ব্রেকিং:
অসাধু আইপিটিভি: সাংবাদিকতার নামে চাঁদাবাজি! রাস্তা থেকে মাদ্রাসার ছাত্রী অপহরণ, ৯দিন পর উদ্ধার! আড়াই হাজার ইয়াবাসহ পুলিশ সদস্য আটক একবার সুযোগ দিন ১০ বছরের উন্নয়ন ৫ বছরে করবোঃ চেয়ারম্যান প্রার্থী কক্সবাজারের রিসোর্টে চান্দিনার এক নারীর মরদেহ ‘লিঙ্গ ভিত্তিক নির্যাতন প্রতিরোধ’ নিয়ে কর্মশালা কুমিল্লায় একই লাইনে দুই ট্রেন নিয়োগ প্রক্রিয়া কালিমাযুক্ত করতে দেয়া হবে না শেকলবন্দী কলেজছাত্র আগুনে দাহ কু.বি বাস স্টাফের সাথে এ্যাম্বুলেন্স চালকদের সংঘর্ষ নতুন করে ৮৯ লাখ ডোজ টিকার বরাদ্দ পেল বাংলাদেশ নারী নেতৃত্বের নেটওয়ার্ক গঠনের আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর শাহজালালে করোনার পরীক্ষামূলক পরীক্ষা শুরু ভারতে ছুটছে মিয়ানমারের হাজার হাজার মানুষ মানবকল্যাণের প্রকল্পে সরকার নিজস্ব অর্থায়ন করবে: এলজিআরডিমন্ত্রী মৎস্যজীবীদের স্বার্থেই ইলিশ ধরায় নিষেধাজ্ঞা: প্রাণিসম্পদমন্ত্রী চিতা বিড়ালের ‘বিরল প্রসব’ ফেনীতে লাইসেন্স ছাড়াই চলছে ১৯ হাজার মোটরসাইকেল অপপ্রচার-অপরাজনীতি সত্ত্বেও ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে সফল হয়েছি অপহৃত দশম শ্রেণির ছাত্রী ৯ দিন পর উদ্ধার, গ্রেফতার ১
  • বৃহস্পতিবার   ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১ ||

  • আশ্বিন ৮ ১৪২৮

  • || ১৪ সফর ১৪৪৩

চালু হতে না হতেই রোগীদের দখলে দুই হাসপাতালের ১৪ আইসিইউ

নোয়াখালী সমাচার

প্রকাশিত: ৩০ জুলাই ২০২১  

চট্টগ্রাম নগরীর বেসরকারি পার্কভিউ হাসপাতালে আইসিইউ (ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিট) শয্যা ছিল ১২টি। রোগীর চাপ বেড়ে যাওয়ায় বৃহস্পতিবার সকালে যুক্ত করা হয় আরো ১২ শয্যা। আর যুক্ত করার সঙ্গে সঙ্গেই ভর্তি হন ছয় রোগী। পরবর্তীতে বাকি ছয় শয্যাও পূর্ণ হয়ে যায় রোগীতে।

অপরদিকে, চট্টগ্রাম ইন্টারন্যাশনাল মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে সাধারণ শয্যা থাকলেও ছিল না আইসিইউ শয্যা। বর্তমান সংকটময় পরিস্থিতি বিবেচনায় বৃহস্পতিবার সকালে দুটি আইসিইউ শয্যা চালু করে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। আর চালুর ঘণ্টাখানেকের মধ্যেই সেই দুটিও ভর্তি হন রোগী। অর্থ্যাৎ দুই হাসপাতালে নতুন যুক্ত হওয়া ১৪ শয্যাই চলে গেছে রোগীদের দখলে।

জানতে চাইলে পার্কভিউ হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) ডা. এটিএম রেজাউল করিম বলেন, রোগীদের হাহাকার দেখে খুব অল্প সময়ের মধ্যে ১২টি আইসিইউ শয্যা বাড়ানো হয়। আর এ বাড়ানোর খবর ছড়িয়ে পড়লে বিভিন্ন স্থান থেকে মানুষ যোগাযোগ করতে শুরু করে। মাত্র কয়েকঘণ্টার মধ্যে সবগুলো শয্যাই রোগীতে পূর্ণ হয়ে যায়।

চট্টগ্রাম ইন্টারন্যাশনাল মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের উপ-পরিচালক ডা. আব্দুর রাজ্জাক খান বলেন, আমাদের হাসপাতালে আগে আইসিইউ শয্যা ছিল না। বর্তমান পরিস্থিতি বিবেচনায় নিয়ে দুটি আইসিইউ শয্যা যুক্ত করা হয়। আর যুক্ত করার কিছুক্ষণের মধ্যেই দুটিতে রোগী ভর্তি হয়। আরো দুটি বাড়ানো হচ্ছে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, আইসিইউ শয্যা তো নেই। করোনা রোগীর চিকিৎসায় খালি নেই সরকারি-বেসরকারি হাসপাতালের সাধারণ শয্যাগুলোও। অনেকে একটি শয্যার জন্য ঘুরে বেড়াচ্ছেন এক হাসপাতাল থেকে অন্য হাসপাতাল। এমন সংকটময় পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বিগ্ন স্বাস্থ্য বিভাগসহ হাসপতাল সংশ্লিষ্টরা।

এদিকে, চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতালে আরো একটি করোনা আইসোলেশন ওয়ার্ড চালু করা হয়েছে। এর পাশাপাশি চলছে এইচডিইউ (হাই ডিপেন্ডেনসি ইউনিট) স্থাপনের কাজ। যা শিগগিরই চালু করা হবে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা।

হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা তানজিমুল ইসলাম বলেন, রোগীর চাপ বাড়ায় কেন্দ্রীয় অক্সিজেন সরবরাহের ব্যবস্থা রেখে ১৮ শয্যার আরো একটি করোনা আইসোলেশন ওয়ার্ড চালু করা হয়েছে। এছাড়া আট শয্যার এইচডিইউ বসানোর কাজ চলছে। যা আগামী সপ্তাহে চালু করা হতে পারে।

স্বাস্থ্য বিভাগ বলছে ক্রমশ অবনতির দিকে যাচ্ছে চট্টগ্রামের করোনা পরিস্থিতি। গত ২৪ ঘণ্টায় তিন হাজার ৯২৩ জনের নমুনা পরীক্ষা শেষে এক হাজার ৪৬৬ জনের শরীরে করোনাভাইরাসের অস্তিত্ব পাওয়া গেছে। এছাড়া মৃত্যু হয়েছে আরো ৯ জনের। এ নিয়ে জেলায় এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন ৮১ হাজার ২১৭ হন। এর মধ্যে মৃত্যুবরণ করেছেন ৯৫৮ জন।