ব্রেকিং:
টেলিটকে ফাইভ-জির গতি উঠলো সেকেন্ডে ১৫১২ এমবিপিএস ভোটকেন্দ্রে টাকা দিতে মেয়রের জোরাজুরি, নিল না পুলিশ আগামী দুই অধিবেশনের মধ্যে ইসি গঠনের আইন আসছে: আইনমন্ত্রী স্থায়ী কমিটির ভূমিকায় সন্দিহান বিএনপির কর্মীরা দীঘিনালায় ম্যাজিস্ট্রেটের গাড়িতে হামলা, ১৬ জন আহত আজও রাস্তায় শিক্ষার্থীরা, চেক করছে ড্রাইভিং লাইসেন্স ওমিক্রন নিয়ে সতর্ক হওয়া প্রয়োজন: ডব্লিউএইচওর প্রধান বিজ্ঞানী কৃষি ও কৃষকের উন্নয়নে সরকার সচেষ্ট: আইসিটি প্রতিমন্ত্রী খালেদার চিকিৎসা নিয়ে নেতা-চিকিৎসকদের সমন্বয়হীনতায় ক্ষুব্ধ তারেক বৈদেশিক বিনিয়োগে বাংলাদেশের গুরুত্ব দিন দিন বাড়ছে: প্রধানমন্ত্রী জাল ভোট দিতে এসে ধরা, ছয় মাসের জেল ইয়াবা দেখে ফেলায় সহপাঠীকে নৃশংস হত্যা সমুদ্র দূষণে শাস্তি বাড়িয়ে সংসদে বিল পাস পুরুষশূন্য কেন্দ্রে নারীদের দীর্ঘ সারি বাংলাদেশের নারীরা সারাবিশ্বে নিজেদের যোগ্যতার পরিচয় দিচ্ছে আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা ১ জানুয়ারি, মিলবে বিআরটিসি বাস সার্ভিস ৮৩ শতাংশ নারীই মনে করেন ‘বউ পেটানো ঠিক’ ঢাকায় বিনিয়োগ শীর্ষ সম্মেলন উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী দেহব্যবসা করে চালিয়েছেন পড়াশোনা, জিতেছেন সুন্দরী প্রতিযোগিতায় যে কারণে পেছাল আবরার হত্যা মামলার রায়
  • সোমবার   ২৯ নভেম্বর ২০২১ ||

  • অগ্রাহায়ণ ১৫ ১৪২৮

  • || ২২ রবিউস সানি ১৪৪৩

ভারতে শনাক্ত হল করোনার আরো একটি ধরন

নোয়াখালী সমাচার

প্রকাশিত: ২৫ অক্টোবর ২০২১  

ভারতের মধ্যপ্রদেশের ইন্দোরে এওয়াই.৪ নামে করোনাভাইরাসের নতুন একটি ধরন শনাক্ত হয়েছে। এটি করোনার অতিসংক্রামক ধরন ডেল্টা গোত্রের। শহরটির অন্তত সাত বাসিন্দার শরীরে নতুন এই ধরণ শনাক্ত হয়েছে।

ভারতের জাতীয় রোগ নিয়ন্ত্রণ কেন্দ্র (এনসিডিসি) জিনোম সিকোয়েন্সিং করে সাতজনের নমুনায় এ ধরন শনাক্ত করেছে বলে জানিয়েছে সংবাদমাধ্যম টাইমস অব ইন্ডিয়া।

ইন্দোরের প্রধান চিকিৎসা ও স্বাস্থ্য কর্মকর্তা বি এস সাতিয়া জানান, এসব নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছিল গত সেপ্টেম্বরে। আক্রান্ত ব্যক্তিদের মধ্যে দুজন সেনা কর্মকর্তা। এ ছাড়া মহারাষ্ট্রের ১ শতাংশ নমুনাতেও এওয়াই.৪-এর সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছিল।

এনসিডিসির প্রতিবেদনে বলা হয়, সেপ্টেম্বরে ইন্দোরে ঊর্ধ্বমুখী করোনা সংক্রমণের নেপথ্যে ছিল ডেলটার এ ধরন। আগস্টের তুলনায় তখন ৬৪ শতাংশ বেশি রোগী শনাক্ত হয়েছিল। আর্মি কলেজে প্রশিক্ষণরত ৪৪ জন সেনা কর্মকর্তা করোনা পজিটিভ হন। এর পরই কর্তৃপক্ষ তাঁদের নমুনা জিনোম সিকোয়েন্সিংয়ের জন্য পাঠায়।

বি এস সাতিয়া বলেন, এনসিডিসি ১ অক্টোবরের মধ্যে সাতজনের প্রতিবেদন প্রকাশ করে এবং অন্যদের প্রতিবেদন প্রকাশ করে ১৬ অক্টোবর।

নতুন এ ধরনের ব্যাখ্যায় এমজিএম কলেজের মাইক্রোবায়োলজি বিভাগের বিভাগীয় প্রধান অনিতা মুথা টাইমস অব ইন্ডিয়াকে বলেন, এওয়াই.৪ হলো করোনার ডেলটা গোত্রের একটি ধরন। তবে এটা ডেলটা কিংবা ডেলটা প্লাস—কোনোটিই নয়।

টাইমস অব ইন্ডিয়া বলছে, এটা (এওয়াই.৪ ধরন) এখন ‘কৌতূহলোদ্দীপক’ একটা ধরন। এ ধরনের সংক্রমণ ক্ষমতা কেমন কিংবা এতে আক্রান্ত রোগীর গুরুতর পরিস্থিতি তৈরি হওয়ার ঝুঁকি কতটুকু, তা নিয়ে খুব কমই জানা যাচ্ছে। এ ছাড়া এটা সংক্রমণের ক্ষেত্রে যুগান্তকারী কোনো প্রভাব ফেলতে পারবে কি না, সেটাও নিশ্চিত নয়।