ব্রেকিং:
বেনাপোল দিয়ে এল আরও ২০০ টন অক্সিজেন আশ্রয়ণ প্রকল্পে শিশুপার্ক উদ্বোধন ও ত্রাণ বিতরণ স্কিপিং রোপে বিশ্ব রেকর্ড করলেন ঠাকুরগাঁওয়ের রাসেল প্রধানমন্ত্রীর ফেলোশিপ পাবেন ৫৫ ব্যক্তি কেন মানুষ প্রথম প্রেম ভুলতে পারে না বৃষ্টিপাত নিয়ে আজ যে দুঃসংবাদ জানালো আবহাওয়া অফিস আমরা এক দেশপ্রেমিক জননেতাকে হারালাম : প্রধানমন্ত্রী স্কুলে কোরআন শিক্ষা বাধ্যতামূলক করলো পাকিস্তান ধারণার চেয়েও ভয়ঙ্কর করোনার ডেল্টা ভ্যারিয়েন্ট: সিডিসি আশপাশের শ্রমিকদের দিয়েই চলবে কারখানা হেলেনার বিরুদ্ধে পল্লবী থানায় আরেক মামলা সিনহা হত্যার এক বছর: ‘প্রদীপের’ নিচেই ছিল অন্ধকার বিশ্বব্যাপী করোনায় মুত্যু কমলেও বেড়েছে আক্রান্ত চালু হতে না হতেই রোগীদের দখলে দুই হাসপাতালের ১৪ আইসিইউ বিশ্বের সাইবার সিকিউরিটির জন্য সবচেয়ে বড় হুমকি যুক্তরাষ্ট্র: চী বিষ দিয়ে যুবককে হত্যা করলেন শ্বশুরবাড়ির লোকজন নিয়মনীতিহীন আইপি টিভির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে: তথ্যমন্ত্রী প্রিমিয়ার লিগ নিয়ে বাফুফের তামাশা, শুরুর এক ঘণ্টা আগে স্থগিত জাতীয় পরিচয়পত্র না থাকা ব্যক্তিরা টিকা পাবেন বিশেষ প্রক্রিয়ায় দর্শকশূন্য ব্যতিক্রমধর্মী ‘ইত্যাদি’ আজ
  • শনিবার   ৩১ জুলাই ২০২১ ||

  • শ্রাবণ ১৬ ১৪২৮

  • || ২০ জ্বিলহজ্জ ১৪৪২

বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ে এক হাজার শিক্ষার্থী পেলো বাস সেবা

নোয়াখালী সমাচার

প্রকাশিত: ১৭ জুলাই ২০২১  

বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় (ববি) প্রশাসন গত বৃহস্পতিবার থেকে শনিবার পর্যন্ত দেশের পাঁচটি বিভাগের মোট ২২ জেলায় ৯৫৭ শিক্ষার্থীকে বাড়ি পৌঁছে দিয়েছে।

শনিবার (১৭ জুলাই) ঢাকা, ময়মনসিংহ ও মাওয়ায় পরিবহন সুবিধা দেয়ার মাধ্যমে শেষ হয়েছে এই বাস সার্ভিস।

তবে বিশেষ বাস সার্ভিস পাওয়ার জন্য ১ হাজার ৪৬৪ শিক্ষার্থী আবেদন করলেও নির্ধারিত সময়ে উপস্থিত হয়েছেন ৯৫৭ শিক্ষার্থী। শিক্ষার্থীদের চাহিদা অনুযায়ী বাসের রূট বৃদ্ধি করলেও বিভিন্ন রূটে ৫০৭ শিক্ষার্থী অনুপস্থিত ছিল। 

জানা গেছে, প্রথমদিন ২৪৩ শিক্ষার্থীকে ৬টি বাসে বরিশালের পার্শ্ববর্তী ১০ জেলায় পৌঁছে দেয়া হয়। পরদিন শুক্রবার ৫৪৬ শিক্ষার্থীকে ১২টি বাসে আরো ১০ জেলায় পৌঁছে দেয় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। আজ শনিবার সকাল ৯টায় ঢাকা, মাওয়া ও ময়মনসিংহের উদ্দেশে ১৭৭ শিক্ষার্থী নিয়ে যাত্রা শুরু করে বিশ্ববিদ্যালয়ের ৪টি বাস।

বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবহন পুলের ব্যবস্থাপক মেহেদি হাসান জানান, বিশ্ববিদ্যালয়ের নিজস্ব ৬টি বাসের সঙ্গে বৃহস্পতিবার ২টি ও শুক্রবার ৫টি ভাড়া করা বাসে এই সার্ভিস দেয়া হয়েছে। প্রাথমিকভাবে শুধু ১৪টি জেলায় বাস সার্ভিস দেবার কথা থাকলেও শিক্ষার্থীদের চাহিদার ভিত্তিতে পরবর্তীতে আরো ৮টি জেলাকে এই সার্ভিসের আওতায় আনা হয়।

এ ব্যাপারে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড. সুব্রত কুমার দাস বলেন, লকডাউনে বরিশালে আটকে পড়া সব শিক্ষার্থীদের জন্য বিশেষ পরিবহন সেবা চালু করা হয়। এই সুবিধা নেবার জন্য প্রাথমিকভাবে প্রায় এক হাজার পাঁচশো শিক্ষার্থী অনলাইনে নিবন্ধন করে। তাদের মধ্যে যারাই নির্ধারিত সময়ে এসেছে সবাইকে বাস সার্ভিস নেবার সুযোগ দেয়া হয়েছে।

মৃত্তিকা ও পরিবেশ বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থী সিয়াম জামান বলেন, শিক্ষার্থীদের মানবিক দিক বিবেচনা করে প্রশাসন যে ভূমিকা নিয়েছে তা নিঃসন্দেহে প্রশংসার দাবি রাখে৷ শিক্ষকবৃন্দের প্রতি আন্তরিক কৃতজ্ঞতা। এই ভ্রমণ আমাদের সব ববিয়ানদের স্মৃতির পাতায় ঠাই করে নিয়েছে।

আইন বিভাগের এক শিক্ষার্থী বলেন, সর্বশেষ কঠোর লকডাউনের মধ্যে বাড়ি ফিরে যাবার জন্য সব শিক্ষার্থীদের পক্ষ থেকে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের কাছে একাধিক আবেদন করা হয়। আমাদের আবেদনে সাড়া দিয়ে এই বাস সার্ভিস চালু করার জন্য বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে ধন্যবাদ। প্রথমে কয়েকটি জেলায় শিক্ষার্থী পরিবহনের উদ্যোগ নিলেও আমাদের চাহিদার পরিপ্রেক্ষিতে বরিশাল, খুলনা, রংপুর, ঢাকা ও ময়মনসিংহ বিভাগের বিভিন্ন শহরে বাস সার্ভিস দেবার পদক্ষেপ নেন তারা।