ব্রেকিং:
দেশে ২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত ২৬৯৫, মৃত্যু ৩৭ হাতিয়ায় নদীর পাড়ে মিললো লাশ মৃত ব্যক্তির লাশ রেখে পালালো স্বজনরা, দাফন করলেন ইউপি চেয়ারম্যান পরশুরামের আরও এক পুলিশ সদস্যের মৃত্যু জমির বিরোধ নিয়ে যুবককে কুপিয়ে আহত কাউন্সিলর ও আওয়ামী লীগ নেতাসহ আরও ১৬ জনের করোনা প্রধানমন্ত্রীর অনুদানে পৌনে ৪১ লক্ষ টাকা পাচ্ছে ফেনীর ৫ পৌরসভা দেশে ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্তের নতুন রেকর্ড, মৃত্যু ৩৭ নিজেরা আক্রান্ত হয়েও সেবায় পিছিয়ে নেই চিকিৎসাকর্মীরা করোনা সঙ্কটেও মে মাসে দেড় বিলিয়ন ডলার রেমিট্যান্স স্বাস্থ্যবিধি লঙ্ঘনে আরও কঠোর হবে সরকার সংক্রমণ বিবেচনায় তিনটি জোনে ভাগ হবে দেশের বিভিন্ন এলাকা বাংলাদেশী হত্যাকাণ্ডে জড়িতদের বিচারের প্রতিশ্রুতি লিবিয়ার চলমান ক্ষুদ্র ও বৃহৎ উন্নয়ন প্রকল্পের মেয়াদ বাড়ছে ১০ হাজার কোটি টাকার জরুরী তহবিল এটিএম বুথ এখন গ্রামেও করোনা-উত্তর অর্থনীতি পুনরুদ্ধার মূল লক্ষ্য গণপরিবহনে উঠার সময় এখন যেসব বিষয় না মানলেই বিপদ! রামগঞ্জে শিশু সন্তান নিয়ে প্রবাসীর স্ত্রী উধাও ফেনীতে কাউন্সিলরসহ আক্রান্ত আরো ১৬
  • বুধবার   ০৩ জুন ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ২১ ১৪২৭

  • || ১১ শাওয়াল ১৪৪১

৪৯০

যৌতুকের নেশায় পাগল স্বামী স্ত্রীকেও ছাড়লো না

নোয়াখালী সমাচার

প্রকাশিত: ১৭ অক্টোবর ২০১৯  

নোয়াখালীর সুবর্ণচরে যৌতুকের জন্য নির্যাতনের পর এক গৃহবধূকে শ্বাসরোধে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনার পর হাসপাতালে স্ত্রীর মরদেহ রেখেই স্বামী মো. জামাল উদ্দিন পালিয়ে গেছেন।
নিহত মারিয়া আক্তার উপজেলার চর রশিদ গ্রামের আবুল কালামের মেয়ে। বুধবার সকালে মরদেহের সুরতহাল সম্পন্ন করে পুলিশ। পরে বিকেলে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়।

নিহতের স্বজনরা জানান, সাড়ে চার বছর আগে মারিয়া আক্তারের সঙ্গে সুবর্ণচরের চরহাসান গ্রামের সফু তালুকদারের ছেলে জামাল উদ্দিনের বিয়ে হয়। এরপর থেকেই যৌতুক ও পারিবারিক নানা বিরোধের জেরে মারিয়াকে নির্যাতন করতেন শ্বশুরবাড়ির লোকজন। এরই ধারাবাহিকতায় মারিয়ার স্বামী জামাল উদ্দিন, শাশুড়ি, ননদ ও দেবর মিলে মঙ্গলবার রাতে মারধরের পর তাকে শ্বাসরোধে হত্যা করেন। কিন্তু মারিয়া বিষ খেয়ে আত্মহত্যা করেছে বলে তারা জানান। পরে তাকে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে নিলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। এ সময় হাসপাতালে মরদেহ রেখেই স্বামী ও স্বজনরা পালিয়ে যান।স্বজনরা আরো জানান, স্বামী ও শ্বশুরের পরিবারের নির্যাতনের কারণে এর আগেও মারিয়া থানায় দুটি জিডি করেছেন।

চরজব্বর থানার ওসি (তদন্ত) মো. ইব্রাহিম খলিল জানান, যেহেতু হাসপাতালে মারা গেছে মামলাও সেখানে হবে। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন হাতে পেলে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে।সুধারাম থানার ওসি (তদন্ত) আব্দুল বাতেন জানান, মরদেহের সুরতহালের পর পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

নোয়াখালী বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর