ব্রেকিং:
আন্দোলনকারীরা বক্তব্য দিতে চাইলে আপিল বিভাগ বিবেচনায় নেবেন সচেতনতার অভাবে অনেক মানুষ বিভিন্ন দুরারোগ্য ব্যাধিতে আক্রান্ত জনদুর্ভোগ সৃষ্টি করলে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে : ডিএমপি গমের উৎপাদন বাড়াতে সিমিট ও মেক্সিকোর সহযোগিতা জনদুর্ভোগ সৃষ্টি থেকে বিরত থাকুন : আরাফাত বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে সমাজসেবা অধিদপ্তরের পরিচালকের শ্রদ্ধা মোদির সাথে বিমসটেক পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের সাক্ষাত গাজায় শান্তি রক্ষা করবে আরব যৌথ বাহিনী: বাইডেন কোটা আন্দোলন প্রশ্নে আইনমন্ত্রী কি বললেন? ‘পুলিশের গুলিতে কোনো শিক্ষার্থী মারা যায় নি" ভারত থেকে আমদানি হলো ১১টি বুলেটপ্রুফ সামরিক যান সৌদি আরবে হামলার হুমকি, স্পর্শকাতর স্থানের ভিডিও প্রকাশ পরকীয়া করতে গিয়ে ধরা, সেই স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা বহিষ্কার বাংলাদেশ-চীনের মধ্যে ২১ চুক্তি ও সাত ঘোষণাপত্র সই লক্ষ্মীপুরের কমলনগরে প্রযুক্তি বিষয়ক কুইজ প্রতিযোগিতা ঝিনুকে তৈরি মুক্তার গহনা প্রধানমন্ত্রীর হাতে লক্ষ্মীপুরে হাত-পা বেঁধে প্রবাসীর স্ত্রীকে হত্যার পর ডাকাতি নোয়াখালীতে প্রকৌশলীসহ সেই চার শিক্ষক কারাগারে নোয়াখালীতে পরীক্ষা হলে হট্টগোল-খোশগল্প চট্টগ্রামে এডিসি কামরুল ও তার স্ত্রীর সম্পদ ক্রোকের আদেশ
  • শনিবার ১৩ জুলাই ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ২৮ ১৪৩১

  • || ০৫ মুহররম ১৪৪৬

কুমিল্লায় ইজাজুল হত্যার প্রধান ২ ঘাতকসহ ৪ জন গ্রেফতার

নোয়াখালী সমাচার

প্রকাশিত: ১৪ জুলাই ২০২৩  

কুমিল্লার কান্দিরপাড়ে প্রকাশ্যে ইজাজুল হত্যা মামলায় প্রধান দুই ঘাতকসহ চারজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গ্রেপ্তারকৃতরা হচ্ছে - কুমিল্লার ক্যান্টনমেন্ট এলাকার মোঃ মহরম মিয়া, কুমিল্লা নগরীর বজ্রপুর এলাকার পারভেজ, বারোপাড়া এলাকার মো: ইয়াসিন ও মুরাদপুর এলাকার রুপা আক্তার। হত্যাকাণ্ড সংগঠিত করার পর তারা কক্সবাজারের সুগন্ধা বিচ এলাকায় আত্মগোপন করেছিল। কোতোয়ালী এবং গোয়েন্দা পুলিশের অভিযানে তাদেরকে গ্রেফতার করা হয়।

কুমিল্লায় ইজাজুল হত্যার প্রধান ২ ঘাতকসহ ৪ জন গ্রেফতার বৃহস্পতিবার দুপুরে কুমিল্লা জেলা পুলিশ সুপার কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ কামরান হোসেন।

গত ২৫ জুন কুমিল্লা নগরীর কান্দিরপাড় এলাকায় মোবাইল ফোনে ডেকে এনে প্রকাশ্যে খুন করা হয় ইজাজুলকে। হত্যাকাণ্ডের পরদিন ইজাজুলার বাবা সিরাজুল ইসলাম বাদী হয়ে নয়জনকে এজাহারনামীয় আসামিসহ অজ্ঞাতদের বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করেন। মামলার পর পরি পুলিশ এছাড়া নামীয় দুই আসামি দুলাল ও হোসেন মিয়াকে গ্রেফতার করেছিলো। এ নিয়ে এই হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় মোট ছয় জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে কুমিল্লা সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ কামরান হোসেন জানান, আসামিদের জিজ্ঞাসাবাদে জানা গেছে, ৩-৪ মাস আগে থেকেই ভিকটিম ইজাজুল আসামী শারমিন ও রুবেলের কাছে মাদক বিক্রির টাকা পাওনা ছিল। এই টাকা লেনদেন সংক্রান্ত কথাবার্তা বলতেই ২৫ জুন সন্ধ্যায় কান্দিরপাড় ডাকা হয় ইজাজুলকে। এ সময় মহরম ও পারভেজসহ অন্যান্যরা ইজাজুলকে ঘিরে ধরে ফুটপাতের উপর নিয়ে গিয়ে পায়ে ছুরিকাঘাত করে হত্যা করে।

আসামি মহরমের বিরুদ্ধে চুরি ডাকাতি মাদকসহ মোট ১৪ টি মামলা, পারভেজের বিরুদ্ধে চুরি ডাকাতিসহ পাঁচটি মামলা এবং ইয়াসিনের বিরুদ্ধে মাদকের তিনটি মামলা বিচারাধীন রয়েছে।

পুলিশের সূত্রে জানা গেছে, সিসিটিভি ফুটেজ বিশ্লেষণসহ প্রাথমিকভাবে উঠে এসেছে মাদকের পাওনা টাকা পরিষদের কথা বলে আসামি রুবেল এবং তার স্ত্রী শারমিন মোবাইল ফোনে ইজাজুল কে গত ২৫ জুন কুমিল্লার কান্দিরপাড়ে খন্দকার হক টাওয়ারের সামনে ডেকে আনে। তখন ইজাজুল এর সাথে আসামি রুবেল, শারমিন ও রুপার তরকা তর্কের একপর্যায়ে মহরম ও পারভেজ ইজাজুলের পায়ে ছুরিকাঘাত করে নিয়ে যায়। পরে হাসপাতালে নেয়ার পথে ইজাজুল এর মৃত্যু হয়।