ব্রেকিং:
টেলিটকে ফাইভ-জির গতি উঠলো সেকেন্ডে ১৫১২ এমবিপিএস ভোটকেন্দ্রে টাকা দিতে মেয়রের জোরাজুরি, নিল না পুলিশ আগামী দুই অধিবেশনের মধ্যে ইসি গঠনের আইন আসছে: আইনমন্ত্রী স্থায়ী কমিটির ভূমিকায় সন্দিহান বিএনপির কর্মীরা দীঘিনালায় ম্যাজিস্ট্রেটের গাড়িতে হামলা, ১৬ জন আহত আজও রাস্তায় শিক্ষার্থীরা, চেক করছে ড্রাইভিং লাইসেন্স ওমিক্রন নিয়ে সতর্ক হওয়া প্রয়োজন: ডব্লিউএইচওর প্রধান বিজ্ঞানী কৃষি ও কৃষকের উন্নয়নে সরকার সচেষ্ট: আইসিটি প্রতিমন্ত্রী খালেদার চিকিৎসা নিয়ে নেতা-চিকিৎসকদের সমন্বয়হীনতায় ক্ষুব্ধ তারেক বৈদেশিক বিনিয়োগে বাংলাদেশের গুরুত্ব দিন দিন বাড়ছে: প্রধানমন্ত্রী জাল ভোট দিতে এসে ধরা, ছয় মাসের জেল ইয়াবা দেখে ফেলায় সহপাঠীকে নৃশংস হত্যা সমুদ্র দূষণে শাস্তি বাড়িয়ে সংসদে বিল পাস পুরুষশূন্য কেন্দ্রে নারীদের দীর্ঘ সারি বাংলাদেশের নারীরা সারাবিশ্বে নিজেদের যোগ্যতার পরিচয় দিচ্ছে আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা ১ জানুয়ারি, মিলবে বিআরটিসি বাস সার্ভিস ৮৩ শতাংশ নারীই মনে করেন ‘বউ পেটানো ঠিক’ ঢাকায় বিনিয়োগ শীর্ষ সম্মেলন উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী দেহব্যবসা করে চালিয়েছেন পড়াশোনা, জিতেছেন সুন্দরী প্রতিযোগিতায় যে কারণে পেছাল আবরার হত্যা মামলার রায়
  • সোমবার   ২৯ নভেম্বর ২০২১ ||

  • অগ্রাহায়ণ ১৫ ১৪২৮

  • || ২২ রবিউস সানি ১৪৪৩

শামিকে পাকিস্তানের চর বললো ভারতীয় উগ্র সমর্থকরা

নোয়াখালী সমাচার

প্রকাশিত: ২৫ অক্টোবর ২০২১  

টি-২০ বিশ্বকাপে প্রথমবারের মত চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী পাকিস্তানের কাছ হেরেছে ভারত। চিরশত্রু পাকিস্তানের কাছে ১০ উইকেটের এত বড় হার কিছুতেই মেনে নিতে পারছেন না ভারতীয় সমর্থকরা। সেই হারের যন্ত্রণা মেটাতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে উদোম সমালোচনায় মেতে উটেছে ভারতীয় উগ্র সমর্থকরা।

রোববার দুবাইয়ে ব্যাটিংয়ে এক বিরাট কোহলি ও রিশাভ পান্ত ছাড়া কেউই রান করতে পারেননি। বোলিং একটু ভালো করেছেন জাসপ্রিত বুমরাহ। বাদ বাকি সবাই ছিলেন চরম ব্যর্থ। সমালোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে তাই বাকি ৮ ক্রিকেটার।

ইনিংসের ১৮তম ওভারে পাঁচ বলে ১৭ রান দিয়ে ফেলেন মোহাম্মদ শামি। তাতেই ‘বলির পাঠা’ শামি। তার ওপর মুসলিম হওয়ায় অনেক উগ্রপন্থী সমর্থকদের রোষানলে এখন এই পেসার।

