ব্রেকিং:
সবজির পাশাপাশি আলু-পেঁয়াজেও মিলছে স্বস্তি হাম-রুবেলার টিকাদানে অংশ না নিলে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা ক্রিকেটে ৯৯ দেশকে পেছনে ফেলল বাংলাদেশ দেশে একদিনে মৃত্যু ২৪, আক্রান্ত ২ হাজারের বেশি ভাসানচরে পৌঁছাল ১৬৪২ রোহিঙ্গা চক্রান্ত রুখতে কঠোর অবস্থান গেজেটভুক্ত বীর মুক্তিযোদ্ধা: যাচাই হবে ৫৫ হাজার সনদ করোনার অজুহাতে অফিসে অনুপস্থিত থাকা যাবে না ১০ জেলায় করোনার অ্যান্টিজেন পরীক্ষা বগুড়ায় রেকর্ড পরিমাণ আলু উৎপাদনের সম্ভাবনা এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে বদলাবে চট্টগ্রাম মৌলবাদী গোষ্ঠীর বিরুদ্ধে একাট্টা দেশ অনলাইনে জাতীয় পরিচয়পত্র সংশোধন পাকিস্তানের ১৯৭১ সালের নৃশংসতা অমার্জনীয় : প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশের প্রতিচ্ছবি বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য বিশ্বে একদিনে আক্রান্ত ৬ লাখ ৭৯ হাজার আট জাহাজে চড়ে ভাসানচরের পথে রোহিঙ্গারা কঠোর নির্দেশনার আওতায় আসছেন প্রাথমিকের ২৫০ শিক্ষক দুর্ঘটনা এড়াতে স্বয়ংক্রিয় পদ্ধতি চালু করছে রেলওয়ে যেকোনো হুমকি মোকাবিলায় প্রস্তুত থাকার নির্দেশ সেনাপ্রধানের
  • শুক্রবার   ০৪ ডিসেম্বর ২০২০ ||

  • অগ্রাহায়ণ ২১ ১৪২৭

  • || ১৮ রবিউস সানি ১৪৪২

৪২

যে কারণে ৬ জনকে সঙ্গে নিয়ে মাকে টুকরো করেছিল ছেলে

নোয়াখালী সমাচার

প্রকাশিত: ২২ অক্টোবর ২০২০  

ছয়জনের সহায়তায় মাকে হত্যা করে টুকরো টুকরো করে ছেলে। শুধু তাই নয় হত্যার পর মরদেহকে পাঁচ টুকরো করে জমিতে ছড়িয়ে ছিটিয়ে দেন হত্যাকারীরা।

বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১১টায় নোয়াখালী জেলা পুলিশের সভা কক্ষে চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজি মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন এক সংবাদ সম্মেলনে হত্যাকাণ্ডের রহস্য উদ্ঘাটন করে বিস্তারিত জানান।

তিনি জানান, ৬ অক্টোবর রাতে নূরজাহান হত্যার পর মরদেহকে ৫টুকরো করে জমিতে ছড়িয়ে ছিটিয়ে দেয়। পরদিন ৭ অক্টোবর তার ছেলে হুমায়ুন কবির বাদী হয়ে চরজব্বার থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। পুলিশ তাৎক্ষণিক নীরব নামে একজনকে গ্রেফতার করে। গ্রেফতারকৃত নীরবের তথ্য অনুযায়ী স্থানীয় এক কশাইকে গ্রেফতার করে। এক পর্যায়ে তাদের তথ্য অনুযায়ী পুলিশ মামলার বাদী হুমায়ুন কবিরকে গ্রেফতার করে। পরে তার স্বীকারোক্তিমূলক মোট পাঁচজনকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

গ্রেফতারদের স্বীকারোক্তি অনুযায়ী, ভিকটিম নূরজাহানের আগের ঘরের সন্তান বেলাল ৪ লাখ টাকা ঋণ করে মারা যায়। ওই ঋণের টাকা পরিশোধ নিয়ে নূরজাহানের সঙ্গে তার বর্তমান স্বামীর ঘরের সন্তান হুমায়ুন কবিরের প্রায়শ ঝগড়া হয়। তারই জের ধরে হুমায়ুন ছয়জনকে সঙ্গে নিয়ে ৬ অক্টোবর রাতে মাকে প্রথমে বালিশ চাপা দিয়ে হত্যা করে। পরে তার মরদেহকে পাঁচ খন্ড করে পার্শ্ববর্তী একটি ধানক্ষেতে ফেলে দেয়।

তিনি আরো জানান, এ ঘটনায় ৭ আসামীর মধ্যে ৫ জনকে পুলিশ এরইমধ্যে আটক করেছে। এর মধ্যে গ্রেফতারকৃত নীরব ও নূর ইসলাম কসাই নামের দুই আসামী আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছে। অন্য দুই আসামী ইসমাইল ও হামিদ এখনো পলাতক রয়েছে।

নোয়াখালী বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর