ব্রেকিং:
টেলিটকে ফাইভ-জির গতি উঠলো সেকেন্ডে ১৫১২ এমবিপিএস ভোটকেন্দ্রে টাকা দিতে মেয়রের জোরাজুরি, নিল না পুলিশ আগামী দুই অধিবেশনের মধ্যে ইসি গঠনের আইন আসছে: আইনমন্ত্রী স্থায়ী কমিটির ভূমিকায় সন্দিহান বিএনপির কর্মীরা দীঘিনালায় ম্যাজিস্ট্রেটের গাড়িতে হামলা, ১৬ জন আহত আজও রাস্তায় শিক্ষার্থীরা, চেক করছে ড্রাইভিং লাইসেন্স ওমিক্রন নিয়ে সতর্ক হওয়া প্রয়োজন: ডব্লিউএইচওর প্রধান বিজ্ঞানী কৃষি ও কৃষকের উন্নয়নে সরকার সচেষ্ট: আইসিটি প্রতিমন্ত্রী খালেদার চিকিৎসা নিয়ে নেতা-চিকিৎসকদের সমন্বয়হীনতায় ক্ষুব্ধ তারেক বৈদেশিক বিনিয়োগে বাংলাদেশের গুরুত্ব দিন দিন বাড়ছে: প্রধানমন্ত্রী জাল ভোট দিতে এসে ধরা, ছয় মাসের জেল ইয়াবা দেখে ফেলায় সহপাঠীকে নৃশংস হত্যা সমুদ্র দূষণে শাস্তি বাড়িয়ে সংসদে বিল পাস পুরুষশূন্য কেন্দ্রে নারীদের দীর্ঘ সারি বাংলাদেশের নারীরা সারাবিশ্বে নিজেদের যোগ্যতার পরিচয় দিচ্ছে আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা ১ জানুয়ারি, মিলবে বিআরটিসি বাস সার্ভিস ৮৩ শতাংশ নারীই মনে করেন ‘বউ পেটানো ঠিক’ ঢাকায় বিনিয়োগ শীর্ষ সম্মেলন উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী দেহব্যবসা করে চালিয়েছেন পড়াশোনা, জিতেছেন সুন্দরী প্রতিযোগিতায় যে কারণে পেছাল আবরার হত্যা মামলার রায়
  • সোমবার   ২৯ নভেম্বর ২০২১ ||

  • অগ্রাহায়ণ ১৫ ১৪২৮

  • || ২২ রবিউস সানি ১৪৪৩

বিকাশে ‘খরচ কমলো’ বিজ্ঞাপনের আসল রহস্য ফাঁস করলো টিক্যাব

নোয়াখালী সমাচার

প্রকাশিত: ২৪ নভেম্বর ২০২১  

টেলিভিশন চালু করলে বিভিন্ন চ্যানেলে কিছুক্ষণ পর পর ‘বিকাশে খরচ কমলো, ক্যাশআউট চার্জ মাত্র ১৪.৯০ পয়সা!’ বিজ্ঞাপন চলে। এ ধরনের বিজ্ঞাপনকে প্রকৃত অর্থে গ্রাহকদের সঙ্গে ‘শুভঙ্করের ফাঁকি’ বলে মনে করছে টেলি কনজ্যুমার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (টিক্যাব)।

একই সঙ্গে সংগঠনটি অবিলম্বে সত্য গোপন করে বিভ্রান্তিকর এ রকম প্রচারণা বন্ধ ও মোবাইল ব্যাংকিংয়ের ক্যাশআউট চার্জ কমিয়ে সিঙ্গেল ডিজিটে নামিয়ে আনার দাবি জানিয়েছে।

বুধবার সংবাদ মাধ্যমে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে টিক্যাবের আহ্বায়ক মুর্শিদুল হক এসব তথ্য জানান। 

মুর্শিদুল হক বলেন, মোবাইল ব্যাংকিং সার্ভিস বিকাশের ক্যাশ আউট চার্জ আগে ছিল প্রতি হাজারে অ্যাপে ১৭.৫০ টাকা এবং *২৪৭# ডায়াল করে ১৮.৫০ টাকা। সম্প্রতি প্রতিষ্ঠানটি একটি প্রিয় এজেন্ট নম্বর সর্বোচ্চ ২৫ হাজার টাকা পর্যন্ত ক্যাশআউট চার্জ ভ্যাটসহ ১৪.৯০ পয়সা নির্ধারণ করে। এক ক্যালেন্ডার মাসে প্রিয় এজেন্ট পরিবর্তন করতে না পারা, ক্যাশআউট লিমিট বেঁধে দেওয়া এমন অনেক শর্ত একদমই হাইলাইট না করে শুধুমাত্র ‘বিকাশে খরচ কমলো’ বিজ্ঞাপন ব্যাপকভাবে প্রচারের মাধ্যমে গ্রাহকদের বিভ্রান্ত করা হয়েছে বলে আমরা মনে করি। এমনকি এ সময়েই বিকাশ থেকে অ্যাপের মাধ্যমে ক্যাশআউট চার্জ ১৭.৫০ টাকা থেকে বাড়িয়ে ১৮.৫০ টাকা করা হয়েছে। এখন বিকাশে অ্যাপ অথবা *২৪৭# ডায়াল করে যেভাবেই গ্রাহক ক্যাশআউট করুক চার্জ ১৮.৫০ টাকা।

তিনি আরো বলেন, টিক্যাবের পক্ষ থেকে গ্রাহক ও এজেন্টদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, বেশিরভাগ গ্রাহকই বিকাশের বিজ্ঞাপন দেখে ক্যাশ আউট করতে এসে বিভ্রান্ত হয়েছেন। অনেক গ্রাহক এজেন্টদের সঙ্গে বাগবিতণ্ডায় জড়িয়েছেন। এজেন্টরা তখন বাধ্য হয়ে বিজ্ঞাপনের নিচে ছোট করে লেখা শর্তগুলো দেখাচ্ছেন। আমাদের দেশের মোবাইল ব্যাংকিং ব্যবহারকারী বেশিরভাগ গ্রাহক নিম্ন মধ্যবিত্ত হওয়ায় তারা এত শর্তের মারপ্যাচে ক্যাশআউট চার্জ ১৪.৯০ টাকার সুফল নিতে পারছেন না। তাদের মধ্যে অনেকেই বুঝতে না পারায় প্রিয় এজেন্ট সংযুক্ত করতে পারেননি। আবার অনেকে একেক দিন একেক নম্বরে ক্যাশআউট করায় প্রিয় এজেন্ট যুক্ত করতে আগ্রহী হননি। আবার অনেকে এসব শর্তকে ঝামেলা মনে করে বিষয়টিকে এড়িয়ে চলছেন। গ্রাহকরা সুবিধা নিক আর না নিক বিকাশ কিন্তু ঠিকই অ্যাপ থেকে ক্যাশআউট চার্জ বাড়িয়ে এবং ব্যাপক ভাবে ‘খরচ কমলো’ প্রচারণা চালিয়ে তাদের ব্যবসায়িক সুবিধা তুলে নিয়েছে।

টিক্যাব আহ্বায়ক আরো বলেন, একই ভাবে আরেকটি মোবাইল ব্যাংকিং সার্ভিস ‘নগদ’ ক্যাশ আউট চার্জ ৯.৯৯ টাকা বলে প্রচারণা চালালেও বাস্তবতা হচ্ছে অ্যাপ থেকে প্রতি হাজারে ভ্যাটসহ ক্যাশআউট চার্জ ১১.৪৯ টাকা এবং ইউএসএসডিতে (*১৬৭# ডায়াল করে) ক্যাশ আউট চার্জ ১৪.৯৪ টাকা।