ব্রেকিং:
করোনার মধ্যেই বাণিজ্য মেলা ফুলগাজীতে মেছো বাঘ আটক ফেনীতে স্বাস্থ্য কার্যক্রম পরিদর্শনে সেব্রিনা ফ্লোরা লক্ষ্মীপুর আইনজীবী সমিতি নির্বাচন ঈদে মুক্তি পাচ্ছে ”ভাইজান” নোয়াখালীতে সাংবাদিক বোরহান হত্যার তদন্তে পিবিআই স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের ১৩ বছর পর রায়, আসামির যাবজ্জীবন করোনায় আরো পাঁচজনের মৃত্যু, শনাক্ত ৪২৮ শেখ হাসিনার মতো নেতা সারাবিশ্বে পাওয়া যাবে না: ডা. দিপু মনি কেন্দ্রীয় পুলিশ হাসপাতালে সাধারণ মানুষও চিকিৎসা পাবেন: আইজিপি তথ্যের স্বচ্ছতা-নিরাপত্তা নিশ্চিতে ব্লকচেইন ব্যবহার করছে সরকার টিকা নিলেন শেখ রেহানা পুলিশ সদস্যদের লাল গোলাপ দিল সাত কলেজের শিক্ষার্থীরা টিকায় অ্যান্টিবডির ভালো ফল মিলছে ২৫০৪ যুদ্ধাপরাধীর তালিকা রয়েছে সরকারের কাছে স্বপ্ন জাগিয়েছে মেগাপ্রকল্প সাশ্রয়ী মূল্যে সুপেয় পানি সরবরাহের সুপারিশ বন্ডের বাজারে রেকর্ড পরিমাণ লেনদেন আরও সহজ হলো প্রণোদনা প্যাকেজ টিকা কিনতে ৯৪ কোটি ডলার সহায়তা দেবে এডিবি
  • বৃহস্পতিবার   ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ||

  • ফাল্গুন ১৩ ১৪২৭

  • || ১২ রজব ১৪৪২

রামগঞ্জে ইঁদুর মারার ফাঁদে পড়ে মাদ্রাসাছাত্রের মৃত্যু

নোয়াখালী সমাচার

প্রকাশিত: ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২১  

রামগঞ্জে বোরো ক্ষেতের ইঁদুর মারার ফাঁদে রাকিব হোসেন সুমন নামে এক মাদ্রাসাছাত্রের মৃত্যু হয়েছে। গত শনিবার সকালে উপজেলার নোয়াগাঁও ইউনিয়নের হোটাটিয়া গ্রামের আবুল খায়ের ইটভাটার পূর্ব পাশে ফসলি মাঠে এ ঘটনা ঘটে। বিদ্যুতের তারের সাহায্যে ইঁদুর মারার ফাঁদ পাতা হয় বলে জানা গেছে। স্থানীয় ইউপি সদস্য ও প্যানেল চেয়ারম্যান সোহেল পাটোয়ারী বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। খবর পেয়ে থানার পরিদর্শক (তদন্ত) কার্তিক চন্দ্র বিশ্বাস ও এসআই মহসিন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। পরে সোহেল মেম্বার সমাধানের আশ্বাস দিলে ময়নাতদন্ত ছাড়াই লাশ দাফন করা হয়।

 

এলাকাবাসী জানান, হোটাটিয়া চৌকিদার বাড়ির মোরশেদ আলম পার্শ্ববর্তী বাড়ি থেকে শুক্রবার রাতে বৈদ্যুতিক লাইন হোটাটিয়া উত্তর মাঠে নিয়ে জিআই তার দিয়ে তার চাষের বোরো জমির চারপাশে লাগিয়ে ইঁদুর মারার ফাঁদ তৈরি করেন। শনিবার সকাল ৮টার দিকে একই বাড়ির বিল্লাল হোসেনের ছেলে আশাপুরা নুরানি ও হাফেজিয়া মাদ্রাসার ছাত্র হাফেজ রাকিব হোসেন সুমন (১৩) বোরো ক্ষেতে শামুক খুঁজতে যায়। এ সময় ইঁদুর মারার ফাঁদে হাফেজ সুমনের মৃত্যু হয়। এই ঘটনায় এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে। অন্যদিকে  স্থানীয় ইউপি সদস্য সোহেল পাটোয়ারী ঘটনাটি ধামাচাপা দিয়ে ময়নাতদন্ত ছাড়াই সমাধানের নামে লাশ দাফন করেন।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েকজন জানান, জমির মালিক মোর্শেদ নিজেই সকালে জমিতে এসে লাশ দেখতে পেয়ে দ্রুত বিদ্যুৎ লাইন সরিয়ে নিয়ে কাউকে কিছু না জানিয়ে তার বসতঘরে তালা ঝুলিয়ে গোপনে পালিয়ে যান।

সুমনের বাবা বিল্লাল হোসেন অভিযোগ করেন, আমার ছেলেকে শর্টসার্কিট দিয়ে হত্যা করা হয়েছে। আমি হত্যাকারীর উপযুক্ত শাস্তির দাবি জানাচ্ছি। তিনি আরও বলেন, হত্যাকারীরা দ্রুত বৈদ্যুতিক লাইন সরিয়ে নিয়ে সুমনের লাশটি গুম করার চেষ্টা করে। এলাকাবাসী দেখে ফেলায় তারা লাশ গুম করতে ব্যর্থ হয়। ইউপি সদস্য সোহেল পাটোয়ারী বলেন, মৃত সুমনের পরিবারের সঙ্গে কথা বলেই আমি লাশ দাফনের মাধ্যমে বিষয়টি সমাধান করে দিয়েছি। ক্ষতিপূরণের বিষয় নিয়ে পরবর্তীতে আবার বৈঠকে বসা হবে।

পরিদর্শক (তদন্ত) কার্তিক চন্দ্র বিশ্বাস জানান, মৃত মাদ্রাসাছাত্রের পরিবারের পক্ষ থেকে থানায় কোনো অভিযোগ করেনি। ওসি মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন জানান, অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।