ব্রেকিং:
অপসংস্কৃতির বিরুদ্ধে যুদ্ধ করতে হবে: মুক্তিযুদ্ধমন্ত্রী আর্জেন্টিনার এমন অসহায় আত্মসমর্পণ কেন? ২১ দিন বন্ধের পর সুপ্রিম কোর্ট খুলছে আজ মুর্তজার মৃত্যুদণ্ড বাতিল করল সৌদি আরব ‘বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন পূরণেই জীবনের ঝুঁকি নিয়ে কাজ করছি’ আজ বিশ্ব বাবা দিবস বিয়ের প্রলোভনে মাদ্রাসা শিক্ষিকাকে ধর্ষন হাতকড়াসহ আসামির পলায়ন পাদুকা শিল্পে উৎসাহিত করতে বিশেষ সুবিধা মুক্তিযোদ্ধা ভাতা ২ হাজার টাকা বৃদ্ধি গবেষণা ও উন্নয়ন খাতে বরাদ্দ ৫০ কোটি টাকা পদ্মা সেতুসহ ১০ মেগা প্রকল্পে বরাদ্দ ৩৯ হাজার কোটি টাকা শিশুদের জন্য ৮০ হাজার ১৯০ কোটি টাকার বাজেট কৃষি যান্ত্রিকীকরণে ভর্তুকি বাড়বে একশটি অর্থনৈতিক অঞ্চলের মাধ্যমে ১ কোটি কর্মসংস্থান নারী উন্নয়নে বরাদ্দ বেড়েছে ২৩ হাজার ৫০৫ কোটি টাকা শিক্ষা ও প্রযুক্তি খাতে মোট বাজেটের ১৫ দশমিক ২ শতাংশ ঢাকার পূর্বাচলে ৬০ হাজার ফ্ল্যাট তৈরির পরিকল্পনা প্রতিবন্ধীদের নিয়োগ দিলেই কর রেয়াত রেলপথ মন্ত্রণালয়ে ১৬ হাজার ৩৫৭ কোটি ৯০ লাখ টাকা বরাদ্দের প্রস্তাব

রোববার   ১৬ জুন ২০১৯   আষাঢ় ৩ ১৪২৬   ১২ শাওয়াল ১৪৪০

সর্বশেষ:
শেয়ারবাজারের লেনদেন শুরু হচ্ছে আজ অফিস-আদালতে ঈদের আমেজ হিলি স্থলবন্দরে আমদানি-রফতানি শুরু আলজেরিয়ায় কোরআন মুখস্থ করলে জেল থেকে মুক্তি হাইভোল্টেজ ম্যাচে মুখোমুখি ভারত-অস্ট্রেলিয়া পাসওয়ার্ড: ‘বিশ্বমানের’ সিনেমা কি এমন হয়?
১৬

১০ টাকায় শাড়ি!

প্রকাশিত: ১০ জুন ২০১৯  

মাত্র ১০ টাকা দিয়ে পাওয়া যাবে গোটা একটা শাড়ি। আর সেটি পেতে আপনাকে বেশি দূর যেতে হবে না। পাশের দেশ ভারতে গেলেই হবে।

ভারতের মুম্বাই শহরের মার্কেটের এক দোকানে ঠিক এই রকম ছাড় দেয়া হয়েছে। শুনে অবাক হচ্ছেন নিশ্চয়ই। তবে এটি কিন্তু সত্যি ঘটনা।

গজানন মার্কেটে সপ্তাহব্যাপী চলছে এমন  ছাড়। আর এমন ছাড়ে শহরজুড়ে ব্যাপক আলোড়ন শুরু হয়েছে। প্রচুর লোকজন ভিড় করছে ওই মার্কেটে। শনিবার ভিড় এতটাই মাত্রা ছাড়ায় যে পুলিশকে হাজির হতে হয় ঘটনাস্থলে।

গজানন মার্কেটের রং ক্রিয়েশন নামক এক দোকানে শুরু হয়েছে এই সেল। দোকানের মালিক অশ্বিন শাখারের বক্তব্য, সারা বছর ধরে শাড়ি বিক্রি করে লাভ করি। তাই এই ছাড় দিয়ে সমাজের সেবা করতে চাই। যাদের সামর্থ নেই, তারাও যাতে এই দামে শাড়ি কিনতে পারেন, তাই এমন ব্যবস্থা।

চলতি মাসের ৫ তারিখ থেকে এই ছাড় শুরু হয় দোকানে। দিনে দিনে ক্রেতার সংখ্যা বাড়তে থাকে। ঘোষণা অনুযায়ী আগামী বুধবার পর্যন্ত এই ছাড় থাকার কথা ছিলো। কিন্তু শনিবার ক্রেতাদের সংখ্যা এতটাই বেড়ে যায় যে ভিড় সামলাতে দোকানের কর্মচারীরা হিমসিম খেতে শুরু করেন। ফরে দোকানের সামনে ক্রেতাদের লম্বা লাইন সামলাতে ডাকা হয় পুলিশ। তারপরও ভিড় সামলানো যাচ্ছিলো না।

তাই মেয়াদ শেষ হওয়ার তিন দিন আগে থাকতেই বন্ধ করে দেয়া হয় ওই ছাড়। তারপরও ক্রেতাদের থামানো যাচ্ছিলো না। দলে দলে লোকজন ছুটে যাচ্ছিলো ওই দোকানে। কোনো উপায় না পেয়ে শেষে দোকানই বন্ধ করে দিয়েছেন মালিক।

নোয়াখালী সমাচার
নোয়াখালী সমাচার