ব্রেকিং:
কোম্পানীগঞ্জ আওয়ামীলীগ যার জন্যে বিশাল ডিনার পার্টির আয়োজন করলো হঠাৎ এক বিস্ময়কর শিশুর জন্ম, এমন শিশু আগে দেখেননি শাহজালালে যাত্রীর পায়ুপথে এ কি? জানলে আঁতকে উঠবেন হতে যাচ্ছে ‘বৃহত্তর নোয়াখালী বিতর্ক উৎসব’ দেখেন নিন কোথায় কখন হবে কোম্পানীগঞ্জে দূর্গাপূজা উপলক্ষ্যে প্রশাসন যেসকল ব্যবস্থা নিবে বরের জায়গায় কনে, কিন্তু কেন ? জানলে হাসি থামাতে পারবেন না নোয়াখালীতে কি সরকারি ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজ হচ্ছে !! নোয়াখালী জেলা পুলিশ লাইন্স মাঠে আজ যা অনুষ্ঠিত হলো এবার নোয়াখালীর গর্ব শিবলী যে কাজ করে প্রসংশিত হয়েছেন নোয়াখালীতে শেখ ফজিলাতুন্নেছা গোল্ডকাপের ফাইনাল ঘোষণা নোয়াখালীতে প্রযুক্তিগত সেবা দিতে পুলিশ যে পদক্ষেপ নিয়েছে হাতিয়ায় নিখোঁজের ৯ বছর পর কোথা থেকে এলো এই তরুণী বিদ্যালয়ের ভবন দেখলে অবাক হবেন ‘দুর্নীতির বিরুদ্ধে অভিযান সারাদেশেই চলবে’ প্রমাণ পেলে সবার বিরুদ্ধেই ব্যবস্থা: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জামায়াত একটি বিধ্বংসী দল: ধর্ম প্রতিমন্ত্রী নোয়াখালীতে পল্লী বিদ্যুতের সাব জোনাল অফিসের উদ্বোধন নোয়াখালীতে কিশোরীকে গণধর্ষণ, তারপর যা হলো প্রেমিকের নোয়াখালীতে অপহৃত স্কুলছাত্রীকে যেভাবে উদ্ধার করা হলো নোবিপ্রবি সাংবাদিক সমিতি`র কমিটিতে কে কি পদ পেলেন

রোববার   ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯   আশ্বিন ৭ ১৪২৬   ২২ মুহররম ১৪৪১

সর্বশেষ:
একবছরে পাঁচগুণ মুনাফা বেড়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের আমাজন বাঁচাতে লিওনার্দোর ৫০ মিলিয়ন ডলারের অনুদান রাজধানীতে চার জঙ্গি আটক ১৬২৬৩ ডায়াল করলেই মেসেজে প্রেসক্রিপশন পাঠাচ্ছেন ডাক্তার জোরশোরে চলছে রূপপুর পারমাণবিক প্রকল্পের কাজ
৪৯৫

যেভাবে খুন হলেন নোয়াখালীর সেই ব্যবসায়ী

প্রকাশিত: ৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯  

নোয়াখালীর চাটখিলের মোহাম্মদপুর ইউপির কুলশ্রী গ্রামে চা ব্যবসায়ী হত্যার রহস্য উদঘাটন করেছে পুলিশ। এ হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত এক প্রবাসীর স্ত্রী ও তার ছেলেকে আটক করা হয়েছে।
বৃহস্পতিবার বিকেলে এসপি আলমগীর হোসেন এক সংবাদ সম্মেলনে হত্যার রহস্য উদঘাটনের তথ্য জানান।

তিনি জানান, চা ব্যবসায়ীর মরদেহ উদ্ধার করার আগের রাতে মোবাইলে একাধিক কল আসে। সেই তথ্য পুলিশকে জানান নিহতের মেয়ে। এর সূত্র ধরে পুলিশ তথ্য ও প্রযুক্তি ব্যবহার করে নিহত শাহ আলমের কল লিস্ট বের করে। কল লিস্টে কালশ্রী গ্রামের কুয়েত প্রবাসী শাহ আলমের স্ত্রী ইয়াসমিন আক্তারের নম্বর পাওয়া যায়। এর ভিত্তিতে বুধবার রাতে তাকে বাবার বাড়ি থেকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করলে হত্যার রহস্য উদঘাটন হয়। এরপর তার ছেলে শান্তসহ হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত লাঠিটি উদ্ধার করা হয়। 

তিনি আরো জানান, বৃহস্পতিবার ইয়াছমিন ও শান্ত নোয়াখালীর সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট শোয়েব উদ্দিন খান ও মুশফিকুল হকের আদালতে স্বীকারোক্তি দেন। ইয়াছমিনের স্বীকারোক্তি অনুযায়ী, নিহত শাহ আলম প্রায় গভীর রাতে মোবাইলে ইয়াছমিনকে বিরক্ত ও রাতে ঘরের দরজা-জানালায় টোকা দিত। এ বিষয়ে ইয়াছমিনের ছেলে শান্ত মুঠোফোনে শাহ আলমকে শাসান। এরপরও সে ইয়াছমিনকে উত্ত্যক্ত করতে থাকে। তাই ছেলের সঙ্গে আলাপ করে শাহ আলমকে শিক্ষা দেয়ার পরিকল্পনা করেন ইয়াছমিন। সেই পরিকল্পনা অনুযায়ী ৪ সেপ্টেম্বর রাতে শাহ আলমকে ডাকেন ইয়াছমিন। ইয়াছমিনের ফোন পেয়ে শাহ আলম ঘরের দরজা বন্ধ করে ইয়াছমিনের বাড়ির দিকে রওনা হন।  তিনি কুলশ্রী গ্রামের আবুল কালামের দোকানের সামনে এলে শান্ত ও তার সহযোগী শাহ আলমকে আটক করে দোকানের পিছে নিয়ে যান। পরে তার ঘাড়ে কাঠের লাঠি দিয়ে আঘাত করেন শান্ত। পরে শাহ আলমকে উপুড় করে তারা ঘটনাস্থল ত্যাগ করেন। 

এসপি আরো জানান, ১২ ঘণ্টার মধ্যে চা ব্যবসায়ী হত্যাকাণ্ডের রহস্য উদঘাটন সম্ভব হয়েছে।

নোয়াখালী সমাচার
নোয়াখালী সমাচার
এই বিভাগের আরো খবর