ব্রেকিং:
ফেনীতে দুই বছর পূর্ণ করলেন জেলা প্রশাসক মোঃ ওয়াহিদুজজামান ৬ বছরের শিশু ধর্ষণ, আদালতে জবানবন্দি মাথা গোজার ঠাঁই চান ছাগলনাইয়ার ষাটোর্ধ গোলনাহার রামগঞ্জে সন্ত্রাসী ও মাদক ব্যবসায়ীদের গ্রেফতারের দাবীতে মানববন্ধন লক্ষ্মীপুরে ‘আবর্তন’এর পরিস্কার-পরিচ্ছন্নতা অভিযান দেশে একদিনে ৩৩ মৃত্যু, আক্রান্ত ২৯৯৬ তালিকা হচ্ছে বৈধ-অবৈধ হাসপাতালের মাস্ক পরা নিশ্চিতে নামবে ভ্রাম্যমাণ আদালত জিডিপি প্রবৃদ্ধি ৫.২৪% বাংলাদেশের নারী কর্মকর্তাদের ভূয়সী প্রশংসা বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকরা বিনামূল্যে ফসলের বীজ-চারা পাবেন সরকারের পদক্ষেপে সিনহার মা বোনের সন্তোষ দীর্ঘস্থায়ী বন্যার আশঙ্কায় প্রস্তুতির নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে বঙ্গবন্ধুর পররাষ্ট্রনীতিতে শিক্ষাক্ষেত্রে বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য নেতৃত্ব হোয়াইট হাউসে ট্রাম্পের ব্রিফিং, বাইরে গোলাগুলি স্কুলছাত্রীর মৃত্যু, হত্যাকারীর ফাঁসির দাবিতে মানববন্ধন ফেনী কলেজের ৭ শিক্ষকের অধ্যাপক পদে পদোন্নতি নোয়াখালীর ৪৬ প্রতিবন্ধী পেল চিকিৎসা সহায়তার চেক মাথা গোজার ঠাঁই চান গোলনাহার
  • বুধবার   ১২ আগস্ট ২০২০ ||

  • শ্রাবণ ২৮ ১৪২৭

  • || ২১ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

১০১

শ্বশুর বাড়ীতে গৃহবধূর আত্নহত্যা, স্বামী আটক

নোয়াখালী সমাচার

প্রকাশিত: ১ জুলাই ২০২০  

নোয়াখালীর সুবর্ণচরে ১ সন্তানের জননী শ্বশুর বাড়ীতে আত্নহত্যা করেছে, তবে এটি সুপরিকল্পিত হত্যা বলে দাবী করছেন নিহতের পরিবার। নিহত ঝর্না বেগমকে ননদ পারুল বেগমের স্বামী হুমায়ুন একাধিকবার ধর্ষণ করেছে বলেও অভিযোগ করেন নিহতের বাবা আবুল কালাম।

ধর্ষণের ঘটনায় অপবাদ সইতে না পেরে আত্মহত্যা করছে বলে প্রাথমিক ভাবে ধারনা করা হচ্ছে। এ ঘটনায় নিহতের স্বামী সাহাব উদ্দিনকে আটক করেছে চরজব্বার থানা পুলিশ ।

ঘটনাটি ঘটে ৩০ জুন মঙ্গলবার ভোর রাতে সুবর্ণচর উপজেলার ৫ নং চরজুবিলী ইউনিয়নের ২ নং ওয়ার্ডের পশ্চিম চরজুবিলী গ্রামে। সম্পূর্ণ ঘটনা রহস্যজনক বলে মনে করছেন এলাকাবাসী।

খবর পেয়ে চরজব্বার থানা পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে প্রেরণ করে। এ সময় নিহতের ঘর থেকে একটি চিরকুটও উদ্ধার করে পুলিশ।

ঘটনায় নিহতের পিতা বাদী হয়ে চর জুবলী গ্রামের মাহে আলমের পুত্র নিহতের স্বামী সাহাব উদ্দিন (২৬), ভগ্নিপতি মোঃ হুমায়ুন (৩৫), পিতা ঃ সিরাজুল ইসলাম, সাং- উত্তর কচ্ছপিয়া, ০৬নং ওয়ার্ড, সাহাব উদ্দিনের পিতা মাহে আলম (৬৫), মাতা হাজরা বেগম (৪৫), ভাই নুর উদ্দিন (৩০), মোঃ জসিম (৩৫) সর্ব সাং- চরজুবলী, ০২ নং ওয়ার্ড, ০৫ নং চরজুবলী ইউপি আসামী করে চরজব্বার থানায় একটি মামলা করার প্রস্তুতি নিচ্ছেন।

নিহতের পিতা আবু কালাম বলেন, “২ বছর আগে চর জুবলী গ্রামের মাহে আলমের পুত্র সাহাব উদ্দিন (২৬)এর সাথে আমার নমেয়ে ঝর্ণা বেগমকে বিয়ে দেই। বর্তমানে তাদের ঘরে আব্দুর রহমান নামের ৬ মাসের একটি শিশু সন্তান রয়েছে। বিয়ের পর থেকে আমার মেয়েকে শ্বশুরবাড়ীর লোকজন অকারণে মারধর করতো সম্প্রতি সাহাব উদ্দিনের বোনের স্বামী হুমায়ুন আমার মেয়েকে ধর্ষণের চেষ্টা করে। আমার মেয়ের কাছ থেকে উপরোক্ত ঘটনা জানতে পেরে এই বিষয়টি এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গাকে জানাইলেও বিচার, শালিস হয়। ২৮ জুন আমার স্ত্রী রোশন আক্তার (৪৫) কে আমার মেয়ে ফোন করে জানাই ঝর্ণার ননদের স্বামী হুমায়ুন তার থাকার রুমে প্রবেশ করিয়া জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। এই খবর পেয়ে আমার স্ত্রী আমার মেয়ের শ^শুর বাড়ী গেলে মেয়ের শাশুড়ী হাজেরা বেগম হাতজোড় করে ধরে তাহারা সমাধন করবে বলে আমার স্ত্রীকে বাড়ি পাঠিয়ে দেয়। গতকাল ২৯ জুন রাত ৯ টায় আমার মেয়ে ও মেয়ের স্বামীর সাথে আমি ও আমার স্ত্রী ফোনে কথা বলেছি। আজ ৩০ জুন মঙ্গলবার সকাল ৯ টায় স্থানীয় এলাকার মেম্বার আমায় ফোন করে বলে আমার মেয়ে ফাঁসি দিয়েছে। এই খবর পেয়ে দ্রæত ঘটনাস্থলে আসি আমার বিশ্বাস আমার মেয়েকে আসামীগন পূর্বপরিকল্পিত ভাবে হত্যা করেছে”।
এলাকাবাসী বলেন, আমরা ২/৩ দিন ধরে শুনে আসছি ৩ দিন আগে নিহতের স্বামী কর্মস্থল চট্রগ্রামে থাকার সুবাধে নিহতের ননদের স্বামী হুমায়ুন চট্রগ্রাম থেকে শ্বশুর বাড়ীতে বেড়াতে এসে ঝর্ণাকে একা পেয়ে গভীর রাতে ঝর্ণাকে ধর্ষণ করে এ বিষয়ে ২৯ জুন সোমবার বিকেলে পারিবারিক ভাবে বৈঠকও হয়। এঘটনার সূত্র ধরে আত্মহত্যার ঘটনা ঘটতে পারে ।

চরজব্বার থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি) সাহেদ উদ্দিন বলেন, এঘটনায় এখনো কেউ মামলা করেনি, লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য নোয়াখালী জেনারেল

নোয়াখালী বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর