ব্রেকিং:
জাতীয় কবির ১২১তম জন্মদিন আজ বাঙ্গালির ঈদ উৎসবে ‘রমজানের ওই রোজার শেষে’র আগমন কিভাবে? একদিনে সর্বোচ্চ ২৮ জনের মৃত্যু, শনাক্ত আরও ১৫৩২ দেশবাসীকে আওয়ামী লীগের ঈদ শুভেচ্ছা ক্ষতিগ্রস্ত বেড়িবাঁধ মেরামতের কাজ শুরু করেছে সেনাবাহিনী ২৮০ ট্রান্সজেন্ডার ও হিজড়াকে ঈদ সামগ্রী প্রদান ক্ষতিগ্রস্ত ৬ হাজার পরিবারকে ৩ কোটি টাকা সহায়তা দেবে ব্র্যাক ক্ষতিগ্রস্ত ৬ হাজার পরিবারকে ৩ কোটি টাকা সহায়তা দেবে ব্র্যাক ত্রাণ সহায়তা অব্যাহত ঈদ উপলক্ষে জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ঈদের শুভেচ্ছা জানালেন ভুটানের প্রধানমন্ত্রী বহিরাগতরা হাতিয়ায়ঃ আতঙ্কে স্থানীয়রা ছাত্রলীগ নেতার ঈদ সামগ্রী বিতরণ কোম্পানীগঞ্জে স্ক্যান করে রিলিফ স্লিপ জালিয়াতি উপজেলা প্রশাসন, স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও থানাকে পিপিই প্রদান লকডাউন অমান্য করায় ১০ হাজার টাকা জরিমানা শাওয়াল মাসের চাঁদ দেখা যায়নি, ঈদ আগামি ২৫ মে দেশে ২৪ ঘণ্টায় নতুন শনাক্ত ১৮৭৩, মৃত্যু ২০ মসজিদে সর্বাধিক ঈদের জামাতের আয়োজন করোনা রোগীর চিকিৎসায় ৩ হাজার পদ সৃষ্টি
  • সোমবার   ২৫ মে ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১১ ১৪২৭

  • || ০১ শাওয়াল ১৪৪১

৮৪৩

সংঘবদ্ধ ধর্ষণে নারী মৃত্যুশয্যায়

নোয়াখালী সমাচার

প্রকাশিত: ৮ অক্টোবর ২০১৯  

মোবাইল ফোনে প্রেমের সূত্র ধরে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে এক নারীকে নোয়াখালীর রামগঞ্জ থেকে সুধারামের আন্ডারচরে ডেকে এনে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। ধর্ষণে ওই নারী একপর্যায়ে জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন। পরে জ্ঞান আসলে তাকে পুনরায় একের পর এক ধর্ষণ শুরু করলে তার আত্মচিৎকারে এলাকাবাসী ছুটে এসে ভিকটিমকে উদ্ধার করেন।

হাসপাতালের ওয়ার্ডের চিকিৎসক ও সিনিয়র স্টাফ নার্স জানান, ধর্ষণের শিকার হওয়ায় নারীর যৌনাঙ্গ ছিঁড়ে গেছে যার কারণে রক্তক্ষরণ বন্ধ হচ্ছে না। হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. খলিল উল্যাহ জানান, পুলিশ রিকুইজিসান দিলে তার মেডিকেল টেস্ট করা হবে।

বর্তমানে ওই নারীকে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে পুলিশি নিরাপত্তার মাধ্যমে ভর্তি করে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।এ ঘটনায় সুধারাম থানায় মামলার পর একজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

নোয়াখালী সদর উপজেলার সুধারাম থানার ওসি নবীর হোসেন জানান, সুধারাম থানাধীন আন্ডারচর ইউপির ৭নং ওয়ার্ডের নুর ইসলামের ছেলে খোকন কয়েক মাস থেকে লক্ষ্মীপুর জেলার চর ফলকের রতনপুর গ্রামের মেয়ে বর্তমানে রামগঞ্জ পৌরসভার বাসিন্দার সঙ্গে প্রেম করে আসছিলেন।

শনিবার খোকন বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে নোয়াখালী পৌরসভার সোনাপুর আসতে বলেন ওই নারীকে। ভিকটিম সন্ধ্যা ৬টায় রামগঞ্জ থেকে জননী বাসযোগে সোনাপুর আসলে খোকন ও তার বন্ধু মিজান তাকে রাত ৯টায় আন্ডারচরের একটি সুপারি বাগান বাড়িতে নিয়ে যান।

সেখানে মিজান গিয়ে মো. শহিদ, মো. সিরাজ, নুর ইসলাম, মো. রশিদকে নিয়ে আসেন। তারা দলবদ্ধভাবে ওই নারীকে ধর্ষণ করলে তিনি জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন। পরে জ্ঞান আসলে তাকে পুনরায় একের পর এক ধর্ষণ শুরু করলে তার আত্মচিৎকারে এলাকাবাসী ছুটে এসে ভিকটিমকে উদ্ধার করেন। এ সময় অভিযুক্তরা পালিয়ে যান।এলাকার কয়েকজন ওই নারীকে থানায় প্রেরণ করেন।

নারীর শারীরিক অবস্থা খারাপ দেখে সুধারাম থানা পুলিশ তাকে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করেন। বর্তমানে তিনি জেনারেল হাসপাতালের গাইনি ওয়ার্ডের প্রধান ডা. সালাম ইসলামের তত্ত্বাবধানে চিকিৎসাধীন।

হাসপাতালের বেডে পুলিশ পাহারায় চিকিৎসাধীন ওই নারী কান্নাজড়িত কণ্ঠে জানান, তার এক ছেলে (৫) ও এক মেয়ে (৭) রয়েছে। স্বামীর মৃত্যুর পর রামগঞ্জে বাসা ভাড়া করে থাকেন। তিনি লোকজনের বাসাবাড়িতে কাজ করে সন্তানদের মানুষ করার চেষ্টা করছিলেন।

খোকনের সঙ্গে মোবাইলে পরিচয়ের সূত্র ধরে প্রেম হয়। খোকন তাকে দুই সন্তানের পিতৃত্ব দেবে স্বীকার করে বিয়ের প্রস্তাব দিয়ে আন্ডারচরে এনে তাকে ধর্ষণ করেছে।

এ ব্যাপারে তিনি নিজে বাদী হয়ে রোববার রাতে সুধারাম থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে খোকন, মিজান, শহিদ, সিরাজ, নুর ইসলাম ও রশিদকে আসামি করে মামলা করেছেন।

নোয়াখালীর এসপি আলমগীর হোসেন জানান, রাতেই পুলিশ প্রধান আসামি খোকনকে গ্রেফতার করেছে। অন্য আসামিদের গ্রেফতার অভিযান চলছে।

নগর জুড়ে বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর