ব্রেকিং:
আজ থেকে বিপিএলে থাকছে ‘বিকল্প ডিআরএস’ কমিউনিটি ক্লিনিকে আরো বিনিয়োগ প্রয়োজন: পরিকল্পনামন্ত্রী এবার আইপিএলের সব খেলা এক শহরে! মৌসুমী ঝড়ে আফ্রিকার তিনদেশে নিহত ৭০ জুমার দিনে যে আমল করলে ৮০ বছরের গুনাহ মাফ হবে কুমিল্লায় জনপ্রিয় হচ্ছে সমলয় পদ্ধতিতে ধান চাষ প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে কাদের মির্জার ৯ প্রার্থীর অভিযোগ বিশ্বে করোনায় মৃত্যু ছাড়াল সাড়ে ৫৬ লাখ, শনাক্ত সাড়ে ৩৬ কোটি লক্ষ্যমাত্রার ৭ ভাগ আমন সংগ্রহ হয়েছে ফেনীতে নৌকা ঠেকাতে আনারসে ভোট চাইলেন এমপি একরামুল মসজিদের ৭ লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগে মামলা ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় প্লাস্টিকের লেমিনেশন ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞা চিলির মাঠে মেসিহীন আর্জেন্টিনার দাপুটে জয় কোম্পানীগঞ্জে এক বস্তা দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার প্রাথমিকে অনলাইনে ক্লাসসহ ৬ নির্দেশনা সরকারি ব্যাংকের সব নিয়োগ পরীক্ষা স্থগিত চাঁবিপ্রবির জমি অধিগ্রহণে অনিয়মের খবর ভিত্তিহীন: শিক্ষামন্ত্রী ১৫ বছরের গোপন সম্পর্ক, কথা না রাখায় দেবরের ঘরে অনশনে ভাবি পার্কে প্রেমিককে জুতাপেটা, আটক করে টাকা নিলেন মেম্বার আখাউড়ায় পাঁচ মাদক সেবনকারীর কারাদণ্ড
  • শুক্রবার   ২৮ জানুয়ারি ২০২২ ||

  • মাঘ ১৫ ১৪২৮

  • || ২৩ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

অস্ট্রেলিয়ায় ৬০ বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা

নোয়াখালী সমাচার

প্রকাশিত: ১৪ জানুয়ারি ২০২২  

পশ্চিম অস্ট্রেলিয়ার উপকূলীয় শহর অনস্লোতে তাপমাত্রা উঠেছে ৫০ দশমিক ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াসে, যা ১৯৬২ সালে দক্ষিণ অস্ট্রেলিয়ায় রেকর্ড সর্বোচ্চ তাপমাত্রার সঙ্গে মিলে গেছে। অর্থাৎ গত ৬০ বছরে এই পরিমাণ তাপমাত্রা দেখা যায়নি দেশটিতে।

বৃহস্পতিবার বিবিসির খবরে বলা হয়েছে, ১৪ জানুয়ারি তাপমাত্রা আরও বাড়তে পারে। ফলে অনস্লো ও আশপাশের এলাকায় তাপমাত্রায় যে রেকর্ড হয়েছে তা আবার ভাঙতে পারে।

রেকর্ড পরিমাণ তাপমাত্রার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন অস্ট্রেলিয়ার আবহাওয়া ব্যুরো। বৃহস্পতিবার মার্ডি ও রোবোর্ন শহরে ৫০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের বেশি তাপমাত্রার কথা জানানো হয়।

গত মাসে অস্ট্রেলিয়ায় অনেক বড় ধরণের দাবানল হয়েছে। তাপমাত্রা বাড়ায় দেশটিতে আবারও দাবানল ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা রয়েছে।

কয়েক মাস ধরে চলা দাবানলে অস্ট্রেলিয়ার নিউ সাউথ ওয়েলসে প্রায় ৫০ কোটি জীবজন্তু প্রাণ হারিয়েছে। আগামী কয়েক সপ্তাহে এ প্রাণহানির সংখ্যা আরো বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। দাবানলের তীব্রতা কিছুটা কমলেও এখনো ১৫০ শতাধিক স্থানে আগুন জ্বলছে। যার মধ্যে আটটি স্থানের আগুন ভয়াবহ আকারে ছড়িয়ে পড়ছে। সিডনি মর্নিং হেরাল্ড পত্রিকার অনলাইন ভার্সনের খবরে বলা হয়েছে, গত রাতেও অস্ট্রেলিয়ার রাজধানী ক্যানবেরার পাশ্ববর্তী শহর বাটলোতে একজন মারা গেছেন। দমকল বাহিনীর চার সদস্য আহত হয়েছেন। ‘শতাধিক’ ঘরে পুড়ে ধূলিস্মাৎ হয়ে গেছে।

ছয়টি অঙ্গ রাজ্য নিয়ে গঠিত বিশ্বের ৬ষ্ঠ বৃহত্তম দেশ অস্ট্রেলিয়া; অঙ্গরাজ্যগুলো হলো নিউ সাউথ ওয়েলস, কুইন্সল্যান্ড, দক্ষিণ অস্ট্রেলিয়া, তাসমানিয়া, ভিক্টোরিয়া, ও পশ্চিম অস্ট্রেলিয়া। এর রাজধানী ক্যানবেরা এবং বৃহত্তম শহর দুটোই দক্ষিণের অঙ্গরাজ্য নিউ সাউথ ওয়েলস। ২০০৯ সালে এক ভয়াবহ দাবানলে নিউ সাউথ ওয়েলসের পার্শ্ববর্তী ভিক্টোরিয়া জুড়ে ভয়াবহ আগুন ছড়িয়ে পড়েছিল। যেটা অস্ট্রেলিয়ার ইতিহাসে ব্ল্যাক সেটারডে বুশফায়ার নামে পরিচিত। সেই আগুনের তীব্রতা ছড়িয়ে পড়েছিল পাশ্ববর্তী আরো দুটি অঙ্গ রাজ্যে। এ ঘট্নার ঠিক এক দশক যেতে না যেতেই ফের ভয়াবহ এই অগ্নিকাণ্ডের শিকার হলো দ্বীপ মহাদেশের বৃহত্তম রাষ্ট্রটি।