ব্রেকিং:
অসাধু আইপিটিভি: সাংবাদিকতার নামে চাঁদাবাজি! রাস্তা থেকে মাদ্রাসার ছাত্রী অপহরণ, ৯দিন পর উদ্ধার! আড়াই হাজার ইয়াবাসহ পুলিশ সদস্য আটক একবার সুযোগ দিন ১০ বছরের উন্নয়ন ৫ বছরে করবোঃ চেয়ারম্যান প্রার্থী কক্সবাজারের রিসোর্টে চান্দিনার এক নারীর মরদেহ ‘লিঙ্গ ভিত্তিক নির্যাতন প্রতিরোধ’ নিয়ে কর্মশালা কুমিল্লায় একই লাইনে দুই ট্রেন নিয়োগ প্রক্রিয়া কালিমাযুক্ত করতে দেয়া হবে না শেকলবন্দী কলেজছাত্র আগুনে দাহ কু.বি বাস স্টাফের সাথে এ্যাম্বুলেন্স চালকদের সংঘর্ষ নতুন করে ৮৯ লাখ ডোজ টিকার বরাদ্দ পেল বাংলাদেশ নারী নেতৃত্বের নেটওয়ার্ক গঠনের আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর শাহজালালে করোনার পরীক্ষামূলক পরীক্ষা শুরু ভারতে ছুটছে মিয়ানমারের হাজার হাজার মানুষ মানবকল্যাণের প্রকল্পে সরকার নিজস্ব অর্থায়ন করবে: এলজিআরডিমন্ত্রী মৎস্যজীবীদের স্বার্থেই ইলিশ ধরায় নিষেধাজ্ঞা: প্রাণিসম্পদমন্ত্রী চিতা বিড়ালের ‘বিরল প্রসব’ ফেনীতে লাইসেন্স ছাড়াই চলছে ১৯ হাজার মোটরসাইকেল অপপ্রচার-অপরাজনীতি সত্ত্বেও ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে সফল হয়েছি অপহৃত দশম শ্রেণির ছাত্রী ৯ দিন পর উদ্ধার, গ্রেফতার ১
  • বৃহস্পতিবার   ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১ ||

  • আশ্বিন ৮ ১৪২৮

  • || ১৪ সফর ১৪৪৩

পাঁচ কারণে পুরুষেরা সঙ্গীকে মিথ্যা বলে

নোয়াখালী সমাচার

প্রকাশিত: ৭ সেপ্টেম্বর ২০২১  

যেকোনো সম্পর্কই টিকে থাকে বিশ্বাসের উপর। যদি কোন কারণে সেখানে মিথ্যা জায়গা করে নেয়, তবে সম্পর্কে বাড়ে তিক্ততা, ভাঙে বিশ্বাস। তবে সম্পর্কে মিথ্যা এড়িয়ে চলা খুব কঠিন। যদিও অনেকের স্বভাব থাকে কোনো ছাড়াই মিথ্যা বলা। আবার অনেকে বাধ্য হয়েই মিথ্যা বলেন।

নারীদের পাশাপাশি পুরুষেরাও নানা কারণে মিথ্যা বলে থাকেন। চলুন জেনে নেয়া যাক কোন পাঁচ কারণে পুরুষেরা সঙ্গীকে মিথ্যা বলে-

দ্বন্দ্ব এড়াতে

সত্যি বললে দ্বন্দ্ব বেধে যেতে পারে ভেবে অনেক পুরুষ মিথ্যার আশ্রয় নেন। কারণ সত্যিটা সব সময় সবাই হজম করতে পারেন না। তাই পরিস্থিতি বুঝে তারা সত্যিটা অনেক সময় গোপন করে যান। চিৎকার, চেচামেচি, দ্বন্দ্ব এড়াতে এবং শান্তিপূর্ণ পরিবেশ বজায় রাখতে তারা মিথ্যাকে বেছে নেন।

বিপজ্জনকভাবে জীবনযাপন চালিয়ে যেতে

কিছু পুরুষ মিথ্যা বলার রোমাঞ্চকে উপভোগ করেন। তারা সারা জীবন মিথ্যা বলেছেন এবং খুব কমই ধরা পড়েছেন। তাই তারা সেটি উপভোগ করেন। তারা এই স্বভাব কোনোভাবেই ছাড়তে পারেন না। এই ধরনের পুরুষরা তাদের ভাগ্যকে এগিয়ে নিয়ে যেতে দেখতে চায় যে তারা কতদূর যেতে পারে।

কোনো নারীকে প্রভাবিত করার জন্য

যদি কোনো পুরুষ মনে করেন যে সে তার জীবনে যথেষ্ট কাজ করেনি যা একজন নারীর ওপর প্রভাব ফেলতে পারে, তাহলে তিনি বানিয়ে বলতে শুরু করেন। এমনকিছু উপস্থাপন করেন যা আসলে তিনি করেননি বা তার অর্জন নয়। পছন্দের নারীর সামনে নিজেকে যোগ্য প্রমাণ করতে তিনি এমনটা করতে পারেন। তাই কোনো পুরুষ নিজের সম্পর্কে কিছু বললে আগে তা যাচাই-বাছাই করে নেবেন।

সঙ্গীকে কষ্টা না দেওয়ার জন্য

সত্যিটা বললে সঙ্গী কষ্ট পেতে পারে ভেবে অনেক পুরুষ মিথ্যা উপস্থাপন করেন। যখন কোনো পুরুষ কোনো নারীকে ভালোবাসে, সে তার অনুভূতির প্রতি সংবেদনশীল হয়ে ওঠে। তাই সঙ্গী যেন কোনোভাবে কষ্ট না পায় সেই চেষ্টা করেন। যদি সঙ্গী তার সৌন্দর্য নিয়ে মন খারাপ করেন তখন তিনি মিথ্যা হলেও প্রশংসা করেন যে, তুমি দেখতে মোটেও অসুন্দর নও।

নিজের ইগো বাড়ানোর জন্য

বেশিরভাগ পুরুষের ভেতরেই বিশাল ইগো থাকে। এটি তারা কখনো নষ্ট হতে দিতে চায় না। তাই টুকটাক মিথ্যা বলার মাধ্যমে হলেও তিনি নিজের ইগো ধরে রাখতে চান। অনেক সময় ভুলভাল কাজ করে ফেললেও তিনি সহজে স্বীকার করতে চান না বা সরাসরি অস্বীকার করেন। নিজের ইগো ধরে রাখতেই তারা এমনটা করে থাকেন।