ব্রেকিং:
টেলিটকে ফাইভ-জির গতি উঠলো সেকেন্ডে ১৫১২ এমবিপিএস ভোটকেন্দ্রে টাকা দিতে মেয়রের জোরাজুরি, নিল না পুলিশ আগামী দুই অধিবেশনের মধ্যে ইসি গঠনের আইন আসছে: আইনমন্ত্রী স্থায়ী কমিটির ভূমিকায় সন্দিহান বিএনপির কর্মীরা দীঘিনালায় ম্যাজিস্ট্রেটের গাড়িতে হামলা, ১৬ জন আহত আজও রাস্তায় শিক্ষার্থীরা, চেক করছে ড্রাইভিং লাইসেন্স ওমিক্রন নিয়ে সতর্ক হওয়া প্রয়োজন: ডব্লিউএইচওর প্রধান বিজ্ঞানী কৃষি ও কৃষকের উন্নয়নে সরকার সচেষ্ট: আইসিটি প্রতিমন্ত্রী খালেদার চিকিৎসা নিয়ে নেতা-চিকিৎসকদের সমন্বয়হীনতায় ক্ষুব্ধ তারেক বৈদেশিক বিনিয়োগে বাংলাদেশের গুরুত্ব দিন দিন বাড়ছে: প্রধানমন্ত্রী জাল ভোট দিতে এসে ধরা, ছয় মাসের জেল ইয়াবা দেখে ফেলায় সহপাঠীকে নৃশংস হত্যা সমুদ্র দূষণে শাস্তি বাড়িয়ে সংসদে বিল পাস পুরুষশূন্য কেন্দ্রে নারীদের দীর্ঘ সারি বাংলাদেশের নারীরা সারাবিশ্বে নিজেদের যোগ্যতার পরিচয় দিচ্ছে আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা ১ জানুয়ারি, মিলবে বিআরটিসি বাস সার্ভিস ৮৩ শতাংশ নারীই মনে করেন ‘বউ পেটানো ঠিক’ ঢাকায় বিনিয়োগ শীর্ষ সম্মেলন উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী দেহব্যবসা করে চালিয়েছেন পড়াশোনা, জিতেছেন সুন্দরী প্রতিযোগিতায় যে কারণে পেছাল আবরার হত্যা মামলার রায়
  • সোমবার   ২৯ নভেম্বর ২০২১ ||

  • অগ্রাহায়ণ ১৫ ১৪২৮

  • || ২২ রবিউস সানি ১৪৪৩

গোপন ভিডিও ছড়ানোর ভয় দেখিয়ে শিক্ষিকাকে একাধিকবার ধর্ষণ

নোয়াখালী সমাচার

প্রকাশিত: ২৭ অক্টোবর ২০২১  

গাজীপুরে একটি বেসরকারি স্কুলের সহকারী শিক্ষিকাকে ধর্ষণ ও ভিডিও ধারণ করা মামলায় প্রধান শিক্ষককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার ভোরে টাঙ্গাইলের মির্জাপুর উপজেলার ওয়ার্শী ইউনিয়ন পাইকপাড়া এলাকায় শ্বশুরবাড়ি থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতার ৪০ বছর বয়সী সাদেকুল ইসলাম সেলিম মির্জাপুরে সৃজনশীল স্কুল অ্যান্ড কলেজের প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান শিক্ষক।

জয়দেবপুর থানার ওসি মাহতাব উদ্দিন জানান, সহকারী শিক্ষিকাকে ধর্ষণের আসামি প্রধান শিক্ষক সেলিমকে মির্জাপুর থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুরে তাকে গাজীপুর জেলা আদালতে পাঠানো হয়। পরে তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেয় আদালত।

২৭ জুন বিকেল ৩টার দিকে স্কুলের অ্যাসাইনমেন্ট জমা নেয়ার কথা বলে ওই শিক্ষিকাকে ধর্ষণ ও গোপনে ভিডিও ধারণ করেন সেলিম। পরে ফেসবুকে ছড়িয়ে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে একাধিকবার ধর্ষণ করেন। এ ঘটনায় ১ অক্টোবর জয়দেবপুর থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেন ভুক্তভোগী শিক্ষিকা।