ব্রেকিং:
ডিপ্লোমা কোর্সের মেয়াদ নিয়ে আবারও বিতর্ক উত্তরায় প্রাণহানি: প্রধানমন্ত্রীর শোক নোয়াখালীতে জাতীয় শোক দিবস পালিত গাড়ি চালাচ্ছিলেন বরের বাবা, কারোই ফেরা হলো না বাসায় সরানো হলো গার্ডার, ৫ লাশ উদ্ধার টুঙ্গিপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা ফেনী নদীতে জেলেদের জালে ধরা ৭ মণ ইলিশ উপকূলীয় ৭ উপজেলার উন্নয়নে মহাপ্রকল্প আগামী বছর থেকে সপ্তাহে ৫ দিন ক্লাস: শিক্ষামন্ত্রী শোক দিবস উপলক্ষে চাঁদপুরে ৫০ হাফেজকে খাবার দিল পুনাক অটোরিকশা-মোটরসাইকেল সংঘর্ষে প্রাণ গেল স্কুলছাত্রের মাছ ধরতে গিয়ে ট্রাক্টরে আটকে গেল কিশোর জমিতে কাজ করতে গিয়ে বজ্রপাতে কৃষকের মৃত্যু রায়পুরে ছাত্রীকে যৌন হয়রানি, জামায়াত নেতা গ্রেফতার নবীনগরে ভাতিজার ঘুষিতে প্রাণ গেল চাচার সুইস ব্যাংকে তারেকের অ্যাকাউন্টে দেড় হাজার কোটি টাকা মাঠে কাজ করার সময় বজ্রপাত, প্রাণ গেল কৃষকের খালেদার কাল্পনিক জন্মদিন উদযাপন নিয়ে দ্বন্দ্বে বিএনপি প্রবাসীর স্ত্রীকে অচেতন করে নগ্ন ভিডিও ধারণ, গ্রেফতার ২ শোক দিবসে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে সর্বস্তরের মানুষের শ্রদ্ধা
  • মঙ্গলবার   ১৬ আগস্ট ২০২২ ||

  • ভাদ্র ২ ১৪২৯

  • || ১৮ মুহররম ১৪৪৪

খোলা জায়গায় টয়লেট ব্যবহারে প্রথম রংপুর

নোয়াখালী সমাচার

প্রকাশিত: ২৭ জুলাই ২০২২  

দেশের মোট জনসংখ্যার মধ্যে খোলা জায়গায় টয়লেট ব্যবহারের শীর্ষে রয়েছে রংপুর বিভাগ। আর আর সর্বনিম্ন অবস্থানে রয়েছে ঢাকা বিভাগ। জনশুমারি ২০২২-এর প্রকাশিত প্রাথমিক প্রতিবেদন থেকে এ তথ্য জানা গেছে।

বুধবার (২৭ জুলাই) রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে (বিআইসিসি) পরিসংখ্যান ও তথ্য ব্যবস্থাপনা বিভাগের আওতায় বিবিএস-এর মাধ্যমে বাস্তবায়িত প্রথম ডিজিটাল জনশুমারি ও গৃহগণনা ২০২২ এর প্রাথমিক প্রতিবেদন প্রকাশনা অনুষ্ঠানে এ তথ্য তুলে ধরা হয়।

প্রতিবেদনে বলা হয়, দেশের মোট জনসংখ্যা এখন ১৬ কোটি ৫১ লাখ ৫৮ হাজার ৬১৬ জন। যেখানে ৮ কোটি ১৭ লাখ পুরুষ ও ৮ কোটি ৩৩ লাখ নারী ও ১২ হাজার ৬২৯ জন তৃতীয় লিঙ্গ। এবারই প্রথম দেশের পুরুষের চেয়ে নারীর সংখ্যা বেড়েছে।

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়,  দেশে মোট জনসংখ্যার হিসেবে খোলা জায়গায় টয়লেট ব্যবহার করে শতকরা হিসেবে দশমিক ২৮ শতাংশ। এর মধ্যে প্রথম অবস্থানে রয়েছে রংপুর বিভাগ, যা শতকরা ৪ দশমিক ৩১ শতাংশ। আর সর্বনিম্ন অবস্থানে রয়েছে ঢাকা বিভাগ।

এছাড়া দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে সিলেট বিভাগ। বিভাগটিতে শতকরা ২ দশমিক ৬৫ শতাংশ মানুষ খোলা জায়গায় টয়লেট করে, যাদের কোনো ল্যাট্রিন নেই। রাজশাহীতে এই হার ১ দশমিক ৫৬ শতাংশ, ময়মনসিংহে ১ দশমিক ৫৫ শতাংশ, চট্টগ্রামে দশমিক ৯০ শতাংশ, খুলনায় দশমিক ৩৪ শতাংশ, আর বরিশালে দশমিক ৩০ শতাংশ।

জাতীয় পর্যায়ে ৫৬ দশমিক ০৪ শতাংশ বাথরুমে (খানা) ফ্ল্যাশ করে বা পানি ঢেলে নিরাপদ নিষ্কাশন সংবলিত টয়লেট সুবিধা রয়েছে। ২১ দশমিক ৭২ শতাংশ বাথরুমে স্ল্যাবসহ পিট ল্যাট্রিন বা ভেন্টিলেটেড ইমপ্রুভড ল্যাট্রিন/ কম্পোস্টিং ল্যাট্রিন সংবলিত টয়লেট সুবিধা রয়েছে এবং ১ দশমিক ২৩ শতাংশ বাথরুমে খানায় টয়লেট সুবিধা নেই।

পরিকল্পনা মন্ত্রী এম এ মান্নানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত আছেন স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী, জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন, পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী ড. শামসুল আলম প্রমুখ। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন পরিসংখ্যান ও তথ্য ব্যবস্থাপনা বিভাগের সচিব ড. শাহনাজ আরেফিন। প্রাথমিক প্রতিবেদন বিষয়ক উপস্থাপনা করেন প্রকল্প পরিচালক মো. দিলদার হোসেন।
 

এর আগে গত ১৫ জুন ভাসমান জনগোষ্ঠীর তথ্য সংগ্রহের মধ্যদিয়ে দেশে শুরু হয় ষষ্ঠ ‘জনশুমারি ও গৃহগণনা-২০২২’ কার্যক্রম। এবারই প্রথমবারের মতো ডিজিটাল পদ্ধতিতে করা হয় শুমারির কাজ। নিরাপত্তা ও সহজে তথ্য বিনিময়ের স্বার্থে দিনের বেলায় নিয়োজিত কর্মীরা বাড়ি বাড়ি গিয়ে তথ্য সংগ্রহ করেন।

'জনশুমারিতে তথ্য দিন, পরিকল্পিত উন্নয়নে অংশ নিন' এ প্রতিপাদ্য নিয়ে প্রাথমিকভাবে ২১ জুন রাত পর্যন্ত তথ্য সংগ্রহ কার্যক্রম চলে।

উল্লেখ্য, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নির্দেশনায় ১৯৭৪ সালে প্রথম আদমশুমারি ও গৃহগণনা পরিচালিত হয়। এরই ধারাবাহিকতায় দশ বছর পরপর ১৯৮১, ১৯৯১, ২০০১ এবং ২০১১ সালে যথাক্রমে দ্বিতীয়, তৃতীয়, চতুর্থ ও পঞ্চম আদমশুমারি ও গৃহগণনা অনুষ্ঠিত হয়।