবুল কালাম কালু মুন্সি জানান, মুরাদ হোসেনের লাশ দ্রুত দেশে আনার চেষ্টা করা হচ্ছে।