ব্রেকিং:
কোটাবিরোধীতায় অশুভ শক্তি নেমেছে : ওবায়দুল কাদের প্রান্তিক মানুষের চিকিৎসাসেবা নিশ্চিত করতে সব করব : সামন্ত লাল চোরাই মোবাইলের স্বর্গরাজ্য চট্টগ্রামের রিয়াজউদ্দিন বাজার বৃষ্টির পানিতে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে ২ ফার্নিচার কর্মচারীর মৃত্যু ২২ কেজির কোরাল বিক্রি হলো ২৬ হাজার টাকায় আন্দোলনরত শিক্ষকদের সঙ্গে বৈঠকে ওবায়দুল কাদের প্রতিবন্ধী তরুণকে কুকুর লেলিয়ে হত্যা করল ইসরায়েলি সেনারা ফেনী বন্যাদুর্গত ৭০০ পরিবার পেলো ত্রাণ সামগ্রী এক সপ্তাহে ৭৪১১ কোটি টাকা বাজার মূলধন হারালো ডিএসই রাজধানীতে পিতার ১ কোটি ৬৬ লাখ টাকা চুরি করলেন মেয়ে নৈশ প্রহরীকে বেঁধে বাজারে দুর্ধর্ষ ডাকাতি পচা কাঠের পোকা, দাম ৭৫ লাখ! জানেন কেন? দেশে ফিরেছেন ৬৭৯৭৪ হাজি সারাদেশে ইন্টারনেটে ধীরগতি আন্দোলনকারীরা বক্তব্য দিতে চাইলে আপিল বিভাগ বিবেচনায় নেবেন সচেতনতার অভাবে অনেক মানুষ বিভিন্ন দুরারোগ্য ব্যাধিতে আক্রান্ত জনদুর্ভোগ সৃষ্টি করলে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে : ডিএমপি গমের উৎপাদন বাড়াতে সিমিট ও মেক্সিকোর সহযোগিতা জনদুর্ভোগ সৃষ্টি থেকে বিরত থাকুন : আরাফাত বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে সমাজসেবা অধিদপ্তরের পরিচালকের শ্রদ্ধা
  • রোববার ১৪ জুলাই ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ৩০ ১৪৩১

  • || ০৬ মুহররম ১৪৪৬

১১ বছর পর হত্যা মামলার রায়, দুজনের কারাদণ্ড

নোয়াখালী সমাচার

প্রকাশিত: ৯ জুলাই ২০২৪  

নোয়াখালীর সুবর্ণচরে কৃষক ইউছুফ (৫০) হত্যার ১১ বছর পর রায় ঘোষণা করেছেন আদালত। রায়ে হত্যা মামলার আসামি দুই ভাইকে ১০ বছরের কারাদণ্ড এবং একই সঙ্গে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

সোমবার (৮ জুলাই) নোয়াখালী বিশেষ জজ আদালতের বিচারক এএনএম মোর্শেদ খান এ রায় ঘোষণা করেন। দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- সুবর্ণচর উপজেলার জাহাজমারা গ্রামের আবদুস সাত্তার (৪৩) ও স্বপন (৩৩)। 

জানা যায়, ২০১৩ সালের ১৮ জুন বিকালে নিহত ইউছুফের ভাই আবদুর রহিমের গরু প্রতিবেশী জাহেরের ধানক্ষেত নষ্ট করে। এতে জাহের বাছুরটি বেঁধে রাখেন। খবর পেয়ে রহিমের ছেলে মামুন বাছুর আনতে গেলে জাহের তাকে মেরে তাড়িয়ে দেন। এ ঘটনার পর আবদুর রহিম ওই বাড়িতে গেলে জাহের তাকেও মারধর করেন। এ সময় আবদুর রহিমের ভাই ইউছুফ ও বেলাল এলে তাদেরও মারধর করেন। আহত ইউছুফ চিকিৎসা নিয়ে বাড়ি ফেরার পথে রাতের বেলা আনোয়ার হোসেন, আবদুল মান্নান, আবুল কাশেম, আবদুস সাত্তারসহ বেশ কয়েকজন তার ওপর হামলা চালায়। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যায়। উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ঢাকায় নেওয়ার পথে তিনি মৃত্যুবরণ করেন। পরদিন নিহত ইউছুফের স্ত্রী আনোয়ারা বেগম বাদী হয়ে ১১ জনের নাম উল্লেখ করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। 

মামলার রাষ্ট্রপক্ষের কৌঁসুলি (পিপি) এমদাদ হোসেন কৈশোর বলেন, ‘রায়ে আমরা সন্তুষ্ট নই। মামলার প্রধান আসামিরা খালাস পেয়েছে। আমরা উচ্চ আদালতে আপিল করব।’ 

নিহতের ভাতিজা মামুন বলেন, ‘এই মামলার প্রধান আসামিরা খালাস পেয়েছে। এই রায়ে আমরা মর্মাহত। আমার চাচার একমাত্র ছেলে মামলা চলাকালীন স্ট্রোক করে মারা গিয়েছেন। আমাকেও হত্যার হুমকি দেওয়া হচ্ছে। আমরা উচ্চ আদালতে যাব।’