ব্রেকিং:
প্রেমিকাকে ধর্ষণ করে অন্যকে ফাঁসাতে গিয়ে ফেঁসে গেল বখাটে লংমার্চে হামলার প্রতিবাদে বিক্ষোভ সভা পা পিছলে পড়ে কিশোরের মৃত্যু ভাতিজিকে ধর্ষনের দায়ে জেঠা গ্রেফতার শেখ রাসেলের খুনিদের ফাঁসি কার্যকরের দাবী শ্রমিকলীগ নেতার কাছে চাঁদা দাবির অভিযোগ সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নের হারে মন্ত্রিসভার সন্তোষ প্রকাশ শেখ হাসিনা ইয়্যুথ ভলান্টিয়ার অ্যাওয়ার্ডের লোগো উন্মোচন মহাকাশে হারিয়ে যাচ্ছে স্টারলিংক স্যাটেলাইট ফুফুর অন্তরঙ্গ মুহূর্ত দেখা ফেলায় লাশ হলো শিশু সাফল্যের পথে বাংলাদেশ, অবাক চোখে তাকিয়ে ভারত দেশে একদিনে শনাক্ত ১৬৩৭, মৃত্যু বেড়েছে মাস্ক ব্যবহার নিশ্চিতে প্রয়োজনে মোবাইল কোর্ট: মন্ত্রিপরিষদ সচিব বেগমগঞ্জে কিশোর গ্যাংয়ের ৭ সদস্য গ্রেফতার একদিনে তিন লাখ ২৪ হাজার শনাক্ত, মৃত্যু ৩৯৬৮ কর্পোরেট ক্রিকেট দিয়েই সাকিবের ফেরার প্রস্তুতি জনগণের ভাষা বুঝে না বলেই বিএনপি ব্যর্থ: কাদের ১৮ বছর ধরে এক হাজার মানুষের সর্বনাশ করে পালিয়ে গেলো স্বামী-স্ত্রী অহংকারের পতন: বাসি ভাত খেয়ে দিন পার করছেন রানু মন্ডল বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তিতে পরীক্ষা হবে তিন ক্যাটাগরিতে
  • মঙ্গলবার   ২০ অক্টোবর ২০২০ ||

  • কার্তিক ৫ ১৪২৭

  • || ০২ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

১৭

সাত বছর কোমায় থেকে কর্নেল পদোন্নতি পেলেন তাছওয়ার রাজা

নোয়াখালী সমাচার

প্রকাশিত: ১৬ অক্টোবর ২০২০  

দীর্ঘ সাত বছর ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) চিকিৎসাধীন সেনা কর্মকর্তা লেফটেন্যান্ট কর্নেল দেওয়ান মোহম্মদ তাছওয়ার রাজা চৌধুরীকে কর্নেল পদমর্যাদায় পদোন্নতি দেয়া হয়েছে। এ পদমর্যাদা প্রদানের পর তাকে অবসর দেয়া হয়েছে। 

গত ১২ অক্টোবর দেওয়ান মোহম্মদ তাছওয়ার রাজা চৌধুরীকে সিএমএইচে চিকিৎসাধীন কোমায় থাকা অবস্থায় কর্নেল ব্যাজ পরিয়ে দেয়া হয়।

দেওয়ান মোহম্মদ তাছওয়ার রাজা চৌধুরীর পরিবার জানান, তাকে দেয়া এ পদোন্নতি সেনাবাহিনী প্রধানের এক মহানুভবতার পরিচয়। এই ঘটনা বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর গৌরবোজ্জ্বল ইতিহাসকে আরো সমৃদ্ধ করেছে।

 

সিএমএইচের ৩১৪ নম্বর কেবিন নন্দকুঁজা’য় দেওয়ান মোহম্মদ তাছওয়ার রাজা চৌধুরী কাটিয়েছেন সাত বছর - ডেইলি বাংলাদেশ

সিএমএইচের ৩১৪ নম্বর কেবিন নন্দকুঁজা’য় দেওয়ান মোহম্মদ তাছওয়ার রাজা চৌধুরী কাটিয়েছেন সাত বছর - ডেইলি বাংলাদেশ

দেওয়ান মোহম্মদ তাছওয়ার রাজা চৌধুরীর স্ত্রী মোসলেহা মুনিরা রাজা জানান, তার (দেওয়ান মোহম্মদ তাছওয়ার রাজা চৌধুরী) ঠিক প্রমোশনের এক মাস আগে অসুস্থ হয়ে যান। এ কারণে এক সময় খুব কষ্ট পেয়েছিলাম। তবে এতো বড় সম্মানের বিষয়টি আমি চিন্তাও করতে পারিনি। আমি কৃতজ্ঞ বাংলাদেশ সেনাবাহিনী ও সম্মিলিত সামরিক হাসপাতাল (সিএমএইচ) -এর কাছে। এ অনুভূতি আসলে ভাষায় প্রকাশ করা যাবে না।

সিএমএইচে চিকিৎসাধীন দেওয়ান মোহম্মদ তাছওয়ার রাজা চৌধুরীর চিকিৎসক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মাসুদ মজুমদার বলেন, হার্ট যখন কাজ করছিল না তখন আমরা এডভান্স কার্ডিয়াক সাপোর্টের মাধ্যমে হার্টকে সচল করেছিলাম। মাঝের ওই সময়টায় ব্লাড প্রেসার ছিল না। আমরা সব সময় আশাবাদী থাকি। আল্লাহ ভালো জানেন।

 

দেওয়ান মোহম্মদ তাছওয়ার রাজা চৌধুরীর পরিবার - সংগৃহীত

দেওয়ান মোহম্মদ তাছওয়ার রাজা চৌধুরীর পরিবার - সংগৃহীত

বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর একজন অসাধারণ পেশাদার, মিষ্টভাষী, হাস্যোজ্জ্বল, বিরাট হৃদয়ের কর্মকর্তা ছিলেন সদ্য অবসরপ্রাপ্ত কর্নেল দেওয়ান মোহম্মদ তাছওয়ার রাজা চৌধুরী। নানা গুণে গুণাণ্বিত এ সেনা কর্মকর্তা শৈশব থেকেই শিক্ষাসহ নানা ধাপে মেধার তুখোড়তা দেখিয়ে এসেছেন। 

দেওয়ান মোহম্মদ তাছওয়ার রাজা চৌধুরী বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ‘কিং অব দ্যা ব্যাটল’ নামে পরিচিত আর্মড কোরের কর্মকর্তা থাকাকালীন ২০১৩ সালের ১১ মার্চ সেনা সদরে কর্মরত অবস্থায় অসুস্থ হয়ে পড়েন। ঢাকার সিএমএইচে তৎক্ষণাৎ তাকে ভর্তি করা হয়। চলে যান কোমায়। বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর উদ্যোগে কোমায় থাকা অবস্থাতেই বিদেশে নিয়ে উন্নত চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হয়। তবে তাতেও জ্ঞান ফেরেনি।

 

বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর একজন অসাধারণ পেশাদার, মিষ্টভাষী, হাস্যোজ্জ্বল, বিরাট হৃদয়ের কর্মকর্তা ছিলেন সদ্য অবসরপ্রাপ্ত কর্নেল দেওয়ান মোহম্মদ তাছওয়ার রাজা চৌধুরী - সংগৃহীত

বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর একজন অসাধারণ পেশাদার, মিষ্টভাষী, হাস্যোজ্জ্বল, বিরাট হৃদয়ের কর্মকর্তা ছিলেন সদ্য অবসরপ্রাপ্ত কর্নেল দেওয়ান মোহম্মদ তাছওয়ার রাজা চৌধুরী - সংগৃহীত

পরে সেখান থেকে আবার সিএমএইচে ভর্তি করা হয়। আর সে সময় থেকে সিএমএইচের ৩১৪ নম্বর কেবিন নন্দকুঁজা’য় কাটিয়েছেন সাত বছর। আর সেখানে থাকা অবস্থাতেই পেলেন কর্নেল পদোন্নতি।

অবসরপ্রাপ্ত কর্নেল দেওয়ান মোহম্মদ তাছওয়ার রাজা চৌধুরী বাংলাদেশের সেনাবাহিনীকে নিয়ে লেখা বইগুলোর অন্যতম প্রধান লেখক। এগুলোর মধ্যে রয়েছে- ও জেনারেল মাই জেনারেল, বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর আর্মড কোরের ইতিহাস, বাংলাদেশ আর্মড কোর অন্যতম। এসব বই বাংলাদেশ সেনাবাহিনীতে দায়িত্ব পালনকালেই তিনি লেখেন।

এছাড়া তিনি সেনাবাহিনী বিশেষ বিভাগ, রেজিমেন্ট ও ইউনিট নিয়ে লিখেছেন। তার লেখায় উঠে এসেছে বাংলাদেশের মহান মুক্তিযুদ্ধে যুদ্ধক্ষেত্রের বিভিন্ন অবস্থা যা বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর চলমান প্রকল্পের আওতায় ছিল। 

 

তাছওয়ার রাজা চৌধুরী বাংলাদেশের সেনাবাহিনীকে নিয়ে লেখা বইগুলোর অন্যতম প্রধান লেখক - সংগৃহীত

তাছওয়ার রাজা চৌধুরী বাংলাদেশের সেনাবাহিনীকে নিয়ে লেখা বইগুলোর অন্যতম প্রধান লেখক - সংগৃহীত

তিনি মহান মুক্তিযুদ্ধের মুক্তিবাহিনীর সেনাপতি জেনারেল আতাউল গণি ওসমানীকে নিয়ে বই লিখেছেন, যা বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর মিলিটারি লাইব্রেরিতে রয়েছে।

প্রখ্যাত মরমি কবি এবং বাউল শিল্পী হাসন রাজার বংশধর দেওয়ান মোহম্মদ তাছওয়ার রাজা চৌধুরী। হাসন রাজাকে নিয়ে তিনি লিখেছেন ‘লাইফ অ্যান্ড ওয়ার্কস অব ম্যাজিস্টিক পয়েট হাসন রাজা’।

অবসরপ্রাপ্ত কর্নেল দেওয়ান মোহম্মদ তাছওয়ার রাজা চৌধুরী দুই সন্তানের জনক। এক মেয়ে ও এক ছেলে বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করছে।

জাতীয় বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর