ব্রেকিং:
কেন মানুষ প্রথম প্রেম ভুলতে পারে না বৃষ্টিপাত নিয়ে আজ যে দুঃসংবাদ জানালো আবহাওয়া অফিস আমরা এক দেশপ্রেমিক জননেতাকে হারালাম : প্রধানমন্ত্রী স্কুলে কোরআন শিক্ষা বাধ্যতামূলক করলো পাকিস্তান ধারণার চেয়েও ভয়ঙ্কর করোনার ডেল্টা ভ্যারিয়েন্ট: সিডিসি আশপাশের শ্রমিকদের দিয়েই চলবে কারখানা হেলেনার বিরুদ্ধে পল্লবী থানায় আরেক মামলা সিনহা হত্যার এক বছর: ‘প্রদীপের’ নিচেই ছিল অন্ধকার বিশ্বব্যাপী করোনায় মুত্যু কমলেও বেড়েছে আক্রান্ত চালু হতে না হতেই রোগীদের দখলে দুই হাসপাতালের ১৪ আইসিইউ বিশ্বের সাইবার সিকিউরিটির জন্য সবচেয়ে বড় হুমকি যুক্তরাষ্ট্র: চী বিষ দিয়ে যুবককে হত্যা করলেন শ্বশুরবাড়ির লোকজন নিয়মনীতিহীন আইপি টিভির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে: তথ্যমন্ত্রী প্রিমিয়ার লিগ নিয়ে বাফুফের তামাশা, শুরুর এক ঘণ্টা আগে স্থগিত জাতীয় পরিচয়পত্র না থাকা ব্যক্তিরা টিকা পাবেন বিশেষ প্রক্রিয়ায় দর্শকশূন্য ব্যতিক্রমধর্মী ‘ইত্যাদি’ আজ বাংলাদেশে বিনিয়োগে সর্বোচ্চ মুনাফা কৃষিতে ২৮ হাজার কোটি টাকা ঋণ দেবে ব্যাংকগুলো মাঠ পর্যায় থেকেই ভূমির ভুল রেকর্ড সংশোধনের নির্দেশ সামাজিক মাধ্যমে অপরাধ দমনে সাইবার পেট্রোলিং টিম
  • শনিবার   ৩১ জুলাই ২০২১ ||

  • শ্রাবণ ১৬ ১৪২৮

  • || ২০ জ্বিলহজ্জ ১৪৪২

তারেককে টাকা দিয়েও পদ পাননি বহু নেতা

নোয়াখালী সমাচার

প্রকাশিত: ১৯ জুলাই ২০২১  

একই পদে একাধিক প্রার্থীর মধ্যে যে বেশি টাকা দিচ্ছেন তাকেই দেয়া হচ্ছে বিএনপির সাংগঠনিক পদ। এর ফলে বিপুল পরিমাণ টাকা দিয়ে পদ বঞ্চিত হয়েছেন বহু নেতাকর্মী। আর এসব টাকার বেশি অংশই যাচ্ছে লন্ডনে পলাতক দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের কাছে। 

লন্ডন বিএনপির একটি বিশ্বস্ত সূত্রে জানা গেছে, হাওয়া ভবনের সাবেক কর্মকর্তা রকিবুল ইসলাম বকুল টাকা লেনদেনের বিষয়টি অত্যন্ত সতর্কতার সঙ্গে নিয়ন্ত্রণ করছেন। 

এদিকে সম্প্রতি যুবদলের খুলনা বিভাগের উপজেলাগুলোর কমিটি গঠন হয়েছে। টাকা দিয়েও এসব কমিটিতে পদ না পাওয়া অনেকেই নেতাদের কাছে অভিযোগ নিয়ে ঘুরছেন। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকেও ভাইরাল হয়েছে টাকা লেনদেনের স্ক্রিনশট।

অনুসন্ধানে জানা যায়, তৃণমূলকে শক্তিশালী করতে যোগ্য ও ত্যাগী নেতাদের নেতৃত্বে আনতে দেশের সব বিভাগের মতো খুলনায় যুবদলের টিম গঠন করে দেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান। তবে খুলনার টিম চলছে ছাত্রদলের সাবেক কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি ও হাওয়া ভবনের সাবেক কর্মকর্তা রকিবুল ইসলাম বকুলের নির্দেশেই। তারা ক্যাশিয়ার নিয়োগের মাধ্যমে পদ বিক্রি করে আয় করছেন কোটি কোটি টাকা।

সূত্র মতে, বিএনপির হাইকমান্ডের পক্ষ থেকে ত্যাগী ও যোগ্য নেতৃত্বের মাধ্যমে যুবদল পুনর্গঠনের জন্য পৃথক টিম গঠন করে দেয়া হয়েছে। আর এসব টিমের বিরুদ্ধেই উঠেছে অভিযোগ। নগদ টাকা, মদ-ফেনসিডিল ও উপঢৌকনের বিনিময়ে পদ বিক্রির একাধিক প্রমাণ পাওয়া গেছে।

সংগঠনের স্থানীয় নেতারা জানান, যুবদলের খুলনা বিভাগীয় টিমের পদ বাণিজ্য এখন ওপেন সিক্রেট। এ টিমে বকুলের ক্যাশিয়ার হিসেবে মুখ্য ভূমিকা পালন করছেন যুবদলের কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি ও খুলনা মহানগর যুবদলের সভাপতি মাহবুব হাসান পিয়ারু এবং খুলনা জেলা যুবদলের সভাপতি শামীম কবির। এ টিমে আরো পাঁচজন আছেন। তারাও কম-বেশি বাণিজ্য করছেন। তবে সেটা গোপনে। আর শামীম-পিয়ারু প্রকাশ্যে টাকা তুলছেন বকুলের নামে।

যুবদলের খুলনা টিমের একজন নেতা নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, বকুল বলেছে টাকা তুলে লন্ডনে ‘ভাইয়াকে’ পাঠানো হচ্ছে। সব বিভাগীয় টিম টাকা তুলছে। ভাইয়া (তারেক জিয়া) ফান্ড রেইজ করছেন। এটি পার্টির দুর্দিনে লাগবে!