ব্রেকিং:
কোটাবিরোধীতায় অশুভ শক্তি নেমেছে : ওবায়দুল কাদের প্রান্তিক মানুষের চিকিৎসাসেবা নিশ্চিত করতে সব করব : সামন্ত লাল চোরাই মোবাইলের স্বর্গরাজ্য চট্টগ্রামের রিয়াজউদ্দিন বাজার বৃষ্টির পানিতে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে ২ ফার্নিচার কর্মচারীর মৃত্যু ২২ কেজির কোরাল বিক্রি হলো ২৬ হাজার টাকায় আন্দোলনরত শিক্ষকদের সঙ্গে বৈঠকে ওবায়দুল কাদের প্রতিবন্ধী তরুণকে কুকুর লেলিয়ে হত্যা করল ইসরায়েলি সেনারা ফেনী বন্যাদুর্গত ৭০০ পরিবার পেলো ত্রাণ সামগ্রী এক সপ্তাহে ৭৪১১ কোটি টাকা বাজার মূলধন হারালো ডিএসই রাজধানীতে পিতার ১ কোটি ৬৬ লাখ টাকা চুরি করলেন মেয়ে নৈশ প্রহরীকে বেঁধে বাজারে দুর্ধর্ষ ডাকাতি পচা কাঠের পোকা, দাম ৭৫ লাখ! জানেন কেন? দেশে ফিরেছেন ৬৭৯৭৪ হাজি সারাদেশে ইন্টারনেটে ধীরগতি আন্দোলনকারীরা বক্তব্য দিতে চাইলে আপিল বিভাগ বিবেচনায় নেবেন সচেতনতার অভাবে অনেক মানুষ বিভিন্ন দুরারোগ্য ব্যাধিতে আক্রান্ত জনদুর্ভোগ সৃষ্টি করলে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে : ডিএমপি গমের উৎপাদন বাড়াতে সিমিট ও মেক্সিকোর সহযোগিতা জনদুর্ভোগ সৃষ্টি থেকে বিরত থাকুন : আরাফাত বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে সমাজসেবা অধিদপ্তরের পরিচালকের শ্রদ্ধা
  • রোববার ১৪ জুলাই ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ৩০ ১৪৩১

  • || ০৬ মুহররম ১৪৪৬

আজও চলবে ‘বাংলা ব্লকেড’, তীব্র যানজটের শঙ্কা

নোয়াখালী সমাচার

প্রকাশিত: ৮ জুলাই ২০২৪  

সরকারি চাকরিতে কোটা বাতিলের দাবিতে আজও ‘বাংলা ব্লকেড’ কর্মসূচী পালন করবে আন্দোলনরত শিক্ষার্থী ও চাকরিপ্রত্যাশিরা। এতে সোমবার (৮ জুলাই) ও তীব্র যানজটের শঙ্কা রয়েছে।

সোমবার (৮ জুলাই) বিকেল সাড়ে ৩টায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় লাইব্রেরির সামনে থেকে মূল ব্লকেড আন্দোলন শুরু করা হবে।

এছাড়াও কোটা বাতিলের দাবিতে ইতোমধ্যেই ক্লাস-পরীক্ষা বর্জন করেছে দেশের বিভিন্ন পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় ও কলেজের শিক্ষার্থীরা। তাছাড়া রাবি, জাবি, জবি, কুবি ও বাকৃবিসহ অন্যান্য বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা এ আন্দোলনের অংশ হিসেবে বিভিন্ন সড়ক ও মহাসড়ক অবরোধ করে আসছে গত কয়েকদিন ধরে। যার অংশ হিসেবে আজও কর্মসূচি ঘোষণা করেছে শিক্ষার্থীরা।

আন্দোলনের অন্যতম সমন্বয়ক নাহিদ ইসলাম জানান, ‘আমাদের আন্দোলন অব্যাহত থাকবে। চার দফা নয়, এক দফা দাবিতে সোমবার সারাদেশে ব্লকেড কর্মসূচি পালন করা হবে।’

এক দফা দাবি হলো, ‘সব গ্রেডে সব ধরনের অযৌক্তিক ও বৈষম্যমূলক কোটা বাতিল করে সংবিধানে উল্লেখিত অনগ্রসর গোষ্ঠীর জন্য কোটাকে ন্যূনতম পর্যায়ে এনে সংসদে আইন পাস করে কোটা পদ্ধতিকে সংশোধন করতে হবে।’

এর আগে, গতকাল (রোববার) রাজধানীর বিভিন্ন পয়েন্টে অবস্থান নেন আন্দোলনকারী শিক্ষার্থী ও চাকরিপ্রত্যাশিরা। এতে রাজধানী জুড়ে দেখা দেয় তীব্র যানজট। ভোগান্তিতে পড়েন নগরবাসী। এছাড়াও বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় ও কলেজের শিক্ষার্থীরাও দেশের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ রাস্তা অবরোধ করে আন্দোলন করেন।

প্রসঙ্গত, ২০১৮ সাল পর্যন্ত সরকারি চাকরিতে মোট ৫৬ শতাংশ কোটা প্রচলিত ছিল। এর মধ্যে ৩০ শতাংশ মুক্তিযোদ্ধা কোটা, ১০ শতাংশ নারী কোটা,১০ শতাংশ জেলা কোটা এবং ৫ শতাংশ ক্ষুদ্র জাতিগোষ্ঠী কোটা ও ১ শতাংশ পদ প্রতিবন্ধী প্রার্থীদের দিয়ে পূরণের নিয়ম চালু হয়।

তবে সেই বছর কোটা সংস্কার আন্দোলনের জেরে সরকার প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণীর চাকরিতে পুরো কোটা ব্যবস্থা বাতিল করে। এবং এনিয়ে একই বছর ৪ অক্টোবর কোটা বাতিল বিষয়ক একটি পরিপত্র জারি করে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়।

২০২১ সালে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের পরিপত্রের মুক্তিযোদ্ধা কোটা বাতিলের অংশটিকে চ্যালেঞ্জ করে রিট করেন কয়েকজন মুক্তিযোদ্ধার সন্তান। গত ৫ জুন এই রিটের রায়ে পরিপত্রের ওই অংশ অবৈধ ঘোষণা করা হয়। যার প্রেক্ষিতে ১ জুলাই থেকে টানা আন্দোলন করছে শিক্ষার্থী ও চাকরি প্রত্যাশিরা।