ব্রেকিং:
কেন মানুষ প্রথম প্রেম ভুলতে পারে না বৃষ্টিপাত নিয়ে আজ যে দুঃসংবাদ জানালো আবহাওয়া অফিস আমরা এক দেশপ্রেমিক জননেতাকে হারালাম : প্রধানমন্ত্রী স্কুলে কোরআন শিক্ষা বাধ্যতামূলক করলো পাকিস্তান ধারণার চেয়েও ভয়ঙ্কর করোনার ডেল্টা ভ্যারিয়েন্ট: সিডিসি আশপাশের শ্রমিকদের দিয়েই চলবে কারখানা হেলেনার বিরুদ্ধে পল্লবী থানায় আরেক মামলা সিনহা হত্যার এক বছর: ‘প্রদীপের’ নিচেই ছিল অন্ধকার বিশ্বব্যাপী করোনায় মুত্যু কমলেও বেড়েছে আক্রান্ত চালু হতে না হতেই রোগীদের দখলে দুই হাসপাতালের ১৪ আইসিইউ বিশ্বের সাইবার সিকিউরিটির জন্য সবচেয়ে বড় হুমকি যুক্তরাষ্ট্র: চী বিষ দিয়ে যুবককে হত্যা করলেন শ্বশুরবাড়ির লোকজন নিয়মনীতিহীন আইপি টিভির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে: তথ্যমন্ত্রী প্রিমিয়ার লিগ নিয়ে বাফুফের তামাশা, শুরুর এক ঘণ্টা আগে স্থগিত জাতীয় পরিচয়পত্র না থাকা ব্যক্তিরা টিকা পাবেন বিশেষ প্রক্রিয়ায় দর্শকশূন্য ব্যতিক্রমধর্মী ‘ইত্যাদি’ আজ বাংলাদেশে বিনিয়োগে সর্বোচ্চ মুনাফা কৃষিতে ২৮ হাজার কোটি টাকা ঋণ দেবে ব্যাংকগুলো মাঠ পর্যায় থেকেই ভূমির ভুল রেকর্ড সংশোধনের নির্দেশ সামাজিক মাধ্যমে অপরাধ দমনে সাইবার পেট্রোলিং টিম
  • শনিবার   ৩১ জুলাই ২০২১ ||

  • শ্রাবণ ১৬ ১৪২৮

  • || ২০ জ্বিলহজ্জ ১৪৪২

দাফনের ৬ দিন পর অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূর লাশ উত্তোলন

নোয়াখালী সমাচার

প্রকাশিত: ২০ জুলাই ২০২১  

নোয়াখালীর চাটখিলে ফারজানা আক্তার প্রকাশ লাবনী (২২) নামের এক অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূকে দাফনের ৬দিন পর কবর থেকে ময়নাতদন্তের জন্য লাশ উত্তোলন করা হয়েছে। 

সোমবার, ১৯ জুলাই দুপুর ৩টার দিকে আদালতের নির্দেশে নোয়াখালী জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যজিস্ট্রেট আসাদুজ্জামান রনির উপস্থিতিতে চাটখিল থানা পুলিশ উপজেলার নোয়াখলা গ্রামের পারিবারিক কবরস্থান থেকে লাশটি উত্তোলন করা হয়।  

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গত ১৩ জুলাই রাত আনুমানিক ১১টার দিকে ৮ মাসের অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূ লাবনী ভাড়া বাসায় মারা যান। সে তার স্বামী ফয়সাল হোসেনের চাকরির সুবাদে নোয়াখালী সদরে ভাড়া বাসায় বসবাস করতেন। গত ১৩ জুলাই লাবনী আত্মহত্যা করেছে বলে দাবী করে তার স্বামী। এতে সুধারাম থানা পুলিশ সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি করে। পরে লাবনীর অভিভাবকের আগ্রহে ময়নাতদন্ত ছাড়া চাটখিলের নোয়াখলা গ্রামের বাড়ির পারিবারিক কবরস্থানে তার লাশ দাফন করা হয়। 

স্থানীয়রা বলছে, নিহতের শরীরে নানা ধরনের নির্যাতনের দাগ ও ক্ষত চিহেৃর ছবি ফেসবুকসহ নানা সামাজিক মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে তোলপাড় সৃষ্টি হয়। পরে আদালতে আবেদন করা হলে লাশের ময়নাতদন্তের জন্যে নির্দেশ দেন আদালত।


সুধারাম থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ সাহেদ উদ্দিন জানান, প্রথমে নিহতের পরিবার ময়নাতদন্ত ছাড়া লাশ দাফনের জন্য আবেদন করে। ঘটনার ৫দিন পর নিহতের পরিবার লাশ উত্তোলন করে ময়না তদন্ত করতে চাইলে আদালতের নির্দেশে লাশ উত্তোলন করে ময়নাতদন্তের জন্য নোয়াখালীর আবদুল মালেক মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।
 
নোয়াখালী জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যজিস্ট্রেট আসাদুজ্জামান রনি বলেন, আদালতের নির্দেশে লাশ উত্তোলন করে সুরতহাল রিপোর্ট করে হাসপাতলে পাঠানো হয়েছে।