ব্রেকিং:
পেঁয়াজের মাধ্যমে ছড়াচ্ছে ব্যাকটেরিয়া, আক্রান্ত ৪২ দেশ বন্যায় এ পর্যন্ত ১০ হাজার ৪৮ মেট্রিক টন চাল বিতরণ হাওরে ট্রলারডুবি, ১৭ জনের মরদেহ উদ্ধার মৎস্য খাতে কোনো দুর্নীতি বরদাশত করা হবে না : শ ম রেজাউল `পাট খাতে যুগোপযোগী সংস্কার করা হচ্ছে` জুলাইয়ে রপ্তানি আয় বেড়েছে ১৩.৩৯ শতাংশ সব কাজ ডিজিটালি করার পথ খুলছে দেশে একদিনে আরো ৩৩ মৃত্যু, নতুন আক্রান্ত ২৬৫৪ বৈধ পথে বাড়ছে রেমিট্যান্স হুন্ডির দিন শেষ ঈদ ঘিরে বঙ্গবন্ধু সেতুতে টোল আদায়ে রেকর্ড মেজর সিনহার মাকে ফোন, বিচারের আশ্বাস প্রধানমন্ত্রীর একাদশ শ্রেণির ভর্তি আবেদন রোববার থেকে শুরু করোনায় স্বাস্থ্যকর্মীদের জন্য আবাসনে ছয় প্রতিষ্ঠান লেবাননে বিস্ফোরণে বাংলাদেশ নৌবাহিনীর ১৯ সদস্য আহত ঝড়বৃষ্টি নিয়ে দুঃসংবাদ জানালো আবহাওয়া অফিস লেবাননের বৈরুতে যে কারণে ঘটল বিস্ফোরণ গোপালগঞ্জে স্কুলে ও রাস্তায় আশ্রয় নিয়েছে ৫ শতাধিক বানভাসি চীনা ভ্যাকসিনের ফলাফল সন্তোষজনক হলে বাংলাদেশে ট্রায়াল শনিবার থেকে চামড়া কিনবেন ট্যানারি মালিকরা আন্তর্জাতিক বাজারে ২ শতাংশ বেড়েছে জ্বালানি তেলের দাম
  • বুধবার   ০৫ আগস্ট ২০২০ ||

  • শ্রাবণ ২২ ১৪২৭

  • || ১৫ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

৬১৩

হাতিয়ার চরাঞ্চলে বেড়েছে মহিষ চুরি

নোয়াখালী সমাচার

প্রকাশিত: ৪ ডিসেম্বর ২০১৯  

নোয়াখালী দ্বীপ উপজেলা হাতিয়ার বিভিন্ন চরাঞ্চলে বেড়েছে মহিষ চুরি। গত এক মাসে প্রায় অর্ধশতাধিক মহিষ চুরি হয়েছে। ফলে হাতিয়ার চার পাশে অবস্থানরত মহিষ বাতানদের মধ্যে দেখা দিয়েছে চরম আতংক। সম্প্রতি নলচিরা ইউনিয়নের ফরাজি গ্রামের জাবের হোসেন তার ২৫টি মহিষ চুরি হয়েছে মর্মে থানায় সাধারন ডায়েরী করলেও পুলিশ কোন খোঁজ দিতে পারে নি।
মহিষ মালিক হুমায়ুন কবির জানান, হাতিয়ার মূল ভূখন্ডে মহিষের জন্য কোন চারণ ভূমী না থাকায় সবাই বিভিন্ন চরে মহিষ পালন করে। বিশেষ করে বদনার চর, গাসিয়ার চর, জাগলার চর, মৌলভির চর ও গাংগুরিয়ার চরে হাতিয়ার প্রায় ১০ সহশ্রাধীক মহিষ পালন করছে বাতানরা।
সম্প্রতি একটি গ্রুপ এসব চর থেকে গভীর রাতে মাছধরা ট্রলার দিয়ে মহিষ চুরি করে নিয়ে যায়। এসব চরে আইন শৃংখলা বাহিনীর পাহারা না থাকায় অনেকটা অরক্ষিত থাকে মহিষ ও বাতানরা। জাগলার চরের বাতান ভুট্রু (৪৫) জানান, প্রতিরাতে চোরের দল চরে হানা দেয়। বাতানরা নিজেরা পাহারা দিলেও গভীর রাতে সুযোগ নিয়ে মহিষ নিয়ে যায়।
মহিষের মালিক জাবের জানান গাংগুরিয়ার চর থেকে সম্প্রতি তার ছোট বড় ২৫টি মহিষ চুরি হয়ে যায়। বিভিন্ন চরে খোঁজাখুঁজির পর না পেয়ে গত ৩০ নভেম্বর হাতিয়া থানায় একটি সাধরন ডায়েরী করা হয়। কিন্তু কোথাও এখন পর্যন্ত মহিষের কোন খোঁজ দিতে পারেনি আইন শৃংখলা বাহিনী।
এ ব্যপারে হাতিয়া কোষ্টগার্ডের স্টেশন কমান্ডার লে: মেহেদী হাসান জানান, মহিষ চুরির বিষয়ে আমরা জেনেছি। আমারা বিভিন্ন দিকে খোঁজখবর নিচ্ছি।

নোয়াখালী বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর