ব্রেকিং:
বন্দুকযুদ্ধে যুবলীগ কর্মীসহ নিহত ২ বাল্য বিয়ে বন্ধ করতে গায়ে হলুদের অনুষ্ঠানে চাটখিলের ইউএনও হাজির চরকাকড়ায় মুজিববর্ষ উপলক্ষে পরিস্কার পরিচ্ছন্নতা অভিযানের উদ্বোধন মৃত্তিকা বিজ্ঞানের ক্লাস নিলেন নোবিপ্রবি ভিসি লন্ডনে যেতে চান বেগম জিয়া, নির্বাসিত দলে পরিণত হচ্ছে বিএনপি! ‘অন্তঃস্বত্ত্বা’ বুবলীকে ডলার দিয়ে যুক্তরাষ্ট্র পাঠিয়েছেন শাকিব! দেশপ্রেমীরা দুর্নীতি করে না: পরশ করোনায় আক্রান্তদের ওপর এইচআইভির ওষুধ পরীক্ষা করবে জাপান দাড়ি, বোরকা ও ইন্টারনেট ব্রাউজিংয়ের জন্যও আটক করা হয় উইঘুরদের চাঁদপুরে আটদিনের বইমেলা শুরু অবৈধভাবে গ্রাহকের মিটার পরিবর্তন করায় আটক ১ নোয়াখালীতে অগ্নিকাণ্ডে অর্ধশত দোকান ছাই চীনকে ছয় ধরনের চিকিৎসা সরঞ্জাম দিল বাংলাদেশ আজও ক্ষত বয়ে বেড়াচ্ছে চুড়িহাট্টা সোনার দাম ফের বাড়ল মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য মুজিববর্ষের উপহার ১৩ হাজার ৬৩৯ কোটি টাকার নয় প্রকল্প অনুমোদন ধর্ষকদের বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রীর ‘জিরো টলারেন্স নীতি’ ঘোষণা লাইসেন্স না থাকা ও অননুমোদিত বিজ্ঞাপন প্রকাশ, তিন ট্রাভেল এজেন্সি কোম্পানীগঞ্জে কলেজ ছাত্রীর রহস্যজনক মৃত্যু
  • বৃহস্পতিবার   ২০ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ||

  • ফাল্গুন ৭ ১৪২৬

  • || ২৫ জমাদিউস সানি ১৪৪১

সর্বশেষ:
একবছরে পাঁচগুণ মুনাফা বেড়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের আমাজন বাঁচাতে লিওনার্দোর ৫০ মিলিয়ন ডলারের অনুদান ১৬২৬৩ ডায়াল করলেই মেসেজে প্রেসক্রিপশন পাঠাচ্ছেন ডাক্তার জোরশোরে চলছে রূপপুর পারমাণবিক প্রকল্পের কাজ
৬৩

রোহিঙ্গা ইস্যু অগ্রাধিকার হিসেবে তোলা হবে জাতিসংঘে

নোয়াখালী সমাচার

প্রকাশিত: ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৯  

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন বলেন,  রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনের ইস্যুটি আমাদের অগ্রাধিকার হিসেবে রয়েছে। জাতিসংঘের আগামী অধিবেশনে উত্থাপন করা হবে। বিষয়টি অবশ্যই সেখানে বিভিন্ন ফোরামে তোলা হবে।
মঙ্গলবার রাজধানীর ইস্কাটনে ঢাকা লেডিজ ক্লাবে কুসুমকলি স্কুলের শিক্ষার্থীদের স্কুল ড্রেস, ব্যাগ ও অন্যান্য উপকরণ বিতরণ অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, রোহিঙ্গাদের ফেরত পাঠানোর ব্যাপারে প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি। এটি একটি চলমান প্রক্রিয়া। প্রচেষ্টা চালিয়ে যাবো। আশা করছি আগামীতে কোনো সময় প্রত্যাবাসন শুরু হবে।

মিয়ানমারের সঙ্গে বৈঠক প্রসঙ্গে মন্ত্রী বলেন, এ বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। এখনো আলাপ আলোচনা চলছে। কেউ কেউ প্রস্তাব দিয়েছেন। শুধু শুধু বসেতো লাভ নেই। অনেকবার বসেছি। আমরা চাই আলোচনা যাতে ফলপ্রসূ হয়।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, সমস্যার সমাধান না হলে এই এলাকায় যতগুলো রাষ্ট্র আছে, চীন, ভারত, মিয়ানমার, বাংলাদেশে আগামীতে কিছুটা অনিশ্চয়তা তৈরি হবে। আর অনিশ্চয়তা তৈরি হলে উন্নয়নও হয় না, লক্ষ্যবস্তুগুলোও অর্জন সম্ভব হবে না। আমরা তাদেরকে এটাই বলেছি। এখানে যদি ঝামেলা হয়, তাহলে সেটা সবার জন্যই অমঙ্গল হবে।

তিনি বলেন, রোহিঙ্গাদের বিষয়ে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র আমাদের অনেক টাকা পয়সা দিচ্ছে। তারা বড় দাতা। এই সহায়তা চালিয়ে যাবে। তবে মিয়ানমারের জেনারেলের বিরুদ্ধে একটি ব্যবস্থা নেয়া ছাড়া তারা আর কিছুই করেনি। মিয়ানমারকে যুক্তরাষ্ট্র জিএসপি সুবিধা দিয়েছে। একটি নেভাল চুক্তিও করেছে।

মানবাধিকার সংগঠনগুলো সুযোগ সুবিধা কেড়ে নেয়ার কথা বলছে, এমন প্রশ্নে সংগঠনগুলোকে জিজ্ঞেস করার অনুরোধ জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, তারা রোহিঙ্গাদের নিজেদের জায়গায় নিয়ে গেলে আমরা স্বাগত জানাবো। এতে আমাদের কোনো আপত্তি নেই। যারা এসব বলেন খুব সহজে, কিন্তু করা খুব কঠিন। যারা এসব কথা বলেন তারা রোহিঙ্গাদের রাখাইনে নিয়ে যাওয়ার ব্যবস্থা করে না কেন। সেখানে নিয়ে গিয়ে এসব কথা বলে না কেন। রাখাইনে এখনো বসবাসের কোনো পরিবেশ তৈরি হয়নি বলে জেনেছি, সেখানে গিয়ে বলুক।

রোহিঙ্গাদের হাতে পাসপোর্ট এবং জাতীয় পরিচয়পত্র যাওয়ার বিষয়টি খুবই দুঃখজনক জানিয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, এ ব্যাপারে আমরা শক্ত অবস্থান নিয়েছি। ভুয়া কাগজপত্র দিয়ে তারা যাতে পাসপোর্ট ও জাতীয় পরিচয়পত্র নিতে না পারে সেজন্য উদ্যোগ নিয়েছি। ভুয়া হলে আমরা সেগুলো জব্দ করবো। 

নোয়াখালী সমাচার
নোয়াখালী সমাচার
জাতীয় বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর