ব্রেকিং:
দেশে ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত ২ হাজার ছাড়ালো, মৃত্যু ১৫ ‘স্বল্প সংখ্যক’ যাত্রী নিয়ে ৩১ মে থেকে চলবে বাস-ট্রেন-লঞ্চ স্বাস্থ্যবিধি মেনে ফ্লাইট চালুর প্রস্তুতি করোনা ও অন্য রোগীদের আলাদা চিকিৎসা দেয়ার নির্দেশ মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন শিল্পপ্রতিষ্ঠানসমূহকে ঢেলে সাজানো হচ্ছে আরও ২ হাজার চিকিৎসক নেওয়ার পরিকল্পনা সংক্রমণ ঝুঁকিমুক্ত বিশেষ চিকিৎসা বুথ তৈরি ছুটি আর বাড়ছে না, ৩১ মে থেকে অফিস শুরু দুর্গম খাসিয়া পুঞ্জিতে প্রধানমন্ত্রীর উপহার শ্রীলঙ্কার প্রধানমন্ত্রীকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানালেন শেখ হাসিনা করোনায় সংক্রমিত পৌরসভার পিয়ন ফকির সুবর্ণচরে সরকারি চাল জব্দ, ডিলার পলাতক, ক্রেতার জরিমানা নোয়াখালীতে ২৪ ঘণ্টায় করোনায় ৩ জনের মৃত্যু নোয়াখালীতে ডোবায় মিলল ব্যবসায়ীর লাশ হাতিয়া উপকূলে নতুন প্রজাতি আবিষ্কার করলেন নোবিপ্রবি শিক্ষক ফেনীতে মিলে আগুন! লক্ষাধিক টাকা ক্ষতি শুধু যোদ্ধাই নয়, হাতে ওদের নতুন পৃথিবীও করোনার নমুনা সংগ্রহে ‘ভিটিএম কিট’ তৈরি হলো দেশে ২৪ ঘণ্টায় নতুন কোনো ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে ভর্তি হয়নি করোনা জয় করলেন ১১১৯ পুলিশ সদস্য
  • বৃহস্পতিবার   ২৮ মে ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১৫ ১৪২৭

  • || ০৫ শাওয়াল ১৪৪১

২০১

যুক্তরাষ্ট্রে করোনার দ্বিতীয় ভ্যাকসিনের পরীক্ষামূলক প্রয়োগ

নোয়াখালী সমাচার

প্রকাশিত: ৮ এপ্রিল ২০২০  

নভেল করোনাভাইরাস। বৈশ্বিক মহামারি সৃষ্টি করা এ ভাইরাসের ওষুধ এবং ভ্যাকসিন তৈরি করতে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের বিজ্ঞানীরা দিনরাত চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। এরইমধ্যে বেশ কয়েকটি ভ্যাকসিনের পরীক্ষামূলক প্রয়োগও হয়েছে। তবে যুক্তরাষ্ট্রের বায়োটেকনোলজি কোম্পানি ইনোভিও সোমবার করোনার একটি ভ্যাকসিনের প্রথম ধাপের পরীক্ষামূলক প্রয়োগ করেছে।

জানা গেছে, ইনোভিও ফার্মাসিউটিক্যালস নামের ওই সংস্থার তৈরি করোনার প্রতিষেধক পরীক্ষামূলকভাবে প্রয়োগ করা হচ্ছে ৪০ জন স্বাস্থ্যবান স্বেচ্ছাসেবীর শরীরে। পরীক্ষাটি সফল হলে পরবর্তী সময়ে করোনা মোকাবিলায় ভ্যাকসিনটি ব্যবহার করা হবে। তবে ধারণা করা হচ্ছে, চলতি বছরের গ্রীষ্মের শেষের দিকে এই ভ্যাকসিনটির ফেইজ-১ ট্রায়াল সম্পন্ন হতে পারে।

ফেইজ-১ ট্রায়ালের উদ্দেশ্য হচ্ছে ভ্যাকসিনটি নিরাপদ এবং যাদের শরীরে প্রয়োগ করা হচ্ছে, তাদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কাঙ্ক্ষিত সাড়া দিচ্ছে কিনা সেটি জানা। তবে কোভিড-১৯ সংক্রমণ প্রতিরোধে এই ভ্যাকসিনের কার্যকরীতা প্রমাণের জন্য আরো বেশি সংখ্যক মানুষের শরীরে এর প্রয়োগ করা দরকার বলে গবেষকরা জানিয়েছেন। এর ফলে চূড়ান্ত ভ্যাকসিন পেতে আরো দীর্ঘ কয়েক মাস সময় লাগতে পারে।

করোনার এ প্রতিষেধকের নাম দেয়া হয়েছে আইএনও–৪৮০০। এটি যুক্তরাষ্ট্রে পরীক্ষামূলকভাবে মানুষের শরীরে প্রয়োগ করা দ্বিতীয় সম্ভাব্য প্রতিষেধক। এর আগে, গত মাসে ম্যাসাচুসেটসের একটি বায়োটেক সংস্থা পরীক্ষামূলকভাবে ভ্যাকসিনের প্রয়োগ শুরু করেছিল।

প্রযুক্তিবিষয়ক ওয়েবসাইট টেক ক্রাঞ্চ জানিয়েছে, ইনোভিও ফার্মাসিউটিক্যালসকে এ কাজে আর্থিক সহায়তার জন্য এগিয়ে এসেছে বিল গেটস ও মেলিন্ডা গেটস ফাউন্ডেশন।

উল্লেখ্য, যুক্তরাষ্ট্রে প্রাণঘাতী করোনায় এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন ১৪ লাখ ৩১ হাজার ৩৭৫ জন এবং মারা গেছেন ৮২ হাজার ১৪৫ জন।

করোনাভাইরাস বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর