ব্রেকিং:
ডিপ্লোমা কোর্সের মেয়াদ নিয়ে আবারও বিতর্ক উত্তরায় প্রাণহানি: প্রধানমন্ত্রীর শোক নোয়াখালীতে জাতীয় শোক দিবস পালিত গাড়ি চালাচ্ছিলেন বরের বাবা, কারোই ফেরা হলো না বাসায় সরানো হলো গার্ডার, ৫ লাশ উদ্ধার টুঙ্গিপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা ফেনী নদীতে জেলেদের জালে ধরা ৭ মণ ইলিশ উপকূলীয় ৭ উপজেলার উন্নয়নে মহাপ্রকল্প আগামী বছর থেকে সপ্তাহে ৫ দিন ক্লাস: শিক্ষামন্ত্রী শোক দিবস উপলক্ষে চাঁদপুরে ৫০ হাফেজকে খাবার দিল পুনাক অটোরিকশা-মোটরসাইকেল সংঘর্ষে প্রাণ গেল স্কুলছাত্রের মাছ ধরতে গিয়ে ট্রাক্টরে আটকে গেল কিশোর জমিতে কাজ করতে গিয়ে বজ্রপাতে কৃষকের মৃত্যু রায়পুরে ছাত্রীকে যৌন হয়রানি, জামায়াত নেতা গ্রেফতার নবীনগরে ভাতিজার ঘুষিতে প্রাণ গেল চাচার সুইস ব্যাংকে তারেকের অ্যাকাউন্টে দেড় হাজার কোটি টাকা মাঠে কাজ করার সময় বজ্রপাত, প্রাণ গেল কৃষকের খালেদার কাল্পনিক জন্মদিন উদযাপন নিয়ে দ্বন্দ্বে বিএনপি প্রবাসীর স্ত্রীকে অচেতন করে নগ্ন ভিডিও ধারণ, গ্রেফতার ২ শোক দিবসে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে সর্বস্তরের মানুষের শ্রদ্ধা
  • মঙ্গলবার   ১৬ আগস্ট ২০২২ ||

  • ভাদ্র ২ ১৪২৯

  • || ১৮ মুহররম ১৪৪৪

বুয়েটের মেধা তালিকায় এবার আবরার ফাহাদের ছোট ভাই ফাইয়াজ

নোয়াখালী সমাচার

প্রকাশিত: ১ জুলাই ২০২২  

বুয়েটে ভর্তির সুযোগ পেয়েছে আবরার ফাহাদের ছোট ভাই আবরার ফাইয়াজ। বৃহস্পতিবার রাত ৯টায় বুয়েটের ২০২১-২২ ব্যাচের স্নাতক ভর্তির রেজাল্ট প্রকাশিত হয়েছে। প্রকাশিত রেজাল্টে আবরার ফাইয়াজ ৪৫০তম হয়ে যন্ত্রকৌশল বিভাগে চান্স পেয়েছে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ফাইয়াজ নিজেই।

ফাইয়াজ ও তার পরিবার রেজাল্টে খুশি হলেও ভর্তি হবেন কিনা তা এখনো সিদ্ধান্ত নেননি।

আবরার ফাইয়াজ বলেন, আমার ইচ্ছা আছে ভর্তি হওয়ার। তারপরও পরিবারের সাথে কথা বলে সিদ্ধান্ত নিব।

আবরার ফায়াজের মা এখনো বুঝে উঠতে পারছেন না কি সিদ্ধান্ত নিবেন৷ আবরার ফাহাদের স্মৃতি মনে পড়ে কেঁপে উঠছে তার বুক।

ফাইয়াজের বাবা বরকত উল্লাহ বলেন, গাজীপুরে ইসলামিক ইউনিভার্সিটি অফ টেকনোলজিতে (আইইউটি) কম্পিউটার সাইন্সে ফাইয়াজ ভর্তি রয়েছে। বুয়েটে ভর্তি করাব কিনা এখনো সিদ্ধান্ত নেইনি। পরিবারের সবাই মিলে বসে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। বড় ছেলের লাশ নিয়ে এসেছিলাম। ভাবছি বিষয়টি নিয়ে। 

২০১৯ সালের ৬ অক্টোবর সন্ধ্যার পর আবরারকে হলের ২০১১ নম্বর কক্ষে ডেকে নিয়ে যাওয়া হয়৷ কয়েক ঘণ্টা ধরে নির্যাতনের পর দোতলা ও নিচতলার সিঁড়ির মাঝামাঝি জায়গায় তাকে অচেতন অবস্থায় ফেলে যায় কয়েকজন ছাত্রলীগ কর্মী৷ ভোরে চিকিৎসক এসে তাকে মৃত ঘোষণা করেন৷

আবরার ফেসবুকে তার শেষ পোস্টে ভারতের সঙ্গে বাংলাদেশের করা কয়েকটি চুক্তির সমালোচনা করেছিলেন৷ বুয়েট ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরাই যে ফেসবুকে মন্তব্যের সূত্র ধরে ‘শিবির সন্দেহে’ আবরারকে ডেকে নিয়ে পিটিয়ে হত্যা করে।