ব্রেকিং:
আন্দোলনকারীরা বক্তব্য দিতে চাইলে আপিল বিভাগ বিবেচনায় নেবেন সচেতনতার অভাবে অনেক মানুষ বিভিন্ন দুরারোগ্য ব্যাধিতে আক্রান্ত জনদুর্ভোগ সৃষ্টি করলে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে : ডিএমপি গমের উৎপাদন বাড়াতে সিমিট ও মেক্সিকোর সহযোগিতা জনদুর্ভোগ সৃষ্টি থেকে বিরত থাকুন : আরাফাত বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে সমাজসেবা অধিদপ্তরের পরিচালকের শ্রদ্ধা মোদির সাথে বিমসটেক পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের সাক্ষাত গাজায় শান্তি রক্ষা করবে আরব যৌথ বাহিনী: বাইডেন কোটা আন্দোলন প্রশ্নে আইনমন্ত্রী কি বললেন? ‘পুলিশের গুলিতে কোনো শিক্ষার্থী মারা যায় নি" ভারত থেকে আমদানি হলো ১১টি বুলেটপ্রুফ সামরিক যান সৌদি আরবে হামলার হুমকি, স্পর্শকাতর স্থানের ভিডিও প্রকাশ পরকীয়া করতে গিয়ে ধরা, সেই স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা বহিষ্কার বাংলাদেশ-চীনের মধ্যে ২১ চুক্তি ও সাত ঘোষণাপত্র সই লক্ষ্মীপুরের কমলনগরে প্রযুক্তি বিষয়ক কুইজ প্রতিযোগিতা ঝিনুকে তৈরি মুক্তার গহনা প্রধানমন্ত্রীর হাতে লক্ষ্মীপুরে হাত-পা বেঁধে প্রবাসীর স্ত্রীকে হত্যার পর ডাকাতি নোয়াখালীতে প্রকৌশলীসহ সেই চার শিক্ষক কারাগারে নোয়াখালীতে পরীক্ষা হলে হট্টগোল-খোশগল্প চট্টগ্রামে এডিসি কামরুল ও তার স্ত্রীর সম্পদ ক্রোকের আদেশ
  • শনিবার ১৩ জুলাই ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ২৮ ১৪৩১

  • || ০৫ মুহররম ১৪৪৬

ইউটিউব দেখে শিখেছেন মন্ত্র, ধারণ করেছেন ৪০ নারীর আপত্তিকর ভিডিও

নোয়াখালী সমাচার

প্রকাশিত: ২৩ অক্টোবর ২০২১  

হবিগঞ্জের বানিয়াচং-এ অপচিকিৎসা ও নারীদের আপত্তিকর ভিডিও ধারণ করে ব্ল্যাকমেইলের অভিযোগে এক ভণ্ড কবিরাজকে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব। এ সময় তার মোবাইল, কম্পিউটার ও মেমোরি কার্ড থেকে ৪০ জন নারীর আপত্তিকর ভিডিও উদ্ধার করা হয়েছে।

গ্রেফতারকৃত আহাদুর রহমান ঐ উপজেলার কুর্শা খাগাউড়া গ্রামের শোল্লুক মিয়ার ছেলে। শুক্রবার দুপুরে একই উপজেলার ইমামবাড়ি বাজার থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

র‍্যাব-৯ হবিগঞ্জ সিপিসির কমান্ডার লেফটেন্যান্ট মোহাম্মদ নাহিদ হাসান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, কবিরাজ আহাদুর রহমান পড়াশুনা করেছেন পঞ্চম শ্রেণি পর্যন্ত। কবিরাজি করার আগে হবিগঞ্জ ও মৌলভীবাজারে বিভিন্ন হোটেল-রেস্টুরেন্টে ওয়েটারের কাজ করতেন। দুই বছর আগে ইউটিউব দেখে যাদু-মন্ত্র শিখে কবিরাজিকে পেশা হিসেবে বেছে নেন।  ইমামবাড়ি বাজারে চেম্বার বসিয়ে বান, যাদু, চালান, স্বামী-স্ত্রীর অমিল, বিয়ে না হওয়া, গর্ভ নষ্ট না হওয়াসহ বিভিন্ন রোগের অপচিকিৎসা শুরু করেন।

লেফটেন্যান্ট নাহিদ জানান, অপচিকিৎসার এক পর্যায়ে প্রতারণার আরো ভয়ঙ্কর ফাঁদ তৈরি করেন ভণ্ড কবিরাজ আহাদ। গোপন রোগের চিকিৎসার নামে নারীদের ফাঁদে ফেলে আপত্তিকর ভিডিও ধারণ করতেন। পরে সেগুলো ছড়িয়ে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে মোটা অংকের টাকা আদায় করতেন। তার চেম্বার থেকে উদ্ধার হওয়া মোবাইল, কম্পিউটার ও মেমোরি কার্ডে অন্তত ৪০ জন নারীর আপত্তিকর ভিডিও পাওয়া গেছে। জিজ্ঞাসাবাদে এসব তথ্য স্বীকার করেছেন ঐ ভণ্ড কবিরাজ।

একাধিক ভুক্তভোগীর অভিযোগে শুক্রবার দুপুরে অভিযান চালিয়ে আহাদুর রহমানকে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব। ঐ সময় তার দুই সহযোগী পালিয়ে যায়। রাতেই তাকে বানিয়াচং থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।