ম্যাচ শেষের পরপরই শামির ইনস্টাগ্রামে হামলে পড়েন ওই উগ্র সমর্থকরা। একজন তাকে বিশ্বাসঘাতক বলে লেখার অযোগ্য গালাগাল করেন। কেউ তাকে বলেছেন, ‘ভারত দলের পাকিস্তানি খেলোয়াড়’। 

কেউ আবার লিখেছেন, ‘পাকিস্তানি দলের দ্বাদশ খেলোয়াড়’। 

একজন আবার ছাড়িয়ে গেছেন সমস্ত মাত্রা। সরাসরি ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হেনে লিখেছেন দিয়েছেন, ‘মুসলিম’।

এখানেই শেষ নয়, তার বিরুদ্ধে এক ভারতীয় ক্রিকেট সমর্থক এনেছেন ম্যাচ পাতানোর মতো বড় অভিযোগ। তিনি লেখেন, ‘মহারাজ, নিজের জাতভাইদের জেতানোর জন্য পাকিস্তান থেকে কত টাকা খেয়েছ? অন্তত একটু লজ্জা দেখাও’। আরেকজন তাকে পাকিস্তানের চর বলে পরামর্শ দিয়েছেন সেদেশেই চলে যেতে।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে শামির প্রতি এই বিদ্বেষপূর্ণ মন্তব্যে ভরা একটি ছবি আবার রিটুইট করেছেন ক্রীড়াসাংবাদিক ও বিশ্লেষক জ্যারড কিম্বার। 

ব্যথিত কিম্বার এরপর উগ্রপন্থীদের উদ্দেশ্য করে লেখেন, ‘আজ যাকে আপনারা পাকিস্তানি বলে গালি দিচ্ছেন, সর্বশেষ দেখায় এই শামিই ভারতের সেরা বোলার ছিলেন। ২০১৫ বিশ্বকাপে শামির স্পেলের কাছে ধরাশায়ী হয়েছিল পাকিস্তান’।

শুধু কিম্বার নয়, আরো অনেক সাংবাদিককে শামির পাশে এসে দাঁড়াতে দেখা গেছে। অনেকে আবার পুরো ভারতীয় ক্রিকেট দলের প্রশ্ন রেখেছেন, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শুধুমাত্র মুসলিম হওয়ার জন্য এত সমালোচনার শিকার হওয়া শামির জন্য সবাই কেন এগিয়ে আসছে না।

বর্ণবিদ্বেষের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে বিশ্বজুড়ে চলছে ‘ব্ল্যাক লাইভস ম্যাটার’ আন্দোলন। গত ইউরোতে নিজের দলের এক ফুটবলার বর্ণবৈষম্যের শিকার হলে, ইংল্যান্ড তারকা হ্যারি কেইন বলেছিলেন, তাদের অমন কুৎসিত মানসিকতার সমর্থক প্রয়োজন নেই। সেই প্রসঙ্গ টেনে সাংবাদিক পার্থ এমএন লিখেছেন, ‘আজ পাকিস্তানের কাছে হারার পর শামিকে অপদস্ত করা হলো। সময় এসে গেছে, ভারতীয় দলের হিন্দু ক্রিকেটারদের মুসলিম সতীর্থদের পাশে এসে দাঁড়ানোর’।

দ্য ওয়াশিংটন পোস্টের কলামিস্ট বরখা দত্ত। তিনি এক টুইটে লেখেন, ‘ভারতীয় ক্রিকেট দল ব্ল্যাক লাইভস ম্যাটার আন্দোলনে শরীক হয়ে, হাঁটু গেঁড়ে প্রতিবার করল। অথচ ভারতীয়দের সঙ্গে এর কোনো সংযোগ নেই। কিন্তু মোহাম্মদ শামিকে ধর্মীয়ভাবে অনলাইনে হেয় করা হলো, আর সবাই চুপ। আমরা আরো ভালো কিছু আশা করেছিলাম বিরাট কোহলি’।