ব্রেকিং:
মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্র থেকে প্রসূতিকে বের করে দিলেন আয়া,অতঃপর . মাদরাসায় বাংলায় সাইনবোর্ড স্থাপনের নির্দেশ সরকার সবার জন্য নিরাপদ পানি, স্যানিটেশন নিশ্চিত করছে দেশে খাদ্য ঘাটতির সম্ভাবনা নেই: খাদ্যমন্ত্রী নতুন স্ন্যাপড্রাগন আসছে এ সপ্তাহেই ১৮ মাসের কাজ শেষ হয়নি ৬২ মাসেও অ্যান্টিবায়োটিক চেনাতে চিহ্ন ব্যবহারের সিদ্ধান্ত সরকারের ফেসবুক পোস্টে ‘হা হা’ দেওয়ায় ব্যাপক ভাঙচুর, পুলিশ মোতায়েন নন-ব্যাংক আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোকে শৃঙ্খলার মধ্যে আনতে হবে গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু, গলায় পোড়া দাগ গরু-ছাগলের মাংসে যক্ষ্মার জীবাণু শনাক্ত টানা ২৮ দিন করোনায় মৃত্যুশূন্য দেশ, কমলো শনাক্ত বন্যার্তদের দুঃসময়ে সরকার পাশে রয়েছে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী প্রাক্তন স্বামীর হামলায় আহত চিকিৎসক স্ত্রী ডাইনিং বন্ধ, হোটেলে উচ্চমূল্য: বিপাকে কুবি শিক্ষার্থীরা দূষণে বছরে ৯০ লাখ মানুষের প্রাণহানি: গবেষণা ইউক্রেন-রাশিয়া যুদ্ধে ৩৭৫২ বেসামরিক নাগরিকের মৃত্যু ‘শুধু চোর নয়, চোরাই মোবাইল বিক্রেতারাও গ্রেফতার হবে’ কক্সবাজারে অপরিকল্পিত স্থাপনা নির্মাণ নয়: প্রধানমন্ত্রী চরাঞ্চলের জনগণের ক্ষুধা-দারিদ্র্য হ্রাসে প্রকল্প নেয়া হয়েছে
  • বৃহস্পতিবার   ১৯ মে ২০২২ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ৫ ১৪২৯

  • || ১৬ শাওয়াল ১৪৪৩

দুর্নীতিমুক্ত সমাজ গড়াই সরকারের মূল উদ্দেশ্য: নৌপ্রতিমন্ত্রী

নোয়াখালী সমাচার

প্রকাশিত: ২৭ জানুয়ারি ২০২২  

অর্থনৈতিক উন্নয়ন, দারিদ্র্য বিমোচন ও দুর্নীতিমুক্ত সমাজ গঠনের পথ সুগম করাই সরকারের মূল উদ্দেশ্য বলে জানিয়েছেন নৌ পরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী।

বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ শিপিং কর্পোরেশনের ভার্চুয়াল আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশে সুশাসন প্রতিষ্ঠা করা, সব কাজে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা নিশ্চিতকরণ, অর্থনৈতিক উন্নয়ন, দারিদ্র্য বিমোচন এবং দুর্নীতিমুক্ত সমাজ গঠনের পথ সুগম করাই বর্তমান সরকারের মূল উদ্দেশ্য। তাই শেয়ার হোল্ডারদের যেকোনো সমালোচনা ও পরামর্শ আমাদের কাম্য।

খালিদ মাহমুদ বলেন, আন্তর্জাতিক নৌপথের নিরাপদ ও দক্ষ শিপিং সেবা প্রদান করা এবং বাংলাদেশের সিংহভাগ আমদানি ও রফতানি পণ্য নিজস্ব জাহাজে পরিবহনের উদ্দেশ্যে ১৯৭২ সালে বাংলাদেশ শিপিং কর্পোরেশন প্রতিষ্ঠা করা হয়। স্বাধীন বাংলাদেশে একটি শক্তিশালী নৌ বাণিজ্য সহায়ক পরিবহন নেটওয়ার্কের ভিত গড়ে তোলার লক্ষ্যে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান নৌ পরিবহন মন্ত্রণালয়কে সরাসরি তার অধীনে রেখেছিলেন। কর্পোরেশন প্রতিষ্ঠার মাত্র চার মাসের মাথায় বাংলাদেশের প্রথম সমুদ্রগামী জাহাজ বাংলার দূত-এর পরপরই বাংলার সম্পদ নামে অপর একটি জাহাজ বাংলাদেশ শিপিং কর্পোরেশনের বহরে সংযুক্ত হয়। বঙ্গবন্ধুর সুচিন্তিত দিকনির্দেশনা এবং তার জীবদ্দশায় ১৯৭৪ সালের মধ্যেই ২৬টি সমুদ্রগামী জাহাজ বাংলাদেশ শিপিং কর্পোরেশনের বহরে সংযোজনের ব্যবস্থা করা হয়।

তিনি আরো বলেন, বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনায় বর্তমান সরকার কর্তৃক সামগ্রিক উন্নয়নের ধারাবাহিকতায় বাংলাদেশ শিপিং কর্পোরেশনের নানাবিধ পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে। এরই মধ্যে বাংলাদেশ শিপিং কর্পোরেশনের বহরে নতুন ছয়টি জাহাজ যুক্ত হয়েছে। আরো ছয়টি জাহাজ সংগ্রহের কার্যক্রম চলমান রয়েছে।